Home /News /north-bengal /
Siliguri water scarcity : প্রতিশ্রুতিই সার, শিলিগুড়ির সংযোজিত ১৪ ওয়ার্ডে পানীয় জলের সমস্যা সেই তিমিরেই

Siliguri water scarcity : প্রতিশ্রুতিই সার, শিলিগুড়ির সংযোজিত ১৪ ওয়ার্ডে পানীয় জলের সমস্যা সেই তিমিরেই

লম্বা লাইন পড়ে যায় এক ফোঁটা জলের জন্যে

লম্বা লাইন পড়ে যায় এক ফোঁটা জলের জন্যে

Siliguri water scarcity: নির্বাচন আসে, যায়, ১৩ বছরেও বাস্তবায়িত হয়নি গজলডোবার জল প্রকল্প!

  • Share this:

শিলিগুড়ি : জীবন মানেই জল। আর সেই পানীয় জলেরই বড় সমস্যা শহর শিলিগুড়িতে! অভিযোগ, জলের হাহাকার লেগেই থাকে পুরসভার সংযোজিত ১৪টি ওয়ার্ডে। সমস্যাটা নতুন কিছু নয়। বহু পুরনো। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, প্রতিবারই ভোটের সময়ে প্রতিশ্রুতি আসে, কিন্তু জল আর আসে না! গরমকালে তৃষ্ণায় কাতর হয়ে ওঠে সেখানকার বাসিন্দারা। লম্বা লাইন পড়ে যায় এক ফোঁটা জলের জন্যে। কোথাও আবার সুতোর মতো গতিতে জল পড়ে (Siliguri water scarcity)।

সমস্যাটা অজানাও নয় রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে। ওই বঞ্চনা আর প্রতিশ্রুতিই শোনা যায়। আর হচ্ছে, হবে! ১৯৯৯ সালে শিলিগুড়ির জন্যে যে জলপ্রকল্প করা হয়েছিল তা ৩৩টি ওয়ার্ডের জন্যে। তখন ছিল পুরসভা। জনসংখ্যা ছিল ২ লাখের মতো। তারপর ১৪টি ওয়ার্ড নিয়ে তৈরি হয় পুরনিগম। জনসংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭ লাখের কাছাকাছি। কিন্তু অভিযোগ, পাল্লা দিয়ে বাড়েনি জলের পরিমাণ।

আরও পড়ুন : ফের নাজেহাল করবে বৃষ্টি! রাজ্যে হিমশীতল আবহাওয়া, ঝড়-জল কাঁপাবে সপ্তাহের শেষে...

বর্তমানে প্রতিদিন গড়ে প্রয়োজন ৭০ মিলিয়ন লিটার পানীয় জল। সেখানে জলাধারে জল থাকে ৫৫ মিলিয়ন লিটার। অর্থাৎ ১৫ মিলিয়ন লিটারের ঘাটতি। সেই ২০০৯ সাল থেকে শোনা যাচ্ছে গজলডোবা থেকে জল সরবরাহ করা হবে শিলিগুড়িতে। বড় প্রকল্পের কথাও ঘোষণা করে রাজ্য। কিন্তু আজও তা বাস্তবায়িত হয়নি। সেই প্রকল্পটি কেন্দ্রের ‘অমৃত প্রকল্পের’ আওতাভুক্তও করা হয়েছিল। রাজ্য প্রাথমিকভাবে অনুমতিও দিয়েছিল। পরবর্তীতে প্রকল্পটি অন্য একটি জেলা পায়। সেই বঞ্চনার কথাই এখন সিপিএম এবং বিজেপি নেতাদের মুখে মুখে ঘুরছে।

আরও পড়ুন : শিলিগুড়ি পুরসভা দখলে আত্মবিশ্বাসী সব পক্ষই, ২২ গজে সেরার শিরোপা পেতে জোরকদমে চলছে প্রচার

সিপিএম নেতা অশোক ভট্টাচার্যের দাবি, তাঁর আমলেই প্রকল্পটি নিয়ে উদ্যোগ নেওয়া হয়। এমনকি, তৎকালীন মন্ত্রী প্রয়াত সুব্রত মুখোপাধ্যায়ও সবুজ সংকেত দিয়েছিলেন। এই প্রকল্পটি দ্রুত বাস্তবায়িত করতে হবে। বিজেপি নেতা শঙ্কর ঘোষের দাবি, ২০২২-এই শিলিগুড়ির ঘরে ঘরে পানীয় জল পৌঁছে দেবে কেন্দ্র। এজন্যে রাজ্যকে ৭ হাজার কোটি টাকা দেবে কেন্দ্র। অন্যদিকে তৃণমূল নেতা গৌতম দেবের দাবি, গজলডোবা থেকে জল সরবরাহের প্রকল্পটি নিয়ে সেচ দপ্তরের পদস্থ কর্তাদের সঙ্গে কথাও হয়েছে। ৪৭০ কোটি টাকার প্রকল্প। তা চালু হলে মিটবে পানীয় জলের সংকট। দৈনিক ১৩৫ মিলিয়ন লিটার জল পাবে শিলিগুড়ি। যা চাহিদার তুলনায় অনেক বেশি। পুরবাসী বিশেষ করে সংযোজিত ১৪টি ওয়ার্ডের বাসিন্দারা এখন সেই আশাতেই প্রহর গুনছে।

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published:

Tags: Siliguri, Water Scarcity

পরবর্তী খবর