তৃণমূল ও বিজেপি পর এ বার জলঙ্গিতে পছন্দসই প্রার্থীর দাবিতে বিক্ষোভ সিপিএমে

তৃণমূল ও বিজেপি পর এ বার জলঙ্গিতে পছন্দসই প্রার্থীর দাবিতে বিক্ষোভ সিপিএমে

তাঁদের দাবি জলঙ্গি থেকে সিপিএম প্রার্থী হিসাবে ইউনিস সরকারকে প্রার্থী করতে হবে। অন্য কোনও প্রার্থীকে মেনে নেওয়া হবে না।

তাঁদের দাবি জলঙ্গি থেকে সিপিএম প্রার্থী হিসাবে ইউনিস সরকারকে প্রার্থী করতে হবে। অন্য কোনও প্রার্থীকে মেনে নেওয়া হবে না।

  • Share this:

Pranab Kumar Banerjee

#জলঙ্গি: তৃণমূল ও বিজেপির পর সিপিএমে বিক্ষোভ পছন্দসই প্রার্থীর দাবিতে। সিপিএম নেতা ইউনুস সরকারকে জলঙ্গি থেকে প্রার্থী করতে হবে। এই দাবীতে সিপিএমের কর্মী-সমর্থকরা জলঙ্গিতে একাধিক পার্টি অফিসে তালা মেরে দেন । জলঙ্গি পার্টি অফিস, জোরতলা পার্টি অফিস ও সাদিখাঁনদেয়ার পার্টি অফিসে তালা দেন সিপিএম সমর্থকরা । সিপিএমের জলঙ্গির এরিয়া কমিটি সম্পাদক আবু বাক্কারের বাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখান কর্মীরা। তাঁদের দাবি জলঙ্গি থেকে সিপিএম প্রার্থী হিসাবে ইউনিস সরকারকে প্রার্থী করতে হবে। অন্য কোনও প্রার্থীকে মেনে নেওয়া হবে না।

প্রসঙ্গত মূর্শিদাবাদে কংগ্রেস ও সিপিএমের জোটের মধ্যে জলঙ্গি আসনটি সিপিএম প্রার্থী দেবে। ইউনুস সরকার জলঙ্গি বিধানসভা থেকে তিন বারের বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছিলেন। ২০১৬ তে সিপিএমের হয় প্রতিন্দ্বিতা  করেন আব্দুর রাজ্জাক। বছর না ঘুরতে ঘুরতে তৃণমূলে যোগদান করেন আব্দুর রাজ্জাক। এরপর থেকে সংগঠনের হাল ধরেন ইউনুস  সরকার। সিপিএম সমর্থকদের দাবি প্রাক্তন বিধায়ক ইউনুস সরকারকে সিপিএমের প্রার্থী করতে হবে। মূর্শিদাবাদে ২২ টি আসনের মধ্যে কংগ্রেস ১৬ টি আসনে ও বামেরা ছ’টি আসনে প্রার্থী দেবে বলে ঠিক হয়। জলঙ্গি বরাবরেই সিপিএমের শক্ত ঘাঁটি। কয়েকদিন ধরেই সিপিএমের তরফ থেকে ইউনুস সরকার প্রার্থী হচ্ছে না বলে জানতে পারেন সিপিএমের কর্মী সমর্থকরা। এর পরেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন কর্মীরা। মঙ্গলবার সকাল থেকে জলঙ্গির বিভিন্ন সিপিএমের দলীয় অফিসে তালা মেরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। সিপিএমের এরিয়া কমিটির সম্পাদক আবু বাক্কারের বাড়িতেও সিপিএমের কর্মী-সমর্থকরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। আবু বাক্কার বলেন, আমাদের দলের কর্মী সমর্থকরা এসেছিলেন। তাঁদের বুঝিয়ে বলেছি। তাঁদের যে দাবি জেলা নেতৃত্বকে তা জানিয়েছি।

সিপিএম কর্মী মিন্টু ইসলাম বলেন, ইউনুস সরকারকে প্রার্থী না করা হলে জনসাধারণের সমর্থন মিলবে না। অন্য কোনও প্রার্থীই এখানে ভোটে জিতবে না। আমরা সেই কারণেই এই বিক্ষোভ দেখাচ্ছি। সিপিএম কর্মী ডালিম শেখ বলেন, ইউনুস সরকার ভোটে না দাঁড়ালে জলঙ্গি থেকে হাতছাড়া হবে সিপিএমের এই আসনটি। এলাকার সকল মানুষ ইউনুস সরকারকে পছন্দ করেন। সেই দাবিতেই আজকের এই বিক্ষোভ।

Published by:Simli Raha
First published:

লেটেস্ট খবর