Home /News /north-bengal /
Rhinoceros Census: জলদাপাড়ায় অভয়ারণ্যে কত গন্ডার রয়েছে? সুমারি শেষে চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট!

Rhinoceros Census: জলদাপাড়ায় অভয়ারণ্যে কত গন্ডার রয়েছে? সুমারি শেষে চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট!

Rhinoceros Census

Rhinoceros Census

জাতীয় উদ্যানটিতে ক্রমশ বাড়ছে গন্ডারের সংখ্যা (Rhinoceros Census)।

  • Share this:

    #আলিপুরদুয়ার: জলদাপাড়া অভয়ারণ্যে বেড়েছে গন্ডারের সংখ্যা। চলতি মাসে বনদফতরের গন্ডার সুমারির রিপোর্টে এই তথ্য উঠে আসে (Rhinoceros Census)। আলিপুরদুয়ার জেলার জলদাপাড়া অভয়ারণ্য বিখ্যাত একশৃঙ্গ গন্ডারের জন্য। জানা যায়, আসামের কাজিরাঙ্গা অভয়ারণ্যের পর ভারতের দ্বিতীয় সর্বাধিক গন্ডার এই অভয়ারণ্যেই পাওয়া যায়। (Rhinoceros Census)

    জাতীয় উদ্যানটিতে ক্রমশ বাড়ছে গন্ডারের সংখ্যা (Rhinoceros Census)। গত তিনবছরে এখানে বেড়েছে ৫৫ টি গন্ডার। এর ফলে বর্তমানে জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যানের একশৃঙ্গ গন্ডারের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৯২ টিতে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এই বছরের গন্ডার শুমারির রিপোর্ট প্রকাশ করে জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যান কর্তৃপক্ষ। সেই রিপোর্টেই জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যানের গন্ডারের সংখ্যাবৃদ্ধির তথ্য তুলে ধরা হয়। সর্ব শেষ শুমারির রিপোর্ট অনুযায়ী এই জলদাপাড়া অভয়ারণ্যে গন্ডারের সংখ্যাবৃদ্ধির খবরে রীতিমত খুশির হাওয়া বইছে বন দফতর সহ প্রকৃতি প্রেমীদের মনে।

    আরও পড়ুন: উত্তরবঙ্গে শেষ হল গন্ডার সুমারি, রিপোর্টে থাকবে চমক! দাবি বন দফতরের

    জানা যায়, ২০১৯ সালে জলদাপাড়ায় সর্বমোট ২৩৭ টি গন্ডার ছিল। এবারের রিপোর্টে দেখা গিয়েছে, পুরুষ গন্ডারের সংখ্যা ১০১ টি। কিন্তু স্ত্রী গন্ডারের সংখ্যা রয়েছে ১৩৪ টি। লিঙ্গ নির্ধারণ সম্ভব হয়নি এমন গন্ডারের সংখ্যা রয়েছে ৫৭ টি। ২০১৯ সালে শেষ গন্ডার সুমারি হয়েছিল জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যানে। সেবার পুরুষ গন্ডারের সংখ্যা ছিল ৯৮ টি। স্ত্রী গন্ডারের সংখ্যা পুরুষ গন্ডারের থেকে কম ছিল। স্ত্রী গন্ডারের সংখ্যা ছিল ৯৪ টি।

    আরও পড়ুন: ভাড়াটিয়ার বেশে এক পিশাচের হাতে যুবতীর নৃশংস পরিণতি! ডেবরায় যা ঘটল...

    উল্লেখ্য, শেষ তিন বছরে জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যানে ৪৬ টি গন্ডারের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৫ ও ২৬ মার্চ বন দফতরের কর্মী, গাইড, এন জি ও সহ মোট ৪৫০ জন কর্মীরা এই সুমারিতে অংশ নেয়। গন্ডারের সংখ্যাবৃদ্ধিতে জলদাপাড়া অভয়ারণ্য গন্ডারের জন্য নিরাপদ বাসস্থান বলে মনে করছে প্রকৃতি প্রেমীরা।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published:

    Tags: Bangla News, Rhinoceros

    পরবর্তী খবর