Home /News /sports /
Messi and Maradona: নিজে জিতলেন, মারাদোনার অধরা কোপাও গুরুদক্ষিণা দিলেন লিওনেল মেসি!

Messi and Maradona: নিজে জিতলেন, মারাদোনার অধরা কোপাও গুরুদক্ষিণা দিলেন লিওনেল মেসি!

গুরুকে জেতালেন শিষ্য

গুরুকে জেতালেন শিষ্য

Messi and Maradona: বিশ্বকাপ জিতলেও কোপা আমেরিকা কখনও জিততে পারেননি মারাদোনা। সেই গুরুদক্ষিণাও এবার মারাদোনাকে দিয়ে দিলেন লিও মেসি।

  • Share this:

    #ব্রাজিল: কে বড়, লিওনেল মেসি নাকি দিয়েগো মারাদোনা? লিও মেসি কি ছাপিয়ে যাবেন মারাদোনাকেও? আর্জেন্টিনার প্রয়াত 'ঈশ্বরের' সঙ্গে অবশ্য কখনই নিজেকে একাসনে বসাতে চাননি রোজারিওর লিও, কিন্তু তুলনা বন্ধ করেননি ফুটবল ভক্তরা। গুরু আর শিষ্য অবশ্য কখনই সে সব কানে তোলেননি। কিন্তু 'গুরুর' হাতে উঠেছিল বিশ্বকাপ, অথচ দেশের হয়ে কোনও ট্রফি নেই শিষ্যের। কিন্তু তা বলার দিন ফুরোল এবার। করোনা বিধ্বস্ত পৃথিবীতে কোপা আমেরিকা জিতলেন লিও মেসি ও তাঁর দেশ আর্জেন্টিনা। বিশ্বকাপ জিতলেও কোপা আমেরিকা কখনও জিততে পারেননি মারাদোনা। সেই গুরুদক্ষিণাও এবার মারাদোনাকে দিয়ে দিলেন লিও মেসি।

    বিশ্বের প্রাচীনতম ফুটবল টুর্নামেন্ট হিসেবে পরিচিত এই কোপা আমেরিকা। কথায় বলে ফুটবলের জন্ম ইংল্যান্ডে, কিন্তু রূপ দিয়েছে লাতিন আমেরিকা। ফুটবলকে ব্যবসার পর্যায় নিয়ে গিয়েছে ইউরোপ, কিন্তু শিল্পের সান্নিধ্যে নিয়ে এনেছে লাতিন আমেরিকা। পৃথিবীর দুই মহাদেশে ফুটবল বরাবরই দুই ভাগে বিভক্ত। ইউরোপে গতি, শক্তি নির্ভর ফুটবল। আর সেখানে লাতিন আমেরিকার ফুটবলে সৌন্দর্য এবং ছন্দময় ঘরানা। আর সেই ঘরানার সম্পদের নাম লিও মেসি।

    ২০১৪ বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনাকে ফাইনালে নিয়ে গেলেও বিশ্বকাপ জেতা হয়নি লিওনেল মেসির। এর আগে কখনও জেতা হয়নি কোপা আমেরিকাও। অনেকেই বলেছিলেন, এবার, নয় নেভার। অর্থাৎ, শেষ সুযোগ ছিল মেসির পায়ে। সেই সুযোগ তিনি কাজে লাগালেন। নিজে জিতলেন, জিতিয়ে দিলেন মারাদোনাকেও।

    এবারের কোপা শিরোপা জিতে আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে অপূর্ণতা ঘুচাতে পারবেন মেসি ? পেলে, দিয়েগো মারাদোনাও জেতেননি কোপা আমেরিকা। পেলে পুরো ক্যারিয়ারে একবারই খেলেছিলেন ১৯৫৯ সালে, বিশ্বকাপ জেতার পরের বছরই। সেবার আট গোল করে টুর্নামেন্টের সেরা হয়েছিলেন। তবে শিরোপা জিতে নিয়েছিল আর্জেন্টিনা। এবার পারলেন না নেইমারও। কিন্তু পারলেন লিওনেল মেসি।

    ১৯৯৩ সালে শেষবার যখন আর্জেন্টিনা কোপা জিতেছিল, তখন দিয়েগো মারাদোনা যেন থেকেও নেই। ড্রাগ নেওয়ার কারণে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে সদ্য ফিরেছেন। তবে ফিরলেও তাঁর সেই পারফরম্যান্স নেই। কোচ আলফিও বাসিলে তাঁকে বাদ দিয়ে ডিয়েগো সিমিওনেকে দেন ১০ নম্বর জার্সি। কিন্তু শিরোপা শেষ পর্যন্ত ছিনিয়ে নেয় উরুগুয়ে। পেলে, মারাদোনার এই একটি টুর্নামেন্টের অপূর্ণতা নিয়ে তবু কে কথা বলে! তাঁদের মুকুটে যে আরো মূল্যবান পালক আছে—বিশ্বকাপ। লিওনেল মেসির তা ছিল না। এদিন থেকে মারাদোনা, পেলের অপূর্ণতা নিজে ছুঁয়ে দেখলেন মেসি। শাপমোচন হল ফুটবল রাজপুত্রের।

    Published by:Suman Biswas
    First published:

    পরবর্তী খবর