corona virus btn
corona virus btn
Loading

ক্যানিং ট্রাফিকের তৎপরতায় পাচার হওয়ার মুখে উদ্ধার ৪ কিশোর, কিশোরী

ক্যানিং ট্রাফিকের তৎপরতায় পাচার হওয়ার মুখে উদ্ধার ৪ কিশোর, কিশোরী
photo: News18 Bangla
  • Share this:

#ক্যানিং: সারাটা দিন রোদ ঝড় বৃষ্টি উপেক্ষা ট্রাফিকের কাজ সামলানোর মাঝেই তৎপরতার সাথে এক প্রস্থ দৌড় ঝাঁপ করেই এক অসৎ যুবককে ধরলো ক্যানিং ট্রাফিক পুলিশের কর্তব্যরত তিনজন পুলিশ কর্মী।

ঘটনাটি ঘটেছে বৃহষ্পতিবার দুপুরে মাতলা ব্রীজ সংলগ্ন এলাকায়। ক্যানিং ট্রাফিক পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে সুনিল মন্ডল নামে এক যুবক অসৎ উদ্দেশ্য নিয়ে এদিন দুপুর নাগাদ চারজন নাবালক নাবালিকা কে জোর করেই মাতলা ব্রীজ সংলগ্ন জঙ্গলের দিকে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিল। শিশুদের মধ্যে দুজন নাবালিকা জোর চিৎকার শুরু করলে স্থানীয় পথচারীদের নজরে আসে ঘটনাটি। তারাই কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশকে বিষয়টি জানালে কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশের কনষ্টেবল টনি পাত্র, প্রসেনজিৎ ভঞ্জ, সৌমেন হালদার’রা ঘটনাস্থলে গেলেই দৌড়ে পালিয়ে যায় অভিযুক্ত যুবক সুনীল মন্ডল।

দীর্ঘ প্রায় দুকিলোমিটার পথ দৌড়ঝাঁপ করে অবশেষ অভিযুক্ত যুবক কে ধরে ফেলেন ট্রাফিক পুলিশ কর্মীরা। তাঁরা অভিযুক্ত যুবক সহ দুই নাবালক ও দুই নাবালিকাকে ক্যানিং থানার পুলিশের হাতে তুলে দেন। পুলিশ সুত্রে জানাগেছে চারজন নাবালক নাবালিকার বাড়ী ঘুঁটিয়ারী শরীফের মাকালতলা এলাকায় অন্যদিকে অভিযুক্ত যুবক সুনীল মন্ডলের বাড়ী ক্যানিংয়ে মিঠাখালি এলাকায়। পাচার না অসৎ কাজ করার উদ্দেশ্য নিয়ে ঐ নাবালক নাবালিকাদের জোর করে নিয়ে যাচ্ছিল অভিযুক্ত যুবক,সে বিষয়ে সঠিক তথ্য পেতে ধৃত যুবককে জিঞ্জাসাবাদ শুরু করার পাশাপাশি ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ক্যানিং থানার পুলিশ।

অন্যদিকে, প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় মানুষজন কর্তব্যরত তিনজন ট্রাফিক পুলিশের এমন কাজের প্রশংসা করেন বলেন “পুলিশ সঠিক সময়ে পদক্ষেপ নিতে পার জন্য চার নাবালক নাবালিকা উদ্ধার সম্ভব হয়েছে,সময়ের হের ফের ঘটলে যে কোন বড় দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারতো। ক্যানিং ট্রাফিক গার্ডের কনষ্টেবল টনি পাত্র বলেন “ট্রাফিক পুলিশ হিসাবে কর্তব্য পালন করার চেষ্টা করেছি।”

First published: July 11, 2019, 9:30 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर