• Home
  • »
  • News
  • »
  • off-beat
  • »
  • Viral Video: বিয়ে হতে না হতেই স্বামীর সঙ্গে যা শুরু করলেন নববধূ...ভিডিও তুমুল ভাইরাল

Viral Video: বিয়ে হতে না হতেই স্বামীর সঙ্গে যা শুরু করলেন নববধূ...ভিডিও তুমুল ভাইরাল

বিয়ের ভাইরাল ভিডিও

বিয়ের ভাইরাল ভিডিও

বিয়ের পর নব দম্পতির সেই রীতি পালনের ভিডিও এখন সুপার ভাইরাল (Viral Video)৷

  • Share this:

    #জম্মু ও কাশ্মীর: বিয়ে (Wedding) মানেই যেন বাড়তি উচ্ছ্বাস৷ বিয়ে ঘিরে নারী-পুরুষ সকলেই অনেক স্বপ্ন দেখেন৷ তাই তো সাধারণত বিয়েতে জাঁকজমকের শেষ থাকে না৷ কিছুটা সাধ্যের বাইরে গিয়েও বিয়ের অনুষ্ঠানে খরচ করে দুই পরিবার৷ তবে এসেবর মধ্যে সুখী দাম্পত্যের (marriage video) কামনা থাকে সকলের মনে৷ অর্থাৎ বিয়ের পর যেন স্বামী-স্ত্রী থাকেন সুখে৷ তাদের সংসার ভরে ওঠে ভালবাসার অটুট বন্ধনে৷ এর জন্যই এক বিশেষ রীতি পালন হয় কাশ্মীরে৷ আর বিয়ের পর নব দম্পতির সেই রীতি পালনের ভিডিও এখন সুপার ভাইরাল (Viral Video)৷

    আরও পড়ুন Snake Viral Video: 'আদরের' সাপ-কে স্নান করিয়ে, খাইয়ে ভাইরাল যুবক! রইল ভিডিও

    কাশ্মীর উপত্যকায় বিয়ের অনুষ্ঠান৷ উপস্থিত পাত্র-পাত্রীর আত্মীয় বন্ধুরা৷ তার মধ্যেই দেখা গেল নববধূকে আটা মেখে রুটি বেলতে! আর সেই রুটি তাওয়ায় পড়তে তাতে হাত লাগালেন বর৷ তিনি এদিক ওদিক করে রুটি শেকলেন৷ অর্থাৎ ভিডিওতে (Wedding viral video) দেখা গেল নতুন সংসার পাততে চলা স্বামী-স্ত্রী একসঙ্গে রুটি বানাচ্ছেন৷ বিয়ের পর এই রীতি পালন হয় কাশ্মীরে৷ এর অর্থ হল, স্বামী ও স্ত্রী সংসারের কাজ ভাগ করা চলা৷ তাই তো স্ত্রী মাখলেন আটা, বেললেন রুটি যা স্বামী শেকে তৈরি করলেন৷

    নবদম্পতির আশপাশ ঘিরে বসেছিলেন তাদের আত্মীয়রা৷ এই কাজে তারও দিলেন উৎসাহ৷ এই ভিডিওটি ট্যুইটারে পোস্ট করলেন সোফিয়া জারিন৷ সঙ্গে লিখলেন গ্রামের অতি পুরনো তবে খুবই ভাল নিয়ম পালন (wedding ritual) করা হল৷ এইভাবেই একে অপরের সহযোগিতা ও ভালবাসায় পূর্ণ হবে বিবাহিত জীবন৷

    তবে শুধুমাত্র এই ভিডিওটিই ভাইরাল (Viral) হয়নি৷ এরসঙ্গে দেখা গিয়েছে আরও একটি ভাইরাল ভিডিও৷ সেখানে বিয়ের পিড়িতে বসতে চলা বৌমা বলছেন যে তিনি নাকি বিয়ে উপলক্ষ্যে রোগা হচ্ছেন৷ তাই বন্ধ করে দিয়েছেন খাওয়া-দাওয়া৷ তবে বিয়ের পর তিনি আর এমন থাকবেন না৷ প্রাণ-মন ভরে খাবেন৷ আর তার স্বামীর সেই অনুমতি দিতে হবে৷ দেখুন মজার এই ভিডিওটি৷

    Published by:Pooja Basu
    First published: