corona virus btn
corona virus btn
Loading

Rafale Deal: ১৪ মার্চ পর্যন্ত পিছোল রাফাল মামলার শুনানি

Rafale Deal: ১৪ মার্চ পর্যন্ত পিছোল রাফাল মামলার শুনানি
রাফাল যুদ্ধ বিমান

শীর্ষ আদালতে এ দিন টানা ৩ ঘণ্টা শুনানি হয়৷ শুনানি চলাকালীন অ্যাটর্নি জেনারেল জানান, রাফাল চুক্তির সব নথি চুরি হয়ে গিয়েছে৷ এরপরই বিরক্তি প্রকাশ করে শীর্ষ আদালত৷ সুপ্রিম কোর্ট এ দিন কেন্দ্রের রীতিমতো সমালোচনা করে বলে, 'আপনারা কি বোফর্স মামলার ক্ষেত্রেও বলবেন, নথি চুরি হয়ে গিয়েছে৷'

  • Share this:

 #নয়াদিল্লি: রাফাল নথি চুরি হয়ে গিয়েছে৷ সরকারের এই দাবিকে দিনভর তীব্র তিরস্কার করল সুপ্রিম কোর্ট৷ রাফাল মামলার শুনানি পিছিয়ে গেল ১৪ মার্চ পর্যন্ত৷ শীর্ষ আদালতে এ দিন টানা ৩ ঘণ্টা শুনানি হয়৷ শুনানি চলাকালীন অ্যাটর্নি জেনারেল জানান, রাফাল চুক্তির সব নথি চুরি হয়ে গিয়েছে৷ এরপরই বিরক্তি প্রকাশ করে শীর্ষ আদালত৷ সুপ্রিম কোর্ট এ দিন কেন্দ্রের রীতিমতো সমালোচনা করে বলে, 'আপনারা কি বোফর্স মামলার ক্ষেত্রেও বলবেন, নথি চুরি হয়ে গিয়েছে৷'

আরও পড়ুন: Rafale Deal: রাফাল নথি চুরি গিয়েছে, সুপ্রিম কোর্টে জানাল কেন্দ্র

রাফাল চুক্তিতে দুর্নীতি হয়েছে বলে যখন সরব বিরোধীরা, তখন সুপ্রিম কোর্টে কেন্দ্র জানাল, রাফাল চুক্তির সব নথি চুরি হয়ে গিয়েছে৷ তাই রাফাল নিয়ে সুপ্রিম কোর্টকে পুনর্বিবেচনার আর্জি খারিজের আবেদন জানালেন অ্যাটর্নি জেনারেল বেণুগোপাল৷ প্রতিরক্ষা মন্ত্রক থেকেই রাফাল নথি চুরি গিয়েছে বলে জানান তিনি৷ রাফাল নথির খোঁজে গোপনীয়তা আইনে তদন্ত চলছে৷

বুধবার রাফাল মামলার শুনানিতে অ্যাটর্নি জেনারেল সুপ্রিম কোর্টে জানান, রাফাল সংক্রান্ত নথিগুলি চুরি হয়ে গিয়েছে৷ জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থেই সেগুলি আদালতকে দেখানো যাচ্ছে না৷ রাফালে চুক্তি বিতর্কে বড়সড় স্বস্তি কেন্দ্রের।

গত বছর ১৪ ডিসেম্বর সুপ্রিম কোর্ট জানায়, রাফাল যুদ্ধবিমান কেনা নিয়ে প্রশ্ন তোলার কোনও জায়গা নেই৷ রাফাল চুক্তি নিয়ে তদন্তের প্রয়োজন নেই। এই চুক্তিতে আর্থিক দুর্নীতি হয়নি। ১২৬-এর জায়গায় ৩৬টি বিমান কেনা নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে যে প্রশ্ন তোলা হয়েছে তা একেবারেই অনুচিত, রায় দেয় শীর্ষ আদালত। এছাড়া, বিমান কেনার প্রক্রিয়ায় কোনও সমস্যা নেই। তার পাশাপাশি কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বাণিক্যিক পক্ষপাতিত্বের যে অভিযোগ উঠেছে তাও ভিত্তিহীন কারণ এর কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি, জানায় সুপ্রিম কোর্ট।

এরপরই রায়ের পুনর্বিবেচনার আর্জি জানিয়ে মামলা করেন প্র্কাত্ন অর্থমন্ত্রী যশবন্ত সিনহা, অরুণ সৌরি ও আইনজীবী প্রশান্ত ভূষণ৷ একটি সর্বভারতীয় সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়, রাফাল চুক্তির সব নথি চুরি হয়ে গিয়েছে৷ সেই সংবাদপত্রের দাবিকে শুনানি চলাকালীন তুলে ধরে সুপ্রিম কোর্ট৷ অ্যাটর্নি জেনারেল ওই সংবাদপত্রের বিরুদ্ধেই অভিযোগ করেন, তারাই রাফাল নথি চুরি করেছে৷

আরও ভিডিও: রাজধানীতে রাফাল-তরজা, আক্রমণাত্মক অমিত শাহ

First published: March 6, 2019, 4:29 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर