Earthquake in North Bengal: হঠাৎ কেঁপে উঠল উত্তরবঙ্গ! অসমেও ঝাঁকুনি...

। এই কম্পনের জেরে কোনও বড় ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলেই খবর।

। এই কম্পনের জেরে কোনও বড় ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলেই খবর।

  • Share this:

    #শিলিগুড়ি: মৃদু ভূমিকম্প অনুভূত হল উত্তরবঙ্গ জুড়ে (Earthquake in North Bengal)। আজ সকাল ৮.৪৭ নাগাদ অচমকাই কম্পন অনুভূত হয় শিলিগুড়ি, আলিপুরদুয়ারে। ভূমিকম্প  টের পাওয়া যায় কোচবিহারে, দক্ষিণ দিনাজপুরেও। আতঙ্কে মানুষজন বাড়ির বাইরে বেরিয়ে আসেন মৃদু ভূকম্পন টের পাওয়া গিয়েছে জলপাইগুড়-সহ গোটা ডুয়ার্সেই। ভূমিকম্পের তীব্রতা ততটা বেশি না হলেও সাত সকালে ঝাঁকুনিতে ভয় পাওয়া মানুষ মানুষজন বাড়িঘর ছেড়ে রাস্তায় বেরিয়ে পড়েন। অনেকে মাঝ রাস্তায় ভিড় জমান। জানা গিয়েছে ভূমিকম্পের উৎসস্থল মেঘালয়ের তুরার ৭১ কিলোমিটার উত্তরে ভূপৃষ্ঠ থেকে ১৪ কিলোমিটার গভীরে। এই কম্পনের জেরে কোনও বড় ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলেই খবর।

    প্রসঙ্গত প্রায় একই সময়ে অসমের গোয়ালপাড়াতেও ভূমিকম্প হয়েছে। কম্পনের তীব্রতা ছিল রিখটার স্কেলে ৫.২। ভূবিজ্ঞানীদের মত, এই কম্পনের কারণেই উত্তরেও মৃদু ভূকম্পন অনুভূত হয়েছে।

    ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী শিলিগুড়ির বাসিন্দা অভিষেক পোদ্দার বলেন, "হঠাৎই ঘুম ভেঙে দেখি ঘরের জানলা কাঁপছে।  দ্রুত ঘর ছেড়ে বাইরে বেরিয়ে আসি। বাইরে বেরিয়ে দেখি চারপাশের বহু মানুষই রাস্তায়। হুড়োহুড়িতে আমাদের এক প্রতিবেশী চোট পেয়েছে। কিন্তু ভূমিকম্পে সরাসরি কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।"

    গত ২৮ এপ্রিলও তীব্র ঝাঁকুনি অনুভূত হয় উত্তরবঙ্গে। কেঁপে ওঠে আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, দার্জিলিং, কালিম্পং-সহ উত্তরের বিস্তীর্ণ অঞ্চল। সে বার কম্পনের উৎস ছিল অসমের গুয়াহাটির কাথে শোনিতপুর অঞ্চলে ভূপৃষ্ঠের ২১.৪ কিলমোমিটার নীচে।

    Published by:Arka Deb
    First published: