Home /News /south-bengal /

Dibyendu Adhikari: তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে দিব্যেন্দুর বচসা, উত্তপ্ত কাঁথি! সাংসদকে হেনস্থার অভিযোগ

Dibyendu Adhikari: তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে দিব্যেন্দুর বচসা, উত্তপ্ত কাঁথি! সাংসদকে হেনস্থার অভিযোগ

গন্ডগোলের সময় দিব্যেন্দুকে ঘিরে তাঁর নিরাপত্তারক্ষীরা৷

গন্ডগোলের সময় দিব্যেন্দুকে ঘিরে তাঁর নিরাপত্তারক্ষীরা৷

দিব্যেন্দু অধিকারীর ঘনিষ্ঠ মহলের অবশ্য দাবি, তমলুকের সাংসদের গাড়ি ঘিরে ধরেই কটূক্তি শুরু করেন তৃণমূল নেতারা (Dibyendu Adhikari)৷

  • Share this:

#কাঁথি: সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারীর (Dibyendu Adhikari) সঙ্গে কাঁথি (Contai) শহরের তৃনমুল নেতা ও তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতাদের সঙ্গে বচসা ঘিরে উত্তেজনা! তমলুকের সাংসদের দেহরক্ষীদের বিরুদ্ধে তৃণমূল নেতাদের মারধর করারও অভিযোগ উঠেছে৷ যদিও সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে পাল্টা তৃণমূল (TMC) নেতাদের বিরুদ্ধেই গন্ডগোলে প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ তুলেছেন তমলুকের সাংসদের ঘনিষ্ঠরা৷

ঘটনার সূত্রপাত শুক্রবার রাতে৷ তৃণমূল নেতাদের দাবি, শুক্রবার রাতে তমলুকের সাংসদের গাড়ি কাঁথি শহরের সাধু জানা পুকুরপাড়ের পাশ দিয়ে যাচ্ছিল৷ সেই সময় সেখান দিয়ে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের কয়েকজন সদস্য যাচ্ছিল৷ অভিযোগ, সেই সময় গাড়ি যানজটে আটকে পড়লে দিব্যেন্দু তাদের উদ্দেশ করে কটূক্তি করেন৷ যার প্রতিবাদ করে ওই কলেজ ছাত্ররা৷ এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই দু' পক্ষের মধ্যে বচসা শুরু হয়৷ উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি৷

আরও পড়ুন: তিনি তৃণমূলে যোগই দেননি, আইনজীবীর মাধ্যমে স্পিকারকে জানালেন মুকুল

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে চলে আসেন স্থানীয় কয়েকজন তৃণমূল নেতা৷ তৃণমূল নেতা,কর্মীদের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন তমলুকের সাংসদ৷ কাঁথি যুব তৃণমূল শহরের যুব তৃণমূল সভাপতি সুরজিৎ নায়ক সহ ছাত্র নেতাদের সঙ্গে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন সাংসদ৷ ব্যাপক বচসার পাশাপাশই ঠেলাঠেলি শুরু হয় বলেও অভিযোগ৷ সেই সময় সাংসদের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিআরপিএফ জওয়ানরা লাঠি চার্জ করেন বলেও অভিযোগ স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের৷ পাশ করছিল ওই সময়ই তৃণমূল ছাত্র পরিষদের কলেজের ছেলেরা যাচ্ছিল।

আরও পড়ুন: পাহাড়ে মাস্টারস্ট্রোক তৃণমূলের, ঘাসফুলে বিনয় তামাং! বিমল গুরুঙ্গকে নিয়ে শুরু জল্পনা

অভিযোগ, সাংসদ যানজটে পড়ে কলেজ ছাত্রদের উদ্দেশ্যে টোন্টিং করেন। উত্তেজিত তৃণমূল নেতা কর্মীদের সঙ্গে তমলুকের সাংসদ বচসায় জড়িয়ে পড়লেই গন্ডগোলের সুত্রপাত হয়। শুরু হয় ব্যাপক বচসা, চলে ঠেলাঠেলিও। ঠেলাঠেলি শুরু হতেই সিআরপিএফ জওয়ানরা লাঠিচার্জ করে বলে অভিযোগ। লাঠিচার্জে বেশ কয়েকজন দলীয় কর্মী ও কলেজ পড়ুয়া টিএমসিপি ছাত্র নেতা আহত হয়েছেন বলেও অভিযোগ তৃণমূলের।

দিব্যেন্দু অধিকারীর ঘনিষ্ঠ মহলের অবশ্য দাবি, তমলুকের সাংসদের গাড়ি ঘিরে ধরেই কটূক্তি শুরু করেন তৃণমূল নেতারা৷ তাঁকে হেনস্থার চেষ্টাও করা হয় বলে অভিযোগ৷ যদিও এই ঘটনা নিয়ে সংবাদমাধ্যমে কোনও মন্তব্য করতে চাননি তমলুকের সাংসদ৷

খাতায় কলমে এখনও দিব্যেন্দু অধিকারী তৃণমূলের সাংসদ হলেও দলের সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ ছিন্ন হয়েছে৷ দিব্যেন্দুর বাবা এবং কাঁথির সাংসদ শিশির অধিকারীর সঙ্গেও তৃণমূলের অলিখিত বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছে৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Dibyendu Adhikari, TMC

পরবর্তী খবর