Home /News /sports /

Ind vs Nz 1st Test kanpur: ভয়ঙ্কর কাণ্ড! সজোরে বল লাগল পাকিস্তানের আম্পায়ার আলিম দারের মাথায়

Ind vs Nz 1st Test kanpur: ভয়ঙ্কর কাণ্ড! সজোরে বল লাগল পাকিস্তানের আম্পায়ার আলিম দারের মাথায়

Aleem dar: মাথায় এসে সজোরে লাগে বল। পাকিস্তানে আম্পায়ার আলিম দার যন্ত্রণায় কাতরাতে থাকেন।

  • Share this:

    #আবু ধাবি: ফিল হিউজের কথা এখনও ভোলেননি ক্রিকেটভক্তরা। অস্ট্রেলিয়ার প্রতিভাবান ব্যাটার মাঠেই প্রাণ হারিয়েছিলেন। বল এসে লেগেছিল তাঁর ঘাড়ে। সঙ্গে সঙ্গে মাঠেই লুটিয়ে পড়েছিলেন তিনি। তার পর তড়ঘড়ি তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও বাঁচানো সম্ভব হয়নি। ক্রিকেট মাঠে এমন ঘটনা হামেশাই হয়। বোলারের রাইসিং ডেলিভারি বা বাউন্সার এসে লাগে ব্যাটারের শরীরে বা মাথায়। হিউজ মারা যাওয়ার পর হেলমেটের গঠনও বদলেছে। এমনকী আম্পায়ারদেরও আত্মরক্ষার জন্য হাতে একটি গার্ড দেওয়া হয়েছে। তবুও দুর্ঘটনা এড়ানো যাচ্ছে না যেন!

    আবুধাবিতে টি-টেন লিগের(Abu Dhabi T10) একটি ম্যাচে পাকিস্তানি আম্পায়ার আলিম দারের সঙ্গে একটি ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটেছে। তবে এই দুর্ঘটনায় তার তেমন কোনো ক্ষতি হয়নি। বরাতজোরে বেঁচে গিয়েছেন তিনি। আসলে, চেন্নাই ব্রেভস এবং নর্দান ওয়ারিয়র্সের মধ্যে খেলায় প্রচণ্ড গতিতে আসা একটি বল তাঁর মাথায় এসে লাগে। ভয়ঙ্কর শব্দও হয়। আর তাতে মাঠে উপস্থিত প্রত্যেকে ভীষণ ভয়ও পেয়ে যান।

    আরও পড়ুন- '১০ টাকার পেপসি, আইয়ার ভাই সেক্সি', কানপুরে কান ফাটানো চিত্কার

    এই ম্যাচে নর্দার্নের দুই ব্যাটসম্যান কেনার লুইস ও মঈন আলী ১৯ বলে ৪৯ রান করে করেন। নর্দার্ন নির্ধারিত ১০ ওভারে ১৫২ রান করে। জবাবে চেন্নাই মাত্র ১৩৩ রান করতে পারে এবং ম্যাচটি ১৯ রানে হেরে যায়। ম্যাচের সেরা হন কেনার। এই ম্যাচে চার ও ছক্কার বৃষ্টি হয়েছে।

    ম্যাচে বোলারদের বিরুদ্ধে আগ্রাসী খেলছিলেন ব্য়াটাররা। কারণ, দশ ওভারের ম্যাচ। ফলে ব্যাটাররা আর উইকেট বাঁচানোর চেষ্টা করেননি। রান তোলাই মূখ্য হয়ে উঠেছিল। তবে এই ম্যাচের সবচেয়ে ভয়ঙ্কর মুহূর্তটি ছিল আম্পায়ারের চোট। মাথায় বল লেগে আহত হন আলিম দার। প্রথম ইনিংসের পঞ্চম ওভারে একজন ফিল্ডার বলটি দ্বিতীয় ফিল্ডারের কাছে ছুঁড়ে দিতে চায়। তখনই বলটি আম্পায়ারের মাথায় লাগে।

    আরও পড়ুন- নিলামে মর্গ্যান এবং সাকিবকে ছেড়ে দিচ্ছে কেকেআর, বিরাট থাকছেন আরসিবিতেই

    ৫৩ বছর বয়সী আলিম দার পালানোর জন্য দৌড়ে গেলেও তাঁর মাথায় বলটি লাগে। তবে বড় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পান তিনি। বল বাউন্স হওয়ার পর সেটি আঘাত করে। বাউন্সের কারণে বলের গতি কমে যায়। যদিও তাকে বেশ কিছুদিন ধরেই যন্ত্রণায় কাতরাতে দেখা গিয়েছিল। নর্দান ওয়ারিয়র্সের ফিজিও তাঁকে পরীক্ষা করেন।

    Published by:Suman Majumder
    First published:

    Tags: Abu Dhabi, Umpire

    পরবর্তী খবর