Home /News /purba-bardhaman /
Purba Bardhaman: মাইকিং প্রশাসনের, থানায় জমা করতে হবে ভাড়াটিয়াদের তথ্য

Purba Bardhaman: মাইকিং প্রশাসনের, থানায় জমা করতে হবে ভাড়াটিয়াদের তথ্য

title=

জঙ্গি বিস্ফোরণ থেকে জাল নোট ও ডলার তৈরির কারখানা বর্ধমানের খাগড়াগড় ও সংলগ্ন এলাকা যেন নাশকতা ও প্রতারণা চক্রের আখড়া।

  • Share this:

    পূর্ব বর্ধমান: জঙ্গি বিস্ফোরণ থেকে জাল নোট ও ডলার তৈরির কারখানা বর্ধমানের খাগড়াগড় ও সংলগ্ন এলাকা যেন নাশকতা ও প্রতারণা চক্রের আখড়া। একের পর চাঞ্চল্যকর ঘটনায় ক্ষুব্ধ এলাকার বসবাসকারীরা। কখনও কাপড়ের ব্যবসায়ী আবার কখনো মানবধিকার কর্মীর পরিচয়ের আড়ালে বাড়ি ভাড়া নিয়ে দুষ্কৃতীরা ঘাঁটি গেড়েছে বর্ধমানের এই খাগড়াগড়ে। জামাতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি) নামে জঙ্গি সংগঠনের ডেরার হদিস পাওয়ার পর জেলা পুলিশ প্রশাসন থেকে নির্দেশ জারি করা হয়েছিল বাড়িওয়ালাদের ভাড়াটিয়া সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য বর্ধমান থানায় জমা করতে হবে। অভিযোগ, কেউ শোনেনি সেই নির্দেশ। পুলিশও এব্যাপারে লাগাতার নজরদারি করেনি। আর তারই ফলস্বরূপ ফের এই এলাকা খবরের শিরোনামে। বিদেশি নকল কারেন্সি ও দেশি টাকা ছাপার কারখানার হদিস মিললো এই খাগড়াগড়ে। রাজ্য পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স ও বর্ধমান থানার পুলিশের তৎপরতায় গ্রেপ্তার হয় তিনজন। ধৃতদের হেফাজতে নিয়ে এই নকল নোট কারবারের পুরো চক্র কে খুঁজে বের করতে জোরদার তদন্ত চালাচ্ছে পুলিশ। এবার আর কোনো গাফিলতি চাইছে না প্রশাসন। খাগড়াগড় ও সংলগ্ন এলাকার বাড়ির মালিকদের উদ্দেশ্যে পুলিশের পক্ষ থেকে মাইকিং করে জানানো হচ্ছে, বাড়ির মালিকদের ভাড়াটিয়ার সম্পূর্ণ তথ্য থানায় জমা করতে হবে।

    বর্ধমান থানায় ভাড়াটিয়া ও বাড়ির মালিকদের তথ্য সম্পর্কিত ফর্ম পাওয়া যাচ্ছে। অবিলম্বে সেই ফর্ম ফিলাপ করে থানা ও পৌরসভায় জমা করতে বলা হচ্ছে এই প্রচারের মাধ্যমে। যদি সাতদিনের মধ্যে কেউ এই তথ্য জমা না দেয়, সেক্ষেত্রে বাড়ির মালিকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবে পুলিশ।

    আরও পড়ুনঃ  অনলাইনে পরীক্ষার দাবিতে ফের বিক্ষোভ বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ে

    গোটা এলাকায় বর্ধমান থানার পক্ষ থেকে টোটো করে এই নির্দেশিকা মাইকিং করা হচ্ছে। পুলিশের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছে খাগড়াগড়ের স্থানীয় বাসিন্দারা। তাদের মতে ভাড়াটিয়াদের সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য পুলিশের কাছে থাকলে এলাকায় পুলিশের তরফে বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব।

    আরও পড়ুনঃ খোসবাগান হাসপাতাল রোডে পার্কিং, বাড়ছে দুর্ভোগ

    জেলার পুলিশ সুপার কামনাশিস সেন বলেন, প্রশাসন তথ্য চাইছে বারেবারেই। কিন্তু এবারে কেউ তথ্য না দিলে আইন মেনেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কি আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে সেটা যারা ভাড়া দিয়েছেন তখন তারা জানতে পারবেন।

    Malobika Biswas
    First published:

    Tags: Purba bardhaman

    পরবর্তী খবর