Home /News /north-bengal /

Mamata Banerjee on Civic Polls: দু' তিন মাসের মধ্যেই সব পুরসভায় ভোট, কর্ণজোড়ার বৈঠকে ফের দাবি মমতার

Mamata Banerjee on Civic Polls: দু' তিন মাসের মধ্যেই সব পুরসভায় ভোট, কর্ণজোড়ার বৈঠকে ফের দাবি মমতার

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

আগামী ১৯ ডিসেম্বর কলকাতা পুরসভার নির্বাচন৷ রাজ্যের বাকি পুরসভাগুলিতেও ধাপে ধাপে ভোট করিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে রাজ্য সরকার ও রাজ্য নির্বাচন কমিশন (Mamata Banerjee on Civic Polls)৷

  • Share this:

#রায়গঞ্জ: দু' থেকে তিন মাসের মধ্যেই মেয়াদ উত্তীর্ণ পুরসভার বকেয়া ভোট সেরে ফেলা হবে৷ এ দিন কর্ণজোড়ায় উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার প্রশাসনিক বৈঠকে এমনই দাবি করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee on Civic Polls)৷ পুর প্রশাসক হিসেবে যাঁরা রয়েছেন, তাঁদেরও ভাল করে কাজ করার পরামর্শ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷

পুরভোট নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলার শুনানি চলছে (Civic Polls)৷ সোমবারই রাজ্য নির্বাচন কমিশনের তরফে হাইকোর্টকে জানানো হয়, মে মাসের মধ্যেই রাজ্যের সব পুরসভায় নির্বাচন শেষ করা হবে৷

আরও পড়ুন: 'পড়ুয়ারা অপেক্ষা করে আছে! স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের কাজে ঢিলেমি নয়', বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর

এ দিন উত্তর দিনাজপুরের কর্ণজোড়ায় দুই দিনাজপুর জেলার প্রশাসনিক বৈঠকে অংশ নেন মুখ্যমন্ত্রী (Mamata Banerjee)৷ সেখানেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, 'পুরভোট যা বাকি আছে আমরা দু' তিন মাসের মধ্যে করিয়ে ফেলব৷ তাড়াতাড়ি সব হয়ে যাবে৷ যাঁরা পুর প্রশাসক রয়েছেন, তাঁরা দায়িত্ব নিয়ে ভাল ভাবে কাজ করুন৷'

আগামী ১৯ ডিসেম্বর কলকাতা পুরসভার নির্বাচন৷ রাজ্যের বাকি পুরসভাগুলিতেও ধাপে ধাপে ভোট করিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে রাজ্য সরকার ও রাজ্য নির্বাচন কমিশন৷ যদিও একসঙ্গে সব পুরসভায় ভোটের দাবিতে সরব হয়েছে বিরোধীরা৷ এই দাবিতে আদালতের দ্বারস্থও হয়েছে বিজেপি৷

আরও পড়ুন: রাজ্যপালের জন্যই হাওড়ায় পুরভোটে দেরি, তোপ বিমানের! পাল্টা জবাব দিলেন ধনখড়

যদিও রাজ্য নির্বাচন কমিশনের তরফে আদালতে জানানো হয়, সব পুরসভায় ভোট করানোর মতো পরিকাঠামো তাদের হাতে নেই৷ সব পুরসভায় একসঙ্গে ভোট করানোর জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক ইভিএম-ও নেই কমিশনের হাতে৷ পাশাপাশি করোনা পরিস্থিতিতে একশোর বেশি পুরসভায় ভোট করানো ঝুঁকিপূর্ণ বলেও আদালতে জানিয়েছে কমিশন৷ এ ছাড়াও উল্লেখ করা হয়েছে মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার কথা৷ কমিশন আরও যুক্তি দিয়েছে, একসঙ্গে একশোর বেশি পুরসভায় ভোট হলে গোটা রাজ্যেই উন্নয়নমূলক কাজকর্ম আদর্শ আচরণবিধির কারণে বন্ধ হয়ে যাবে৷

প্রত্যাশিত ভাবেই মুখ্যমন্ত্রীর এ দিনের বক্তব্যকে কটাক্ষ করেছে বিজেপি৷ বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যকে 'তুঘলকি সিদ্ধান্ত' বলে কটাক্ষ করেছেন৷ রাজ্য নির্বাচন কমিশনকেও শাসক দলের 'শাখা সংগঠন' বলে বেঁধেন তিনি৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Mamata Banerjee

পরবর্তী খবর