এবার থেকে সরাসরি শিলিগুড়ি থেকে যাওয়া যাবে কাঠমান্ডু, সঙ্গে থাকবে চা ও স্ন্যাক্সও

এবার থেকে সরাসরি শিলিগুড়ি থেকে যাওয়া যাবে কাঠমান্ডু, সঙ্গে থাকবে চা ও স্ন্যাক্সও

পর্যটন প্রসারের লক্ষ্যে এই উদ্যোগ  ভীষণ কাজে আসবে বলে মনে করছেন পর্যটন ব্যবসায়ীরা।

  • Share this:
ABIR GHOSHAL #শিলিগুড়ি: শিলিগুড়ি থেকে কাঠমান্ডু এবার সরাসরি চালু হচ্ছে সরকারি বাস। উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থা চালু করছে এই পরিষেবা। পরিবহণ দফতর সূত্রে খবর, ফ্রেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহেই চালু হয়ে যাচ্ছে এই পরিষেবা। শিলিগুড়ি শহর, উত্তর পূর্ব ভারতের অন্যতম গেটওয়ে। যেখান থেকে সহজেই দার্জিলিং, ডুয়ার্স যাওয়া যায়। তেমনই চলে যাওয়া যায় নেপাল, ভুটান। ব্যবসায়িক কাজে অনেকেই শিলিগুড়ি থেকে নেপাল, ভুটানে যান। তবে পর্যটকরা বিমানে যান কাঠমান্ডুতে। অনেকেই আবার ছোট গাড়িতে নেপালে যান কাঁকড়ভিটা হয়ে। এবার এই পথেই সরকারি বাস পরিষেবা চালু হয়ে যাচ্ছে। ইতিমধ্যেই গত বছর একটি বেসরকারি পরিবহন সংস্থা শিলিগুড়ি থেকে কাঠমান্ডু বেসরকারি বাস পরিষেবা চালু করেছে। প্রতিটি বাসই শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। প্রত্যেক বাসে থাকছে ৪৪  টি করে আসন। বাসে মাথা পিছু ভাড়া মাত্র ১২৫০ টাকা। বাসের যাত্রীদের জন্য দেওয়া হয় চা, জল ও হালকা খাবার। মাত্র আট ঘন্টাতেই পৌছে যাওয়া যায়। এবার সরাসরি সরকার এই বাস চালু করতে চলেছে।
কারণ, যাত্রী সমীক্ষার রিপোর্ট বলছে এই পথে যাত্রী পেতে কোনও সমস্যা হবে না। তাই রাজ্য পরিবহন দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে, তারা ভলভো ও নন ভলভো বাস চালাবে। ভলভো বাসে ভাড়া নেওয়া হবে ১৩৯০ টাকা ও নন ভলভো বাসের ভাড়া নেওয়া হবে ১২৫০ টাকা করে। শিলিগুড়ি থেকে কাঁকরভিটা, বামনপোখরি, ভদ্রপুর হয়ে কাঠমান্ডু যাবে এই সরকারি বাস। আপাতত ৬ টি বাস চলবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। উত্তরের পর্যটন প্রসারের লক্ষ্যে এই উদ্যোগ  ভীষণ কাজে আসবে বলে মনে করছেন পর্যটন ব্যবসায়ীরা। হিমালয়ান হসপিটালিটি এবং ট্যুরিজম ডেভেলপমেন্ট নেটওয়ার্ক -এর সম্পাদক সম্রাট সান্যালের মতে, সরকারি বাস পরিষেবা চালু হয়ে যাওয়ার ফলে সিকিম, ভুটানের পাশাপাশি নেপালে যাওয়ার প্রবণতা অনেকটাই বেড়ে যাবে। তাতে লাভজনক হবে দু-পক্ষই। পরিবিহণ দফতরের এক আধিকারিকের কথায়, কলকাতা থেকে কাঠমান্ডু বিমানে ভাড়া প্রায় ১৫ হাজারের কাছাকাছি। এছাড়া ট্রেনে নেপাল গেলেও যে টাকা খরচ হবে তার চেয়ে বাস অনেক সস্তা হবে। বাগডোগরা থেকেও বিমানের ভাড়া, বাসের ভাড়ার চেয়ে প্রায় ৫ গুণ বেশি। তাই কম পয়সায় প্রকৃতি দেখতে দেখতে যেতে পারবেন যাত্রীরা। ইতিমধ্যেই সরকারি আধিকারিকদের এই বিষয়ে বৈঠক করে যাবতীয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়ে গিয়েছে। তবে শুধুমাত্র শিলিগুড়ি থেকে কাঠমান্ডু সরকারি বাস পরিষেবা চালু করা নয়। রাজ্য পরিবহন দফতর সাঁতরাগাছি বাসস্ট্যান্ড থেকে পাটনা অবধি সরকারি  বাস পরিষেবা চালু করতে চলেছে। সরকারি বাস চলবে কাঁথি থেকে পুরীর মধ্যেও। কলকাতায় যেমন নতুন ইলেকট্রিক বাস চালানো শুরু করেছে রাজ্য, তেমনই নয়া ভলভো বাস চলবে এই সমস্ত দুরপাল্লার রুটে।
First published: January 24, 2020, 9:01 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर