করোনা আতঙ্কের মধ্যেও মালদা সীমান্তে সক্রিয় পাচার চক্র

করোনা আতঙ্কের মধ্যেও মালদা সীমান্তে সক্রিয় পাচার চক্র
  • Share this:

Sebak DebSarma

#মালদহ: করোনা আতঙ্কের মধ্যেও থেমে নেই সীমান্তে পাচার। রবিবার ভোরে মালদহের কালিয়াচকের শ্মশানী সীমান্তে পাচারের ছক বানচাল করল বিএসএফ। সীমান্ত থেকে উদ্ধার করা হয় ৪৮০ বোতল নিষিদ্ধ কাফ সিরাপ। তবে কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি বিএসএফ। করোনা আতঙ্কের মধ্যে ভারত -বাংলাদেশ সীমান্তে পাচার নিয়ে উদ্বিগ্ন বিএসএফ ও সীমান্তপারের গ্রামবাসীরা। করোনা আতঙ্কে মহদীপুরে আন্তজার্তিক  সীমান্ত বানিজ্যকেন্দ্রে দুই দেশের নাগরিকদের যাতায়াতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সরকার। তবে, চলাচল করছে পণ্যবাহী ট্রাক। এই ট্রাকে পরিবহন কর্মীদের থার্মাল স্ক্রিনিং করার পরে পারাপারের অনুমতি দিচ্ছে প্রশাসন। মহদীপুর সীমান্তে যতটা সক্রিয় স্বাস্থ্যদফতর, চেকপোষ্টের কর্মীরা, ঠিক ততটাই যেন কাঁটাতার সীমান্তে সক্রিয় হয়ে উঠেছে চোরাকারবারিরা। জালনোট থেকে শুরু করে কাফ সিরাপ দেদার পাচার হচ্ছে সীমান্তে। গত ১৭ মার্চ কালিয়াচকের চরিঅনন্তপুর থেকে দুই লাখ টাকার জাল নোট উদ্ধার করে বিএসএফ।

এই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই গত ১৮ মার্চ কালিয়াচকেরই শ্মশানী সীমান্ত থেকে উদ্ধার হযেছিল পাঁচ শতাধিক বোতল কাফ সিরাপ। এদিন এই সীমান্তই ফের কফ সিরাপ উদ্ধার করেছেন বিএসএফের ২৪ নম্বর ব্যাটেলিয়ানের জওয়ানেরা। বিএসএফ জানিয়েছে, শ্মশানী সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়ার পাশে জনা দশেক অ‍জ্ঞাত পরিচয় যুবকদের দাঁড়িয়ে থাকতে দেখেন কর্তব্যরত জওয়ানেরা। ভিড় লক্ষ্য করে এগিয়ে যান তাঁরা। সেই সময় বিএসএফকে লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়া হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে পাম্প অ্যাকশন গান থেকে এক রাউণ্ড গুলি চালায় বিএসএফ। এরপরেই অন্ধকারের সুযোগ নিয়ে গা ঢাকা দেয় ওই কারবারিরা। ঘটনাস্থল থেকে বিএসএফ ৪৮০ বোতল উদ্ধার করেছে।

First published: March 22, 2020, 11:49 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर