Home /News /south-bengal /
Howrah News: লঞ্চ থেকে গঙ্গায় মরণঝাঁপ বাবার, সাক্ষী থাকল দুই ছেলে! শিউরে উঠলেন যাত্রীরা

Howrah News: লঞ্চ থেকে গঙ্গায় মরণঝাঁপ বাবার, সাক্ষী থাকল দুই ছেলে! শিউরে উঠলেন যাত্রীরা

নিখোঁজ সঞ্জয় চৌহানের খোঁজে ডুবুরি নামায় পুলিশ৷

নিখোঁজ সঞ্জয় চৌহানের খোঁজে ডুবুরি নামায় পুলিশ৷

পুলিশ সূত্রে খবর, নিজের স্ত্রীর সঙ্গে মনোমািলন্যের জেরেই গঙ্গায় মরণঝাঁপ দেন সঞ্জয় (Howrah News)৷

  • Share this:

#হাওড়া: বেলুড় (Belur) থেকে দক্ষিণেশ্বরের (Dakshineswar) দিকে যাচ্ছিল লঞ্চ৷ বালি ব্রিজের কাছে হঠাৎই সেই লঞ্চ থেকে গঙ্গায় ঝাঁপ দিলেন এক ব্যক্তি৷ নিখোঁজ ওই ব্যক্তির নাম সঞ্জয় চৌহান৷ তাঁর খোঁজে ডুবুরি নামিয়ে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ৷ জানা গিয়েছে, নিজের দুই শিশুপুত্র এবং আত্মীয়দের সামনেই এই গঙ্গায় ঝাঁর দেন হাওড়ার কোণার বাসিন্দা সঞ্জয় চৌহান (Howrah News)৷

পুলিশ সূত্রে খবর, নিজের স্ত্রীর সঙ্গে মনোমািলন্যের জেরেই গঙ্গায় মরণঝাঁপ দেন সঞ্জয়৷ আদতে উত্তর প্রদেশের কানপুরের বাসিন্দা সঞ্জয় পেশায় রং মিস্ত্রি ছিলেন৷ কিন্তু করোনা অতিমারির পর থেকেই সেভাবে কাজ পাচ্ছিলেন না তিনি৷ এই নিয়ে হতাশায় ভুগছিলেন তিনি৷ সঞ্জয়ের স্ত্রী বাড়ি বাড়ি পরিচারিকার কাজ করতেন৷

আরও পড়ুন: হোমের আড়ালেই শিশু পাচারের কারবার, হাওড়ার প্রাক্তন ডেপুটি মেয়রের বৌমা সহ ধৃত ৯

পারিবারিক সূত্রে পুলিশ জানতে পেরেছে, স্ত্রীর সঙ্গে অন্য কারও সম্পর্ক আছে বলে সন্দেহ করতেন সঞ্জয়৷ এই নিয়ে দু' জনের মধ্যে অশান্তিও চলছিল৷ এ দিন সকালে সঞ্জয় তাঁর দুই ছেলেকে প্রথমে মারধর করেন৷ এর পর তাঁদের বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বেরোতে চান৷ সঞ্জয় স্ত্রীর ক্ষতি করতে পারেন, এই আশঙ্কায় বিষয়টি নিজের বোন এবং ভগ্নিপতিকে জানান সঞ্জয়ের স্ত্রী৷ এর পরই সঞ্জয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করেন তাঁর শ্যালিকা ও তাঁর স্বামী৷

আরও পড়ুন: চায়ের দোকানে তখনও লোক বসে, হঠাৎই ঢুকে পড়ল পেল্লাই গাড়ি! কলকাতায় মারাত্মক ঘটনা

এর পর দুই ছেলে এবং শ্যালিকার পরিবারের সঙ্গে বেলুড় যান সঞ্জয়৷ সেখান থেকে দক্ষিণেশ্বর যাওয়ার জন্য লঞ্চে ওঠেন তাঁরা৷ সঞ্জয় ও তাঁর দুই ছেলে ছাড়াও লঞ্চে ছিলেন সঞ্জয়ের শ্যালিকা, তাঁর স্বামী ও মেয়ে৷ লঞ্চটি বেলুড় মঠের কাছে পৌঁছতেই আচমকা লঞ্চের রেলিং টপকে গঙ্গায় ঝাঁপ দেন সঞ্জয়৷ ঘটনার আকস্মিকতায় শিউরে ওঠেন লঞ্চের বাকি যাত্রীরা৷ চোখের সামনেই বাবাকে গঙ্গায় তলিয়ে যেতে দেখে সঞ্জয়ের দুই ছেলে৷ তাদের বয়স যথাক্রমে দশ এবং তেরো বছর৷

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ৷ ডুবুরি নামিয়ে সঞ্জয়ের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়৷ যদিও বিকেল পর্যন্ত দেহের খোঁজ মেলেনি৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Howrah

পরবর্তী খবর