Home /News /national /
West Bengal Municipal Elections 2022: দরজায় পুরভোট, তার আগেই বড় 'ধাক্কা' খেল বিজেপি! লাভ হল না সুপ্রিম কোর্টেও

West Bengal Municipal Elections 2022: দরজায় পুরভোট, তার আগেই বড় 'ধাক্কা' খেল বিজেপি! লাভ হল না সুপ্রিম কোর্টেও

চাপে পড়ল বিজেপি

চাপে পড়ল বিজেপি

West Bengal Municipal Elections 2022: বিজেপি নেতা প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায় ও মৌসুমী রায়ের দায়ের করা ওই মামলা খারিজ করে দিয়েছে বিচারপতি চন্দ্রচূড় ও বিচারপতি সূর্যকান্তের ডিভিশন বেঞ্চ।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: গত বছর পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা ভোটে পুরোদস্তুর কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন ছিল। কিন্তু তাতে বিজেপির পক্ষে যায় জনমত। বরং ক্ষমতায় আসার স্বপ্ন দেখে মাত্র ৭৭ আসনেই থেমে যেতে হয়েছে গেরুয়া শিবিরকে। যদিও তারপরেও রাজ্যের একের পর এক ভোটে কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়েই সওয়াল করেছে বিজেপি। যদিও তাতে বিশেষ সুরাহা হয়নি। এবারও ফের রাজ্যের ১০৮ পুরসভার ভোটে (West Bengal Municipal Elections 2022) কেন্দ্রীয় বাহিনী পাচ্ছে না তাঁরা। কারণ পুরভোটে কেন্দ্রীয় বাহিনী চেয়ে গতকালই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল বিজেপি৷ বিজেপি-র(BJP in Supreme Court) জরুরি ভিত্তিতে আবেদনের শুনানিতে সাড়া দিয়ে মামলা দায়েরের অনুমতিও দিয়েছিলেন সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি এন ভি রামানার ডিভিশন বেঞ্চ৷ কিন্তু সেই আর্জি ফিরিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট।

    বিজেপি নেতা প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায় ও মৌসুমী রায়ের দায়ের করা ওই মামলা খারিজ করে দিয়েছে বিচারপতি চন্দ্রচূড় ও বিচারপতি সূর্যকান্তের ডিভিশন বেঞ্চ। ফলে এবার পুরভোটেও কেন্দ্রীয় বাহিনীর দাবি মিটল না গেরুয়া শিবিরের।

    আরও পড়ুন: ইউক্রেনে রুশ হামলা, ব্যাপক দাম বাড়ছে রান্নাঘরের এই দুই জিনিসের! আরও বাড়ার আশঙ্কা

    প্রসঙ্গত, বুধবারই কলকাতা হাইকোর্ট জানিয়েছিল, ২৭ ফেব্রুয়ারি পশ্চিমবঙ্গের ১০৮টি পুরসভার ভোটে কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকবে কি না, সেই সিদ্ধান্ত নেবে রাজ্য নির্বাচন কমিশন৷ আর সেই প্রেক্ষিতে রাজ্য নির্বাচন জানিয়ে দিয়েছে, রাজ্য পুলিশ দিয়েই হবে পুরভোট৷ কলকাতা হাইকোর্টের এই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়েই সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়েরের অনুমতি চেয়েছিল বিজেপি৷ সেই অনুমতি মিললেও ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই মামলাটি খারিজ করে দিল শীর্ষ আদালত।

    আরও পড়ুন: ইউক্রেনে আটকে হাজার হাজার ভারতীয় পড়ুয়া, ডাক্তারি পড়তে এই দেশ কেন এত জনপ্রিয়?

    নিজেদের আবেদনে অবশ্য বিজেপি যুক্তি দিয়েছিল, এর আগে কলকাতা পুরসভার ভোট এবং চারটি পুরনিগমের ভোটেও কেন্দ্রীয় বাহিনীর ব্যবহারের বিষয়টি রাজ্য নির্বাচন কমিশনের উপরেই ছেড়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট৷ কিন্তু এই দুই নির্বাচনেই ব্যাপকভাবে ছাপ্পা ভোট সহ নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। অর্থাৎ, রাজ্য নির্বাচন কমিশন হাইকোর্টের আস্থার প্রতি সুবিচার করতে পারেনি। কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ অবশ্য নির্দেশে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়া ভোট করালে যদি কোনও অশান্তি হয়, তাহলে তার দায় বর্তাবে রাজ্য নির্বাচন কমিশনারের উপরেই৷ তা সত্ত্বেও অবশ্য সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল গেরুয়া শিবির। তাতে অবশ্য লাভ হল না কোন।

    Published by:Suman Biswas
    First published:

    Tags: Bengal BJP, West Bengal Municipal Elections 2022

    পরবর্তী খবর