মাধ্যমিক উচ্চমাধ্যমিক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত প্রসঙ্গে কি মন্তব্য করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ?

সোমবার বিকেলে বর্ধমানে বিজেপির জেলা কার্যালয় আসেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

সোমবার বিকেলে বর্ধমানে বিজেপির জেলা কার্যালয় আসেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

  • Share this:

#বর্ধমান: 'আগে সাজেশন না নিয়ে ডিসিশন নিয়ে নিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী।' পরীক্ষা বাতিল প্রসঙ্গে এই মন্তব্য করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। শীতলকুচি প্রসঙ্গে বললেন, 'সত্যি সামনে আসুক। দুষ্কৃতীরা বন্দুক ছিনিয়ে নিতে গিয়েছিল।এমন রিপোর্ট আগেই পেশ করা হয়েছিল। কেন্দ্রীয় বাহিনী ও নির্বাচন কমিশনকে হেয় প্রতিপন্ন করতেই ওই ঘটনার রাজনীতিকরণের চেষ্টা চলছে।'

সোমবার বিকেলে বর্ধমানে বিজেপির জেলা কার্যালয় আসেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেখানে সাংবাদিক বৈঠকের পর তিনি দলীয় নেতৃত্বের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক করেন।সেই বৈঠকে বিধানসভার দলীয় প্রার্থীরা ছাড়াও অঞ্চল সভাপতিরা উপস্থিত ছিলেন। সেই বৈঠকে ঘরছাড়াদের ফেরানোর ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

দলীয় কর্মীদের বিক্ষোভ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'দীর্ঘদিন কর্মীরা ঘরছাড়া।আর্থিক অনটন চলছে।সেই পরিস্থিতির মধ্যে তারা আমার কাছে বিষয়টি জানাতে আসছেন। ঘরছাড়াদের পার্টি অফিসে নিয়ে গিয়ে  রেখেছি। তাদের খাওয়ানোর ব্যবস্থা করছি। তাদের বাড়ি ফেরানোর চেষ্টা চলছে। তারই মধ্যে কিছু লোক গোলমাল পাকানোর চেষ্টা করছে। হিংসার বিরুদ্ধে লড়াই চলছে, চলবে।'

তিনি বলেন,'কেন্দ্রীয় দল পর্যালোচনা করে যারা প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্ত তারা যাতে ক্ষতিপূরণ পায় তা নিশ্চিত করুক। কেন্দ্রীয় সরকার ক্ষতিগ্রস্তদের অ্যাকাউন্টে সরাসরি টাকা দেওয়ার ব্যবস্থা করুক।; শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে ত্রিপল চুরির অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, ;ওই দল ছেড়ে যারা যাচ্ছে তাদের নানাভাবে অত্যাচার করা হচ্ছে। অপমান করা হচ্ছে। মুকুলদার সঙ্গেও এমন হয়েছিল। অনেক চক্রান্ত হয়েছে। তাঁর অনুগামীদের নানাভাবে কষ্ট দেওয়া হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীকে শুভেন্দু অধিকারী হারিয়ে দিয়েছে। তৃণমূল তা হজম করতে পারছে না। তাই চক্রান্ত করে তাঁর বদনাম করার চেষ্টা চলছে।; রাজ্যপালের বিরুদ্ধে স্বজনপোষণের অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, ;রাজ্যপাল তাঁর বক্তব্য বলেছেন। এরা রাজ্যপালকে নানাভাবে বদনাম করার চেষ্টা করেছে। পারেনি। তাই তার ব্যক্তিগত চরিত্র, পরিবার নিয়ে টানাটানি হচ্ছে। ওরা যে অভিযোগ তুলছে তার প্রমাণ দিক। এসব আসলে  তৃণমূলের কিছু নেতার প্রচারে আসার চেষ্টা।'

Published by:Pooja Basu
First published: