Home /News /south-bengal /
Tmc Leader Crying: টিকিট পাননি নিজে, স্ত্রীকেও প্রার্থী করেনি দল! কেঁদে ভাসালেন তৃণমূল নেতা

Tmc Leader Crying: টিকিট পাননি নিজে, স্ত্রীকেও প্রার্থী করেনি দল! কেঁদে ভাসালেন তৃণমূল নেতা

Tmc Leader Crying In Bardhaman: বিজেপির কটাক্ষ, কাউন্সিলর হয়ে ফুলে ফেঁপে ওঠাই শাসক দলের অনেকের লক্ষ্য। তাই কান্না তো স্বাভাবিক।

  • Share this:

#বর্ধমান: পৌরসভা ভোটে টিকিট না পেয়ে কেঁদে ভাসালেন বর্ধমানের তৃণমূল নেতা। তাঁর সেই কান্নার ভিডিও এখন সোশাল মিডিয়ায় রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। শাসক দলের নেতার কান্না বর্ধমানে রীতিমতো আলোচনার বিষয় হয়ে উঠেছে। অন্য রাজনৈতিক দল তো বটেই, তৃণমূলের নিচু তলার কর্মী মহলেও এই নিয়ে জোর গুঞ্জন চলছে।

দলীয় টিকিটে প্রার্থী হতে না পেরে কেঁদে ভাসালেন পূর্ব বর্ধমান জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের অন্যতম প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক আব্দুল রব। বর্ধমান পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ড থেকে তাঁর স্ত্রী তনুজা বেগমকেও দল প্রার্থী না করায় কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।

আরও পড়ুন- একই পরিবারের চার জনের কোপানো দেহ, সিঙ্গুরের কাঠের মিলে যা ঘটেছিল...

দলের প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পর থেকেই রাজ্যের অন্যান্য এলাকার মতো বর্ধমানেও তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠী কোন্দল প্রকাশ্যে এসে পড়ে। বর্ধমানের বেশ কয়েকটি ওয়ার্ডে প্রার্থী বদলের দাবিতে ব্যাপক বিক্ষোভ হয়। টায়ারে আগুন ধরিয়ে পথ অবরোধও করেন তৃণমূল কর্মীরা। শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত বদল হবে বলে আশায় ছিলেন কেউ কেউ। একটি ওয়ার্ড ছাড়া আর কোথাও প্রার্থী বদল করেনি দল। আশাহত হয়ে কান্নায় ভাসলেন তৃণমূল নেতা।

আবদুল রব বলেন, ''দীর্ঘদিন ধরে দল করছি। দলের হয়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছি। একাধিকবার জেল খেটেছি। প্রতিদানে পুর ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সুযোগ পাব, এমনটাই আশা করেছিলাম। সেই মতো প্রস্তুতিও নিয়েছিলাম। আমার নাম বিবেচিত না হলে অন্তত আমার স্ত্রী টিকিট পাবে ভেবেছিলাম। কোনোটাই না হওয়ার আমি হতাশ।''

কটাক্ষ করতে ছাড়ছে না বিজেপি। তাদের বক্তব্য, কাউন্সিলর হয়ে ফুলে ফেঁপে ওঠাই শাসক দলের অনেকের লক্ষ্য। তাই কান্না তো স্বাভাবিক।

আরও পড়ুন- হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ! প্রতারণার ফাঁদে মুহূর্তে ৬০ হাজার টাকা খোয়ালেন ব্যক্তি

বর্ধমান দক্ষিণের বিধায়ক খোকন দাস জানান, ''দলীয় টিকিটে প্রার্থী হিসাবে দাঁড়ানোর আশা সকলেরই থাকে। কিন্তু সবাইকে তো প্রার্থী করা যায় না। তাই প্রাথমিক প্রতিক্রিয়ায় কেউ কেউ হতাশা ব্যক্ত করেছেন। তবে এখন আর কোনও সমস্যা নেই। কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াইয়ের জন্য সবাই তৈরি। সবকটি আসনেই আমরা বিপুল ভোটে জয়ী হবো।''

Published by:Suman Majumder
First published:

Tags: Bardhaman, Bardhaman news, TMC Leader, West Bengal Municipal Election 2022

পরবর্তী খবর