Home /News /off-beat /
Viral News: জঞ্জালের স্তূপে পড়ে থাকা কালো ব্যাগ খুলতেই বেরিয়ে এল বিশাল পাইথন! তার পর?

Viral News: জঞ্জালের স্তূপে পড়ে থাকা কালো ব্যাগ খুলতেই বেরিয়ে এল বিশাল পাইথন! তার পর?

Python In Dustbin: বার্মিজ পাইথনকে ময়ালের বিরল প্রজাতি হিসাবে গণ্য করা হয়। এই সাপটির আকারও ছিল বিশাল। মৃত সাপ ভরা ওই ব্যাগ তুলতেই কালঘাম ঝড়েছে অনেক সাফাই-কর্মীর ৷

  • Share this:

পৃথিবীতে অনেক ধরনের মানুষই বাস করেন। কিছু মানুষ পোষ্যঅন্তপ্রাণ হন, পোষ্যদের তাঁরা মানুষের মতোই ভালোবাসেন, দেখাশোনা করেন। আবার কিছু অতি নিকৃষ্ট মানুষও এই পৃথিবীরই এক অংশ। তাঁরা তাঁদের অর্থের অপচয় করতে দ্বিধা বোধ করেন না, সাধারণ মানুষকে তাঁরা নিচু চোখে দেখেন, পোষ্যদের কথা ছেড়েই দেওয়া যাক। জানা গিয়েছে, এমনই এক ব্যক্তি তাঁর দীর্ঘদিনের পোষ্য ময়ালটিকে মৃত্যুর পর রাস্তার পাশের ডাস্টবিনে ফেলে দেন। পরদিন যখন এক সুইপার সেখানে ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কার করছিলেন, তখন তিনি একটি কালো রঙের প্লাস্টিক দেখতে পান। খুলতেই ভিতর থেকে রীতিমতো বড়সড় মাপের হলুদ একটি ময়াল বেরিয়ে আসে (Python In Dustbin) ।

আরও পড়ুন-স্ন্যাকসে মুড়ি খাচ্ছেন? আদৌ তা স্বাস্থ্যকর তো?

রাস্তার সাফাই-কর্মীরা স্বাভাবিক ভাবেই এই ময়াল দেখে অবাক। ময়ালটি প্রায় ১০ ফুট লম্বা ছিল। তাকে একেবারে শহরের প্রাণকেন্দ্রে এক ডাস্টবিনে ফেলে দেওয়া হয়। এই ময়ালটি ছিল অ্যালবিনো বার্মিজ পাইথন। ওই ময়ালটিকে প্রথমে দেখতে পান এক সাফাইকর্মী। মনে করা হচ্ছে, এই ময়ালটি নিশ্চয়ই কারও পোষ্য ছিল, যাকে মৃত্যুর পর কবর দেওয়ার পরিবর্তে আবর্জনায় ফেলে দেওয়া হয়। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পর নর্থ ইস্ট লিংকনশায়ার কাউন্সিল মালিকের কাছে ময়ালটির মৃতদেহ সংগ্রহ করার আবেদন জানিয়েছে।

বিষয়টি সম্পর্কে স্ট্রিট ক্লিনজিং ম্যানেজার জন মুনসন বলেন, ডাস্টবিন থেকে ময়াল পাওয়া নিশ্চিত চমকপ্রদ ঘটনা। ওই সাফাইকর্মী প্রথমে প্লাস্টিক খুলে ভয়ে চিৎকার করে ওঠেন। তিনি স্বপ্নেও ভাবেননি যে প্লাস্টিকের মধ্যে কোনও ময়াল দেখতে পাবেন। প্রথমে তিনি ময়ালকে জীবিত মনে করলেও পরে দেখা যায় সে মারা গিয়েছে (Python In Dustbin)।

আরও পড়ুন-ক্রিকেটে আর থাকছে না ‘মানকাডিং’, কলঙ্ক ঘুচল ভারতীয় ক্রিকেট কিংবদন্তীর, বলছেন বিনু মানকড়ের ছেলে রাহুল

খুবই বিরল প্রজাতির সাপ

বার্মিজ পাইথনকে ময়ালের বিরল প্রজাতি হিসাবে গণ্য করা হয়। এই সাপটির আকারও ছিল বিশাল। মৃত সাপ ভরা ওই ব্যাগ তুলতেই কালঘাম ঝড়েছে অনেক সাফাই-কর্মীর (Python In Dustbin)। এই ১০ ফুটের সাপটির দেহ এখন সাফাইকর্মীদের হেফাজতেই রয়েছে, বর্তমানে এর মালিকের খোঁজ চলছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় যখন এর ছবি শেয়ার করা হয়, তখন দর্শকরা এর আকার ও রঙ দেখে অবাক হয়ে যান। অনেকেই এর মালিককে নিয়ে নানান রকম কথাবার্তাও বলেছে। মৃত্যুর পর পোষ্যকে আবর্জনার মধ্যে ফেলে দেওয়া কেউই মেনে নিতে পারেননি। তবে ওই এলাকায় এমন ঘটনা নতুন নয়। এর আগেও ২০২০ সালে এক ব্যক্তি তাঁর ৬ ফুটের পোষা একটি সাপকে একইভাবে আবর্জনার মধ্যে ফেলে দিয়েছিলেন বলে খবর মিলেছে।

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: Python

পরবর্তী খবর