Home /News /north-bengal /

Left and Congress Alliance: শিলিগুড়িতে বাম-কংগ্রেস আসন সমঝোতায় জট, বৈঠক নিষ্ফলা, বুধবার ফের বৈঠক 

Left and Congress Alliance: শিলিগুড়িতে বাম-কংগ্রেস আসন সমঝোতায় জট, বৈঠক নিষ্ফলা, বুধবার ফের বৈঠক 

Left and Congress Alliance: কংগ্রেস চায় অন্তত ১৫টি আসন, বামেরা ছেড়েছে ১২টি, এতেই জট! 

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: বাম ও কংগ্রেস সমঝোতায় (Left and Congress Alliance) জট! ক্ষুব্ধ জেলা কংগ্রেসের (Congress) একাংশ।বামেরা মঙ্গলবার প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করতেই কিছুটা রুষ্ট হন কংগ্রেস নেতৃত্ব। কেননা দুই শিবিরের মধ্যে যে আলোচনা হয়েছিল, তাতে স্থির হয়েছিল কংগ্রেসকে অন্তত ১৫টি আসন ছাড়বে বামেরা (left)। কিন্তু আজ প্রথম দফায় ৪৭টির মধ্যে বামেরা ৩৫টি আসনের প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেছে। এতেই বেড়েছে দূরত্ব। জট কাটাতে রাতেই সিপিএম  (CPIM) নেতৃত্বর সঙ্গে বৈঠকে বসেন কংগ্রেস নেতৃত্ব। বৈঠকে ছিলেন জেলা বামফ্রন্টের আহ্বায়ক জীবেশ সরকার, সিপিএমের জেলা সম্পাদক সমন পাঠক, জেলা কংগ্রেস (সমতল) সভাপতি শঙ্কর মালাকার, প্রাক্তন কংগ্রেসী মেয়র গঙ্গোত্রী দত্ত। প্রায় ঘন্টাখানেক চলে বৈঠক।

মঙ্গলবারের বৈঠক থেকে কোনো সমাধান সূত্র বেরোয়নি। কার্যত নিস্ফলা বৈঠক। কাল আবার দুই শিবির আলোচনায় বসবে বলে জানা গিয়েছে। তৃণমূল (TMC) এবং বিজেপিকে (BJP) হারাতে মরিয়া বাম ও কংগ্রেস  (Left and Congress Alliance) । গত রবিবার দুই দল বৈঠকে বসে ঠিক করে ২০১৫-তে জেতা আসন থেকে লড়বে সংশ্লিষ্ট দল। আর দ্বিতীয়৷ যারা হয়েছিল তারাও লড়বে ওই ওয়ার্ড থেকেই।

আরও পড়ুন - Panchang 29 December: পঞ্জিকা ২৯ ডিসেম্বর: দেখে নিন নক্ষত্রযোগ, শুভ মুহূর্ত, রাহুকাল এবং দিনের অন্য লগ্ন!

কিন্তু মঙ্গলবার সকালে প্রথমে সিপিএমের জেলা নেতৃত্ব এবং পরবর্তিতে জেলা বামফ্রন্টের বৈঠক হয়। বৈঠকের পর বাম নেতৃত্ব ঘোষণা করে ৩৫ আসনের বামেদের প্রার্থী তালিকা। জেলা বামফ্রন্টের আহবায়ক জীবেশ সরকার বলেন, ওরা সকালে আসেনি। আমাদের দলীয় এবং ফ্রন্টস্তরে বৈঠক করেই প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করা হয়েছে। তবে যা সমস্যা রয়েছে, তা দ্রুত মিটিয়ে ফেলা হবে। জেলা কংগ্রেস সভাপতি শঙ্কর মালাকার বলেন, বৈঠক ভালোই হয়েছে। কিছু জট রয়েছে। তা বুধবার বৈঠকে বসে চূড়ান্ত করা হবে। আসন রফার ক্ষেত্রে সমস্যা তৈরী হবে না।

আরও পড়ুন- Horoscope Today: রাশিফল ২৯ ডিসেম্বর; দেখে নিন কেমন যাবে আজকের দিন!

প্রসঙ্গত ২০০৯-এর পুরভোটে তৃণমূলকে (TMC) ঠেকাতে কংগ্রেসকে বাইরে থেকে সমর্থন জানিয়েছিল বামেরা। ২০১৫-তে একইভাবে বামেদের বোর্ডকে বাইরে থেকে সমর্থন জানিয়েছিল কংগ্রেস। সেই থেকেই শিলিগুড়িতে দুই দলের মিল রয়েছে। এবারে তৃণমূল এবং বিজেপিকে ঠেকাতে জোট নয়, আসন রফা করে পুরবোর্ড জিততে মরিয়া দুই শিবির।

Partha Pratim Sarkar

Published by:Debalina Datta
First published:

Tags: BJP, Congress, Left, TMC

পরবর্তী খবর