Home /News /south-bengal /
East Midnapur: 'কম দামে ৩০০ গ্রাম সোনা নিলামে বিক্রি আছে', তারপর যা হল, চাঞ্চল্য পূর্ব মেদিনীপুরে

East Midnapur: 'কম দামে ৩০০ গ্রাম সোনা নিলামে বিক্রি আছে', তারপর যা হল, চাঞ্চল্য পূর্ব মেদিনীপুরে

এক্কেবারে সিনেমার মতো ঘটনা ঘটল পূর্ব মেদিনীপুরে

  • Share this:

    #পূর্ব মেদিনীপুর: 'আসল' পুলিশের জালে ধরা পড়ে গ্রেফতার ৫ ভুয়ো পুলিশ! একেবারে ফিল্মি কায়দায় অল্প টাকায় সোনা বিক্রির টোপ দিয়ে পুলিশ সেজে এক ব্যবসায়ীকে প্রতারণার অভিযোগে ৩ ভুয়ো পুলিশ-সহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করল নন্দকুমার থানার পুলিশ!

    আরও পড়ুন: বারাসতে বাসে উঠল 'ওরা', ব্যবসায়ীকে নামিয়ে তারপর...পুলিশের বেশে কারা ছিল, জানেন?

    চাঞ্চল্যকর, এক্কেবারে সিনেম্যাটিক ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের (East Midnapur) নন্দকুমার থানার ব্যবত্তারহাট এলাকায়। ঠিক যেন সিনেমার টানটান চিত্রনাট্য! জানা গিয়েছে, ডানকুনির বামুনআড়ির বাসিন্দা সুজয় পাত্র। পেশায় সোনা ব্যবসায়ী সুজয়কে মুকুন্দ দাস নামে এক পরিচিত ব্যক্তি জানায়, কম দামে ৩০০ গ্রাম সোনা নিলামে বিক্রি আছে। ৯ লক্ষ টাকা দিলেই কম দরে পাওয়া যাবে দামী সোনা। তারই কথামতো সুজয় নিমতৌড়িতে এসে পৌঁছান। সেখান থেকে তাঁকে মুকুন্দ দাস-ই ব্যবত্তারহাটে নিয়ে আসে। এরপর গোপন জায়গায় দাঁড়িয়ে যখন টাকা এবং সোনা লেনদেন হচ্ছিল, সেই সময়ই ভুয়ো পুলিশ সেজে তিনজন ফিল্মি কায়দায় তল্লাসি চালানোর অভিনয় করে। সুজয়কে ভয় দেখিয়ে তাড়িয়েও দেওয়া হয় বলে অভিযোগ।

    আরও পড়ুন: দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে আসতে গিয়ে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু দুই মহিলার

    এরপর তাঁর কাছে থাকা ৯ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে বাকিদের গ্রেফতার করার অভিনয় করে ভুয়ো পুলিশের টিম। ঘটনার দিন গত ১৫ ফেব্রুয়ারি প্রতারিত সুজয় নন্দকুমার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। তদন্তে নেমে নন্দকুমার থানার পুলিশ ৩ ভুয়ো পুলিশ-সহ মোট ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে। আজ তাদের তমলুক আদালতে পেশ করা হয়।

    Sujit Bhowmik

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    Tags: East Midnapur

    পরবর্তী খবর