• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • Christmas 2021: বড়দিনের বাজার জমে ওঠায় হাসি ফুটল বিক্রেতাদের মুখে

Christmas 2021: বড়দিনের বাজার জমে ওঠায় হাসি ফুটল বিক্রেতাদের মুখে

করোনা সংক্রমণ কমতেই জমে উঠল বর্ধমানের বড়দিনের বাজার

করোনা সংক্রমণ কমতেই জমে উঠল বর্ধমানের বড়দিনের বাজার

করোনা সংক্রমণ কমতেই জমে উঠল বর্ধমানের বড়দিনের বাজার

  • Share this:

#বর্ধমান: করোনা সংক্রমণ কমতেই জমে উঠল বর্ধমানের বড়দিনের বাজার। বাজারে ক্রেতাদের ভিড় বাড়ায় হাসি ফুটেছে বিক্রেতাদের মুখে। তাঁরা বলছেন, '' গত দু'বছর করোনার কারণে বড়দিনের আগে বাজারে তেমন ভিড় দেখা যায়নি। বিক্রি না হওয়ার আশঙ্কায় বেশি সামগ্রী তোলা সম্ভব হয়নি। এবার করোনার সংক্রমণ অনেকটাই কমে যাওয়ায় কেনাকাটা বাড়বে বলে আশা করা হয়েছিল। সেই আশা সত্যি হয়েছে। গত কয়েক দিন ধরেই বড়দিন উপলক্ষে ভালই বিক্রি বাটা চলছে।''

আরও পড়ুন: সকাল থেকে চার্চগুলিতে চলছে প্রার্থনা, বড়দিনে উৎসবের মেজাজে বর্ধমান

বড়দিনে বিক্রির অন্যতম সামগ্রী কেক। বর্ধমানে তেঁতুলতলা বাজারে কেকের পাইকারি বাজার রয়েছে। এছাড়াও বড়দিন উপলক্ষে অস্থায়ী দোকান তৈরি করে আলো দিয়ে সাজিয়ে কেক বিক্রি শুরু হয়েছিল কয়েকদিন আগে থেকেই। তবে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়েছে শুক্র ও শনিবার। শুক্রবার বিকেল থেকে কেকের ব্যাপক চাহিদা তৈরি হয়েছে। শনিবার দিনভর বিভিন্ন রকমের কেক বিক্রি হয়েছে। নামি কোম্পানির কেকের পাশাপাশি ব্যাপক বিক্রি হয়েছে স্থানীয় বেকারির তৈরি করা বিভিন্ন কেক। বর্ধমান শহরের বড় বাজার, বি সি রোড, তেঁতুলতলা বাজার, কার্জন গেট চত্বরে চলছে বড়দিনের কেনাকাটা। সান্তা ক্লজের লাল টুপি, শান্তা পুতুল, বিভিন্ন উচ্চতার ক্রিসমাস ট্রি বিক্রি হয়েছে ভালোই। এছাড়াও ব্যাপক বিক্রি হয়েছে চকোলেট। মূলত ছোটদের উপহার দেওয়ার জন্য বিভিন্ন রকমের চকোলেটের চাহিদা ছিল উল্লেখ করার মতো।

আরও পড়ুন:তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে দিব্যেন্দুর বচসা, উত্তপ্ত কাঁথি! সাংসদকে হেনস্থার অভিযোগ

তবে এবার বড়দিনের সামগ্রীর দাম কিছুটা বেশি বলে জানাচ্ছেন ক্রেতারা। তাঁরা বলছেন, এবার শান্তা টুপি, ক্রিসমাস ট্রির দাম আগের বছরের তুলনায় বেড়েছে অনেকটাই। দাম বেড়েছে কেকেরও। বর্ধমানের বেকারি মালিকরা বলছেন,বিভিন্ন সামগ্রীর দাম বাড়ায় এবার কেকের দাম কিছুটা বাড়াতে হয়েছে। ময়দা থেকে শুরু করে কাজু, কিশমিশ, মোরব্বা , ডিম-সহ অন্যান্য সামগ্রীর দাম বেড়েছে। তাই খরচ সামাল দিতে দাম কিছুটা বাড়ানো ছাড়া উপায় ছিল না।

Saradindu Ghosh

Published by:Rukmini Mazumder
First published: