Home /News /south-24-parganas /
South 24 Parganas: সুন্দরবনে সম্প্রীতির উৎসব বরখান গাজীর পূজায় ভক্তদের ঢল

South 24 Parganas: সুন্দরবনে সম্প্রীতির উৎসব বরখান গাজীর পূজায় ভক্তদের ঢল

বরখান

বরখান গাজীর মূর্তি

জল জঙ্গলে মোড়া সুন্দরবন। যার নামের সাথে জড়িয়ে আছে বিভিন্ন লোকগাথা। আজও এই অঞ্চলের স্থানীয় বাসিন্দারা নিজেদের মত করে পালন করেন বিভিন্ন উপাচার।

  • Share this:

    দক্ষিণ ২৪ পরগনা: জল জঙ্গলে মোড়া সুন্দরবন। যার নামের সাথে জড়িয়ে আছে বিভিন্ন লোকগাথা। আজও এই অঞ্চলের স্থানীয় বাসিন্দারা নিজেদের মত করে পালন করেন বিভিন্ন উপাচার। পূজা দেন বিভিন্ন স্থানীয় দেবতাদের। আর এই পূজা উপলক্ষে একত্রিত হন হাজার হাজার স্থানীয় বাসিন্দা। হিন্দু মুসলিম নির্বিশেষে সবাই অংশগ্রহণ করেন এই পূজায়।সুন্দরবনের এমনই এক লৌকিক দেবতা হলেন বরখান গাজী। তাঁকে পূজা দেন হিন্দু মুসলিম উভয় সম্প্রদায়ের মানুষজন। লোককথা অনুযায়ী বর্তমান দক্ষিণ ২৪ পরগণার বেলে আদমপুর মতান্তরে বৈরাটনগর গ্রামে তাঁর জন্ম। নদী, জঙ্গল অধ‍্যুষিত এই অঞ্চলের বাঘ, কুমীর, সাপ এবং অন‍্যান‍্য প্রাণীকে যখন ইচ্ছা বশ করতে পারতেন তিনি। কুমীরের দেবতা কালুগাজীর বন্ধু তিনি। তবে জীবদ্দশায় বাঘের রাজা দক্ষিণরায়ের সঙ্গে একাধিকবার যুদ্ধে জড়ান তিনি। গাজীবাবার অলৌকিক ক্ষমতা সম্পর্কে নানা প্রবাদ প্রচলিত আছে এলাকায়। জনশ্রুতি অনুযায়ী জল জঙ্গলের অধ‍্যুষিত এই এলাকায় বরখান গাজীর পূজা করলে বিপদের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যায়।

    বৃষ্টি না হলে খরা মরশুমে বরখান গাজীর পূজা করলে বৃষ্টি নামে এলাকায়। গবাদী পশু এবং মানুষের বিভিন্ন রোগব‍্যাধি সারাতে সুন্দরবনের বিভিন্ন এলাকার মানুষজন শরনাপন্ন হন তাঁর কাছে। বরখান গাজীকে জাগ্রত পীর মানা হয় এলাকায়। এই বিশ্বাসে তাঁর পূজা করেন স্থানীয়রা। জীবদ্দশায় অনেক যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন তিনি।

    আরও পড়ুনঃ কৃষক যুবকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে হঠাৎই ঢুকল কোটি কোটি টাকা! অঙ্ক শুনলে ভিড়মি খাবেন আপনিও!

    সেজন‍্য তাঁর সাথে আছে ঘোড়ার যোগ। আর ঠিক সেকারণেই বরখান গাজীর পূজা উপলক্ষে আয়োজন করা হয় ঘোড়াছুট। যা দেখতে হাজার হাজার মানষ ভিড় করেন মেলা প্রাঙ্গণে। দক্ষিণ ২৪ পরগণার মথুরাপুরেও এই পীর বরখান গাজী পূজিত হন উভয় সম্প্রদায়ের মানুষজনের দ্বারা।

    আরও পড়ুনঃ যাত্রী পরিষেবায় রেকর্ড কলকাতা বিমানবন্দরের

    এই উপলক্ষে সেখানেও আয়োজন করা হয় ঘোড়া ছুটের মেলা। এই মেলাও পরিচালনা করেন নুরুল হক দর্জি ও মনোরঞ্জন হালদার। সুন্দরবনের এই লৌকিক দেবতার পূজা আজও মিলিয়ে দেয় সকল সম্প্রদায়ের মানুষজনকে। হাজার হাজার মানুষের বিশ্বাস ও সম্প্রীতির মেলবন্ধনে দৃঢ় হয় ঐক‍্য, গড়ে ওঠে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন‍্য নজির।

    Nawab Mallick
    First published:

    Tags: South 24 Parganas, Sundarbans

    পরবর্তী খবর