Home /News /north-24-parganas /
North 24 Parganas: নেই পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাত! জলের অভাবে মাথায় হাত জেলার পাট চাষীদের

North 24 Parganas: নেই পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাত! জলের অভাবে মাথায় হাত জেলার পাট চাষীদের

জলের [object Object]

অপর্যাপ্ত বৃষ্টির কারণে পাট জাক দেওয়ার জায়গার অভাবপড়েছে জেলার পাট চাষীদের। জলের অভাবে পাট জাক দিতে সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন চাষীরা।

  • Share this:

    #উত্তর ২৪ পরগনা : অপর্যাপ্ত বৃষ্টির কারণে পাট জাক দেওয়ার জায়গার অভাবপড়েছে জেলার পাট চাষীদের। জলের অভাবে পাট জাক দিতে সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন চাষীরা। পাটের রঙ কালো হয়ে যাচ্ছে। ফলে, মাথায় হাত পাট চাষীদের।এই অবস্থায় পাট শুধু জ্বালানির কাজেই ব্যবহৃত হবে। দক্ষিণবঙ্গে লাগাতার বেড়ে চলেছে তাপপ্রবাহ। যার জেরে নাজেহাল মানুষ। এমনকি ক্ষতিগ্রস্ত পাট চাষীরাও। বৃষ্টির অভাবে পাট জাক দেওয়ার সময় হলেও, তা করতে পারছেন না কৃষকরা। প্রচন্ড দাবদাহে খাল, বিল, পুকুর সমস্ত কিছুই শুকিয়ে গিয়েছে। ফলে পাট নষ্ট হচ্ছে। একসময় যেখানে চাষীরা পাট জাক দিতেন, এখন তা আর পারছেন না। অন্যদিকে, পর্যাপ্ত বৃষ্টি না হওয়ার কারণে ছোট ছোট ডোবা গুলিতেও জল শুকিয়ে গিয়েছে। পাটের রঙ কালচে হয়ে যাচ্ছে। বাজারে যার বাজার দর খুবই সামান্য। চাষীদের অভিযোগ, পাট চাষ করতে বিঘায় ছয় থেকে সাত হাজার টাকা খরচ হয়। এবছর পুঁজি খাটিয়ে পাট চাষ করলেও, জাক দেওয়া নিয়ে সমস্যায় পড়েছেন।

     

     

    সোনালী ফসল পাট পচাতে সাধারণত ২৮ দিনের মত সময় লাগে। বিশেষ পদ্ধতিতে এই পাট পচানো হয়ে থাকে জলে। পরিবেশের তারতম্যের কারণে তাপপ্রবাহ বাড়ায় জলসঙ্কটের সৃষ্টি হয়েছে জেলা সহ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে। বৃষ্টির দেখা সেভাবে না পাওয়ার পাট চাষিরা সমস্যার সম্মুখীন হয়ে পড়েছেন। এখন কি ভাবে এই সমস্যা থেকে মুক্তি লাভ করবেন তার দিশা খুঁজে পাচ্ছেন না চাষিরা।

    আরও পড়ুনঃ নৌকা থেকে ২২ কোটি টাকার সোনার বিস্কুট উদ্ধার! সাফল্য সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর

     

     

    জমির থেকে পাট তুলে নিয়ে আসলেও তা শুকিয়ে কালো হয়ে যাচ্ছে বলেই চাষীদের দাবি। একদিকে জাক দেওয়ার জায়গার অভাব অন্যদিকে পর্যাপ্ত বৃষ্টির অভাব। যার ফলেই পাটের রঙ এর পরিবর্তন হচ্ছে। কালো কিংবা বাদামি রঙের দেখা মিলছে পাট গুলিতে। পরিবেশ বিদরাও এখনই বৃষ্টি নিয়ে কোন আশার বাণী শোনাতে পারছেন না।

    আরও পড়ুনঃ জানেন কি! জল সংরক্ষণ না করলে নিউটাউনে মিলবে না বাড়ি তৈরির ছাড়পত্র

     

     

    অন্যদিকে একটু জলের খোঁজ মিললেই সেই জলাশয়ে একপ্রকার বাধ্য হয়ে জল কাদার মধ্যেই পাট পচানোর জন্য তা ডুবিয়ে রাখছেন পাট চাষীরা। পাটচাষীদের সংখ্যার অনুপাতে জায়গা কম থাকায় তাদের নিজেদের মধ্যেই তৈরি হচ্ছে সমস্যা। কবে এই পরিস্থিতির পরিবর্তন ঘটে এখন সেদিকেই তাকিয়ে জেলার পাট চাষিরা।

     

     

     

    Rudra Narayan Roy

    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Jute, North 24 Parganas

    পরবর্তী খবর