হোম /খবর /দক্ষিণবঙ্গ /
চুরি করে দিব্যি গা ঢাকা দিয়েছিল চোর, ধরিয়ে দিল ছোট্ট এই ভুল

চুরি করে দিব্যি গা ঢাকা দিয়েছিল চোর, ধরিয়ে দিল ছোট্ট এই ভুল

চুরি যাওয়া বিপুল পরিমাণে নগদ ও সোনার গয়না উদ্ধার করেছে বর্ধমান থানার পুলিশ।

  • Share this:

#বর্ধমান: মোবাইল টাওয়ারের লোকেশন যে এভাবে ধরিয়ে দেবে, তা আঁচও করতে পারেনি দুষ্কৃতী। চুরি করে দিব্যি গা ঢাকা দিয়েছিল সে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মোবাইলের টাওয়ার লোকেশনই ধরিয়ে দিল তাকে। চুরি যাওয়া বিপুল পরিমাণে নগদ ও সোনার গয়না উদ্ধার করেছে বর্ধমান থানার পুলিশ। উদ্ধার নগদ ৯ লক্ষ ৫২ হাজার ৩৫০ টাকা ও প্রায় ৫২ গ্রাম সোনার গয়না।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, হুগলির ত্রিবেনীর বাসুদেবপুরের বাসিন্দা পেশায় ডাক্তার সন্দীপ কুমার দাস বর্তমানে কর্মসূত্রে বর্ধমানের ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের বাবুরবাগ এলাকায় বসবাস করেন। গত ৯ ই অক্টোবর বাবুরবাগের বাড়িতে কেউ ছিল না। সেই অনুপস্থিতির সুযোগ নিয়ে প্রায় ৩০ লক্ষ টাকা ও ১৭ ভরি সোনার গয়না চুরি যায় বলে তিনি বর্ধমান থানায় অভিযোগ করেন।

এরপরই তদন্তে নেমে মোবাইল টাওয়ারের লোকেশন ধরে বোলপুরের গয়েশপুর ক্যানেল পার এলাকা থেকে মির বাদশা ওরফে বিকি নামে এক দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার  করে বর্ধমান থানার পুলিশ। পুলিশি হেফাজতে নিয়ে মির বাদশাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর একাধিক এলাকা থেকে উদ্ধার হয় প্রায় ৯ লক্ষ ৫২ হাজার ৩৫০ টাকা ও প্রায় ৫২ গ্রাম সোনার গয়না।

উদ্ধার হওয়া সোনার গয়না ও টাকা আদালতের নির্দেশ মতো সন্দীপ কুমার দাসকে তুলে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশের ডিএসপি ট্রাফিক ২ রাকেশ কুমার চৌধুরী।

আরও পড়ুন, নতুন 'উৎপাত'! এই হাসপাতালে পা রাখতেই 'ভয়' পাচ্ছেন সকলে

পুরো টাকা বা গয়না ফেরত না পেলেও পুলিশের তৎপরতায় খুশি ওই চিকিৎসক। তবে বাকি গয়না ও টাকা উদ্ধারের জন্য সব রকম চেষ্টা চালানো হবে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে তাঁকে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। তদন্তকারী পুলিশ অফিসাররা জানিয়েছেন ওই বাড়ি কোন দিন ফাঁকা থাকবে, তা দুষ্কৃতীর আগাম জানা ছিল। সেইমতো অপারেশন চালায় সে।

আরও পড়ুন, এসএসকেএমে মুখ্যমন্ত্রী! দেখা করলেন চিংড়িহাটা দুর্ঘটনায় আহতদের সঙ্গে, 'ট্রমা কেয়ার' নিয়ে মুখ খুললেন...

পরিবারের পরিচিত কেউ এই কাজ করে থাকতে পারে প্রথম থেকেই সন্দেহ হয়েছিল। এ ব্যাপারে ওই চিকিৎসকের সাহায্য নেওয়া হয়। তিনি পুলিশের কাছে কয়েকজনের নাম করেছিলেন। এরপরই দুষ্কৃতীকে ধরা সম্ভব হয়।

Published by:Suvam Mukherjee
First published:

Tags: Cash, Crime, Gold, Police