Home /News /off-beat /
সম্পূর্ণ নতুন দেশ প্রতিষ্ঠা! দুই যুবকের উদ্যোগ মেনে নতুন দেশের মালিক হতে পারেন আপনিও

সম্পূর্ণ নতুন দেশ প্রতিষ্ঠা! দুই যুবকের উদ্যোগ মেনে নতুন দেশের মালিক হতে পারেন আপনিও

Two Men Bought Caribbean Island to Start Their Own Country, Here's How You Can Do it (Photo: Instagram)

Two Men Bought Caribbean Island to Start Their Own Country, Here's How You Can Do it (Photo: Instagram)

Two Men Bought Caribbean Island: উচ্চবিত্ত বা বিদেশে বসবাসকারী মানুষরা এমন সুযোগ দু’একবার পেলেও আমাদের দেশে এমনটা প্রায় ভাবাই যায় না।

  • Share this:

    নিজেদের পছন্দের একটা ছোট্ট দ্বীপ থাকবে বা এমন কোনও একটি দ্বীপে আমরা প্রায়ই বেড়াতে যাব- এ ধরনের ভাবনা আমাদের মতো মধ্যবিত্তের কাছে কল্পনাবিলাস ছাড়া আর কিছুই নয়। উচ্চবিত্ত বা বিদেশে বসবাসকারী মানুষরা এমন সুযোগ দু’একবার পেলেও আমাদের দেশে এমনটা প্রায় ভাবাই যায় না (Two Men Bought Caribbean Island)।

    তবে সম্প্রতি দুই ব্যক্তি সারা বিশ্বকে দেখিয়ে দিয়েছেন যে, উপযুক্ত পরিকল্পনা করতে এবং সাহসী সিদ্ধান্ত নিতে জানলে স্বপ্নকেও বাস্তবে রূপান্তরিত করা সম্ভব।

    আরও পড়ুন-'সত্যিকারের প্রেম' খুঁজতে ৫০ বছর লেগে গেল এই কোটিপতির! অবশেষে চতুর্থবার বিয়ে করতে চলেছেন

    গ্যারেথ জনসন (Gareth Johnson) এবং মার্শাল মায়ার (Marshall Mayer) এমনই দুই ব্যক্তি যাঁরা এই স্বপ্নকে সত্যি করেছেন। এঁরা দু’জনেই ক্রাউডফান্ডিংয়ের মাধ্যমে ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে একটি সম্পূর্ণ দ্বীপ কিনে নিয়েছেন এবং চেষ্টা করছেন যাতে নিজেদের পরিকল্পনা মাফিক সম্পূর্ণ নতুন একটি দেশ স্থাপন করা যায়।

    সিএনএন-এর খবর অনুসারে, এই জুটি লেটস বাই অ্যান আইল্যান্ডের সহ-প্রতিষ্ঠা। এই প্রকল্পটির সূত্রপাত ২০১৮ সালে।

    মাত্র এক বছরের ব্যবধানে ওই দুই ব্যক্তি তাঁদের আকাঙ্ক্ষা বাস্তবে রূপান্তরিত করে ২.৫ কোটি টাকা সংগ্রহ করেছেন এবং বেলিজের উপকূলে কফি কে (Coffee Caye) একটি জনবসতিহীন দ্বীপ ক্রয় সম্পন্ন করতে সক্ষম হয়েছেন।

    কিন্তু শুধুমাত্র বিলাসযাপনের জন্য নয়, গ্যারেথ এবং মার্শাল ক্রাউডসোর্স করা অর্থ নিয়ে রীতিমতো এক জাতি-নির্মাণ প্রকল্পের জন্য উদ্যত হয়ে উঠেছেন। দ্বীপের নিজস্ব একটি জাতীয় পতাকা, সঙ্গীত এবং একটি সরকার থাকবে এমন পরিকল্পনা নিয়েই তাঁরা মাঠে নেমেছেন।

    জনসন সিএনএনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন ‘‘কে তাঁর নিজের দেশ বানানোর স্বপ্ন দেখেন না? বিশেষ করে ট্রাম্প-পরবর্তী, ব্রেক্সিট-পরবর্তী কোভিড বিশ্বে এমনটা হওয়াই তো স্বাভাবিক।’’

    আরও যোগ করে জনসন বলেছেন, “সেনাবাহিনী এবং নৌবাহিনী ব্যতীত আমরা ইতিমধ্যেই প্রায় একটি দেশ তৈরি কাছাকাছি চলে এসেছি।"

    আরও পড়ুন-গরম ভাতের পাতে অল্প মাখন হলেই জমে যায় খাওয়াদাওয়া! কিন্তু রোজ খাওয়া কি নিরাপদ?

    জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই ১৩ জন সদস্যের একটি ট্যুরিস্ট দল দ্বীপটি পরিদর্শন করে গিয়েছেন।

    "এমন একটি দ্বীপে পা রাখার অনুভূতিই আলাদা যাতে আপনি নিজের অর্জিত অর্থ বিনিয়োগ করেছেন এবং নিজেই তার মালিক হতে যাচ্ছেন" নিজের অনুভূতির কথা ব্যক্ত করতে গিয়ে মায়ার বলেছেন।

    কফি কে নামে এই দ্বীপটি আয়তনে একেবারেই ছোট, এর এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে হেঁটে যেতে সময় লাগে মাত্র কয়েক মিনিট। তবে এই দ্বীপের তীরবর্তী সমুদ্র সৈকতের অত্যাশ্চর্য দৃশ্য তাক লাগিয়ে দেওয়ার মতো।

    কোথা থেকে এল এভাবে দ্বীপ কেনার আইডিয়া? উত্তরে গ্যারেথ জানান, ১৫ বছর আগেই তিনি letsbuyanisland.com নামে ডোমেনটি কিনেছিলেন তখনই এভাবে ক্রাউডফান্ড করে দ্বীপ কেনার কথা মাথায় আসে।

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published:

    Tags: Caribbean Island

    পরবর্তী খবর