"বিজেপি ছেড়ে কেউ ফের তৃণমূলে যোগ দিলে কোনও প্রভাব দলে পড়বে না," সায়ন্তন বসু

শনিবার শিলিগুড়ির বাঘাযতীন কলোনীতে মোদি সরকারের সপ্তম বর্ষ পূর্তির অঙ্গ হিসেবে সেবা সপ্তাহের অনুষ্ঠানে যোগ দেন সায়ন্তন বসু৷

শনিবার শিলিগুড়ির বাঘাযতীন কলোনীতে মোদি সরকারের সপ্তম বর্ষ পূর্তির অঙ্গ হিসেবে সেবা সপ্তাহের অনুষ্ঠানে যোগ দেন সায়ন্তন বসু৷

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: উত্তরবঙ্গের জেলাগুলোতে কোভিডে আক্রান্তদের থেকে বেশী ত্রাণ পৌঁছতে হচ্ছে ঘরছাড়া বিজেপি কর্মীদের জন্যে। শুধু কোচবিহার জেলাতেই প্রায় ১৫ হাজার দলীয় কর্মী ঘরছাড়া। তৃণমূলীদের আক্রমণের জেরে শনিবার তারা গৃহহীন। ঘরে ফিরতে চাইলেও উপায় নেই। এভাবেই গোটা রাজ্যে প্রায় ১ লাখ মানুষ আজ ঘরছাড়া। প্রচুর সংখ্যায় দলীয় কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত বেশ কয়েকটি জেলাতেও। বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করতে পারছেন না ঘরছাড়া দলীয় কর্মীরা। কারণ থানা ঘিরে রেখেছে তৃণমূল কর্মীরা। এফ আই আর করতেও ভয় পাচ্ছে।

শনিবার শিলিগুড়ির বাঘাযতীন কলোনীতে মোদি সরকারের সপ্তম বর্ষ পূর্তির অঙ্গ হিসেবে সেবা সপ্তাহের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এই অভিযোগ করেন বিজেপির রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু। তিনি বলেন, "গতকাল হাইকোর্টের নির্দেশ মতো নতুন ইমেলে দলছাড়া, আক্রান্তদের হয়ে অভিযোগ পাঠাবে বিজেপিই। মুখ্যমন্ত্রী যদি মনে করেন, ৪৮ শতাংশ ভোট পেয়ে মাথা কিনে নিয়েছেন, ভুল করছেন"। মন্তব্য তাঁর।

পঞ্চায়েতের পর লোকসভা নির্বাচন এবং শেষে বিধানসভা ভোটেও রাজ্যে ভাল ফল করেছে বিজেপি। সেইসঙ্গে ফের বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে ফিরে যাওয়ার একটা হিড়িক পড়েছে রাজ্যে। একের পর এক আবেদন জমা পড়ছে ঘাসফুল শিবিরে। সায়ন্তন বসুর দাবি, "ভোটের আগে খুব বেশি সংখ্যায় নেতা, কর্মীরা তৃণমূল থেকে বিজেপিতে আসেনি। ২-৩ জন দল ছাড়তে পারে। তবে শুভ্রাংশু দল ছাড়ার বিষয়ে যদি কোনও মন্তব্য করতে চাননি তিনি৷

এদিকে সেবা সপ্তাহের অঙ্গ হিসেবে রাজ্যে ইতিমধ্যেই ২০ লাখ মানুষ ত্রাণ পেয়েছেন। খাদ্য সামগ্রী, স্যানিটাইজার, মাস্ক, অক্সিজেন, কনসেনট্রেটর, অক্সিমিটার দেওয়া হচ্ছে। আগামী ১৫ জুনের মধ্যে রাজ্যে ১ কোটি মানুষের কাছে এই ত্রাণ পৌঁছে যাবে। শনিবার শিলিগুড়িতে জানান বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু।

Published by:Pooja Basu
First published: