টিকা নেওয়ার লম্বা লাইন, বিতর্ক এড়াতে নয়া টোকেন প্রক্রিয়া চালু, স্বস্তি!

লেখা টোকেন দেওয়া হচ্ছিল মেডিকেলে। যা নিয়ে বিস্তর অভিযোগ উঠে আসছিল। অনেকেই পরে এসে আগে টিকা পেয়ে যাচ্ছিলেন। ক্ষোভ, বিক্ষোভও দেখা যায়।

লেখা টোকেন দেওয়া হচ্ছিল মেডিকেলে। যা নিয়ে বিস্তর অভিযোগ উঠে আসছিল। অনেকেই পরে এসে আগে টিকা পেয়ে যাচ্ছিলেন। ক্ষোভ, বিক্ষোভও দেখা যায়।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: কোভিড প্রতিরোধক টিকা নেওয়ার ব্যস্ততা শিলিগুড়িতেও! ৪৫ ঊর্ধ বয়সীদের টিকা নেওয়ার কার্যত ধুম পড়ে গিয়েছে। আপাতত উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজনো হাসপাতালের পাশাপাশি ব্লক এবং গ্রামীণ হাসপাতালে চলছে টিকাকরণ কর্মসূচী। কিন্তু যাবতীয় ভিড় উপচে পড়ছে মেডিকেলে। সকাল ১০টা থেকে টিকা দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হলেও লাইন লেগে যায় ভোর চারটে থেকে। কেননা সপ্তাহে ৩ দিন আবার মেডিক্যালে টিকা দেওয়া হয় না। লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে পড়েন বয়স্করা। লকডাউনের জেরে সমস্যা কাটিয়েই টিকা নিতে আসছেন মেডিক্যালে। বুধবার পর্যন্ত হাতে লেখা টোকেন দেওয়া হচ্ছিল মেডিকেলে। যা নিয়ে বিস্তর অভিযোগ উঠে আসছিল। অনেকেই পরে এসে আগে টিকা পেয়ে যাচ্ছিলেন। ক্ষোভ, বিক্ষোভও দেখা যায়। অভিযোগ আসবার পর টোকেনে নয়া প্রক্রিয়া বহস্পতিবার থেকে চালু করল মেডিকেল কর্তৃপক্ষ। প্লাস্টিকের নম্বরিং করা টোকেন চালু। আগে আসার ভিত্তিতে হাতে মিলছে টোকেন সেইমতো চলছে টিকাকরণ কর্মসূচী। এতে খুশী উপভোক্তারা।

মেডিক্যাল কলেজের ডিন সন্দীপন সেনগুপ্ত জানান, সকলেই যাতে টিকা পায়, সেদিকে নজর রাখা হচ্ছে। আর এই টিকাকরণ নিয়ে যাতে কোনও বিতর্ক তৈরী না হয়, সেদিকেও সমান নজর রয়েছে। এদিকে আজ কোভিড মোকাবিলায় উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে যান পুর প্রশাসক গৌতম দেব। স্বাস্থ্য আধিকারীকদের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠক শেষে তিনি বলেন, শিশুদের চিকিৎসার জন্যে পৃথক ১৪টি বেডের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। সন্দেহজনক করোনা রোগীদের জন্যে আরও ১৪টি বেড করা হচ্ছে। এই মূহূর্তে কোভিড ব্লকে ২১৪টি বেড রয়েছে। অক্সিজেনের ব্যবস্থার অনুমতি মিললে সংখ্যাটা আরও ৫৬ বাড়ানো যাবে। সেইসঙ্গে এম্বুলেন্সের সংখ্যাও বাড়ানো হচ্ছে।

অন্যদিকে পাহাড়েও লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ। তার মোকাবিলায় দার্জিলিংয়ে আলাদা আলাদাভাবে দু'জায়গায় ৯৮টি বেডের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেন্ট জোশেফ কলেজে ৫০ বেডের আইশোলেশন ওয়ার্ড চালু করা হল। থাকছে অক্সিজেনের ব্যবস্থাও। পাশাপাশি হিমালয়ান মাউন্টেরিং ইন্সটিটিউটে ৪৮ বেডের আইশোলেশন ওয়ার্ড চালু করা হয়েছে। চিকিৎসার সবরকম ব্যবস্থাই করেছে কর্তৃপক্ষ।

Published by:Pooja Basu
First published: