• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • বিশ্ব পরিবেশ দিবসেই পার্থেনিয়াম গাছ তুলে পুড়িয়ে দেওয়া হল ! 

বিশ্ব পরিবেশ দিবসেই পার্থেনিয়াম গাছ তুলে পুড়িয়ে দেওয়া হল ! 

এলাকায় আজ রোপন করা হয় অন্য প্রজাতির গাছ। তার মধ্যে ছিল কৃষ্ণচূড়া, সেগুন গাছও

এলাকায় আজ রোপন করা হয় অন্য প্রজাতির গাছ। তার মধ্যে ছিল কৃষ্ণচূড়া, সেগুন গাছও

এলাকায় আজ রোপন করা হয় অন্য প্রজাতির গাছ। তার মধ্যে ছিল কৃষ্ণচূড়া, সেগুন গাছও

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: অন্যভাবে পালিত হল বিশ্ব পরিবেশ দিবস। এক অন্য ভাবনায়। পরিবেশ দিবসে বৃক্ষচ্ছেদন! হ্যাঁ, আজ যেখানে শহরজুড়ে গাছ লাগানোর হিড়িক। সেখানে শিলিগুড়ির বিধাননগরে দেখা গেল উলটো ছবি। বিধাননগরে ৩১ নং জাতীয় সড়ক ছেয়ে গেছে বিষাক্ত পার্থেনিয়াম গাছে। যা পরিবেশের পক্ষে সুখদায়ক নয়। এর থেকে নানা রোগও ছড়ায়। সেই বিষাক্ত পার্থেনিয়াম গাছ উপড়ে ফেলে দেওয়া হয়। উদ্যোক্তা বিধাননগর ওয়েলফেয়ার সোসাইটি। আজ তাদের স্লোগান ছিল "গ্রিণ বিধাননগর"। তাকে সামনে রেখেই পার্থেনিয়াম গাছ তুলে ফেলে সোসাইটির সদস্যরা।

তারপর সেই পার্থেনিয়াম গাছ পুড়িয়ে দেওয়া হয় জাতীয় সড়কেই। কেন এই উদ্যোগ? সংগঠনের কর্ণধার বাপন দাস জানান, পার্থেনিয়াম গাছ পরিবেশবান্ধব নয়। নানা রোগও ছড়ায়। তাই এই নয়া সিদ্ধান্ত। পরিবর্তে বৃক্ষ রোপনের কর্মসূচী নেওয়া হয়। এলাকায় আজ রোপন করা হয় অন্য প্রজাতির গাছ। তার মধ্যে ছিল কৃষ্ণচূড়া, সেগুন গাছও। সম্প্রতি আমফানে হাজার হাজার গাছে উপড়ে পড়েছে। পরিবেশকে বাঁচাতেই নতুন গাছ লাগানো হয়। বিধাননগরে কয়েকশো গাছ লাগানো হয়। শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের বিরোধী দলনেতা কাজল ঘোষ এই উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, এটা অভিনব উপায়। মুখ্যমন্ত্রীও সবুজায়নের বার্তা দিয়েছেন। ওয়েলফেয়ার সদস্যরা যে উপায়ে আজকের বিশেষ দিনটি পালন করলো, তা অভাবনীয়। এদিনের কর্মসূচীতে উপস্থিত ছিলেন বিধাননগর পুলিশ ফাঁড়ির ওসি মানস দাসও। সকলে মিলেই হাতে হাত লাগিয়ে আজ অন্যভাবে পরিবেশ দিবস পালন করেন।

আজ দিনভর শিলিগুড়িজুড়ে পালিত হয় বিশ্ব পরিবেশ দিবস। সর্বত্রই চারা গাছ রোপন করা হয়। সরকারী এবং বেসরকারী উদ্যোগে বৃষ্টি মাথায় নিয়েই চলে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচী। রাজ্যের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেবও একাধীক জায়গায় কর্মসূচীতে যোগ দেয়। শিলিগুড়ির বিভিন্ন থানাতেও বৃক্ষ রোপনের মধ্য দিয়ে পরিবেশ দিবস পালিত হয়। সর্বত্রই মানা হয় করোনা সতর্কতা। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই চলে কর্মসূচী। জন সমাগমও ছিল অন্যবারের তুলনায় কম।

Partha Pratim Sarkar

Published by:Ananya Chakraborty
First published: