Home /News /sports /

David Warner Ashesh : অ্যাশেজ সিরিজে ডেভিড ওয়ার্নার বিরাট ফ্যাক্টর, মানছেন জিমি অ্যান্ডারসন

David Warner Ashesh : অ্যাশেজ সিরিজে ডেভিড ওয়ার্নার বিরাট ফ্যাক্টর, মানছেন জিমি অ্যান্ডারসন

ইংল্যান্ডের প্রধান ভয়ের কারণ ডেভিড ওয়ার্নার

ইংল্যান্ডের প্রধান ভয়ের কারণ ডেভিড ওয়ার্নার

James Anderson believes David Warner will be different animal in the Ashes. অ্যাশেজে ভয়ংকর হবে ডেভিড ওয়ার্নার, বলছেন অ্যান্ডারসন, ইংল্যান্ডের প্রধান ভয়ের কারণ ডেভিড ওয়ার্নার

  • Share this:

    #মেলবোর্ন: আইপিএল নিলামে ( IPL mega auction) বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে তাঁকে নিয়ে দড়ি টানাটানি হতে পারে। ডেভিড ওয়ার্নার ( David Warner) নিজের সেরা ছন্দে থাকলে বিপক্ষ দলের অবস্থা কাহিল করে দেন। একার হাতেই ঘুরিয়ে দিতে পারেন ম্যাচের ভাগ্য। সম্প্রতি সেটা প্রমাণ করেছেন অস্ট্রেলিয়ার জার্সি গায়ে। টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপের (T20 World Cup) আগে প্রায় প্রতিদিনের আলোচনাতেই একটি বিষয় ছিল সাধারণ—সংযুক্ত আরব আমিরাতে কী করবেন ডেভিড ওয়ার্নার!

    আরও পড়ুন -IND vs NZ 2nd test : ফলো অন না করিয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত, বলছেন সুনীল গাভাসকার

    বিশ্বকাপের আগে টি–টোয়েন্টিতে কিছুটা ছন্নছাড়া পারফরম্যান্স ছিল তাঁর। আলোচনা ছিল এ কারণেই। কিন্তু অস্ট্রেলিয়াকে প্রথমবারের মতো টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতাতে অসাধারণ খেলেছেন ওয়ার্নার। তিনটি অর্ধশতক, একটি ৪৯ রানের ইনিংসসহ টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৮৯ রান করেছেন তিনি। ওয়ার্নারকে নিয়ে আবার আলোচনার ঝড় উঠেছে, কেমন করবেন তিনি এবারের অ্যাশেজে!

    শঙ্কাবাদীরা সামনে নিয়ে এসেছেন ২০১৯ সালের অ্যাশেজে তাঁর পারফরম্যান্সের বিষয়। ইংল্যান্ডে সেবারের অ্যাশেজে মাত্র ৯.৫ গড়ে ৯৫ রান করেছেন ওয়ার্নার। সাতবারই আউট হয়েছিলেন ফাস্ট বোলার স্টুয়ার্ট ব্রডের বলে। কিন্তু ২০১৯ সালের এ পরিসংখ্যান দেখে এবারের অ্যাশেজে ওয়ার্নারকে মাপতে গেলে বড় ভুলই হবে বলে মনে করেন ইংল্যান্ডের ফাস্ট বোলার জেমস অ্যান্ডারসন ( James Anderson wary of David Warner)। ওয়ার্নারকে নিয়ে তিনি বলেছেন, ডেভিড ওয়ার্নারের বিপক্ষে আমরা অনেক খেলেছি।

    আরও পড়ুন - Messi hotel demolition : বার্সেলোনায় অবৈধ হোটেল মেসির, গুঁড়িয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিল স্পেনের আদালত

    আমরা জানি, কখনই বলা যাবে না যে তার ওপর চেপে বসতে পেরেছি। সে অসাধারণ এক ব্যাটসম্যান, মানের দিক থেকেও সে অনেক ভাল। ৮৬ টেস্টে প্রায় ৫০ গড়ে রান করেছেন ওয়ার্নার। টেস্ট ক্রিকেটে ওয়ার্নারের মোট রান ৭৩১১। এর মধ্যে ঘরের মাঠে খেলা ৪৫ টেস্টে ১৮টি শতকসহ ৬৩.২০ গড়ে করেছেন ৪৫৫১ রান। টেস্টে তাঁর সর্বোচ্চ ৩৩৫ রানের ইনিংসটিও ঘরের মাঠেই।

    অ্যান্ডারসন সবাইকে মনে করিয়ে দিয়েছেন এসবই, অস্ট্রেলিয়াতে তাঁর রেকর্ড অসাধারণ। তাই আমরা জানি, ২০১৯–এর গ্রীষ্মে আমরা যে ওয়ার্নারের মুখোমুখি হয়েছি, এবার আর তেমন হবে না। এবার অন্য এক ওয়ার্নারেরই মুখোমুখি হতে হবে আমাদের। অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক গ্রেগ চ্যাপেলের ( Greg Chappel) কথাও একই রকম। ওয়ার্নারকে কখনোই হেলাফেলা করা উচিত হবে না।

    ইংল্যান্ডে অবশ্য বেন স্টোকস ( Ben Stokes)ফিরে আসায় কিছুটা খুশির মেজাজ। একসময় বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার বেশ কিছুদিন ক্রিকেট থেকে বিরতি নিয়েছিলেন। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে শুরু থেকেই বেন স্টোকসকে পাওয়া যাবে, আশাবাদী ইংল্যান্ড। তবে ডেভিড ওয়ার্নার অ্যাশেজ যুদ্ধে( Ashes series) বিরাট ফ্যাক্টর হতে চলেছেন তাতে সন্দেহ নেই।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    Tags: David Warner

    পরবর্তী খবর