Home /News /national /
Signs of New Covid-19 XE Variant: ফের চলে যাচ্ছে স্বাদ আর গন্ধ? XE ভ্যারিয়েন্টের নতুন উপসর্গ নিয়ে সতর্ক করলেন বিশেষজ্ঞরা

Signs of New Covid-19 XE Variant: ফের চলে যাচ্ছে স্বাদ আর গন্ধ? XE ভ্যারিয়েন্টের নতুন উপসর্গ নিয়ে সতর্ক করলেন বিশেষজ্ঞরা

Covid-19 XE Variant: XE ভ্যারিয়েন্ট ভারতের জন্য উদ্বেগের কারণ নয় বলেই বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন।

  • Share this:

    Signs of New Covid-19 XE Variant: Covid-19-এর একটি আরও সংক্রমণযোগ্য রূপ হল XE। ইতিমধ্যেই ভারতে প্রবেশ করেছে এই নয়া ভ্যারিয়েন্ট। তবে ভারতের বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, Omicron-এর থেকে আলাদা উপসর্গ হতে পারে এই নয়া মিউট্যান্টের। গন্ধ এবং স্বাদের ক্ষতি হতে পারে এতে, যা ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের অন্যতম বৈশিষ্ট্য ছিল। গুজরাতে শনিবারই মিলেছে XE ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ। গুজরাতের ওই কোভিড XE ভ্যারিয়েন্ট নমুনার জিনোমিক বিশ্লেষণ এখনও চলছে এবং শীঘ্রই এর ফলাফল জানা যাবে বলে আশা করা হচ্ছে, শনিবার জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক।

    আরও পড়ুন- মুম্বইয়ের পর এবার গুজরাতে মিলল নয়া XE Recombinant ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ!

    এর আগে, মুম্বইয়ে একজন মহিলা, যিনি ফেব্রুয়ারির শেষদিকে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে দেশে আসেন তিনি XE ভ্যারিয়েন্টে সংক্রামিত হয়েছেন বলে জানা যায়। তবে স্বাস্থ্য মন্ত্রক বিষয়টি নিশ্চিত করেনি। বুধবার সন্ধ্যায় মন্ত্রক জানিয়েছে, এটি XE ভ্যারিয়েন্টই কী না তার প্রমাণ মেলেনি।

    স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে, যেটিকে XE Variant বলা হচ্ছে তা INSACOG-এর জিনোমিক বিশেষজ্ঞরা বিশদভাবে বিশ্লেষণ করেছেন। এবং তাঁদের অনুমান এই ভ্যারিয়েন্টের জিনোমিক গঠনটি 'XE'-এর জিনোমিক গঠনের সঙ্গে সম্পর্কিত নয়। নতুন এই মিউট্যান্ট প্রথম ব্রিটিশ যুক্তরাজ্যে শনাক্ত হয়েছিল।

    XE ভ্যারিয়েন্ট কী?

    XE হল COVID-19-এর Omicron BA.1 এবং BA.2-এর রিকম্বিন্যান্ট ভ্যারিয়েন্ট। WHO নিজের সাম্প্রতিক আপডেটে জানিয়েছে, XE রিকম্বিন্যান্ট (BA.1-BA.2) প্রথম ১৯ জানুয়ারি ব্রিটিশ যুক্তরাজ্যে শনাক্ত হয়েছিল এবং তখন থেকে ৬০০ টিরও বেশি সংক্রমণের খবর মিলেছে বিশ্বে। BA.2 এর তুলনায় ১০ গুণ বেশি সংক্রমণযোগ্য এই নয়া ভ্যারিয়েন্ট৷ তবে এই নিয়ে নিশ্চিত কোনও সিদ্ধান্তে আসতে সময় লাগবে।

    লক্ষণ কী কী?

    এই ভ্যারিয়েন্টের সবচেয়ে সাধারণ লক্ষণ হল, এই ভাইরাসে আক্রান্তদের গন্ধ এবং স্বাদগ্রহণ ক্ষমতা চলে যায়। ভারতে কোভিড মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউ এনেছিল যে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট, তার একটি সাধারণ লক্ষণ ছিল এটি। অন্যান্য উপসর্গগুলির মধ্যে আছে জ্বর, গলা ব্যথা, গলা চুলকানি, কাশি এবং সর্দি, ত্বকের জ্বালা এবং বিবর্ণতা, গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল যন্ত্রণা ইত্যাদি।

    আরও পড়ুন- XE-এর দাপটে ফের সতর্কতা জারি সরকারের, পাঁচ রাজ্যকে দেওযা হল চরম সতর্কবার্তা

    বেশি সংক্রমণযোগ্য

    যদিও XE ভ্যারিয়েন্ট ভারতের জন্য উদ্বেগের কারণ নয় বলেই বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন। তাঁদের মতে এই ভ্যারিয়েন্টের তীব্রতা টিকা নেওয়ার উপর নির্ভর করবে এবং যেহেতু ভারতে অধিকাংশেরই দু’বার টিকা নেওয়া হয়েছে, বুস্টার ডোজও দেওয়া হচ্ছে তাই XE-র ক্ষতির সম্ভাবনা কম।

    তিন মাসেরও কম সময় আগে ওমিক্রনে সংক্রামিত হয়েছেন দেশের অনেকেই সুতরাং তাঁদের দেহে অ্যান্টিবডি প্রতিরোধের সম্ভাবনা রয়েছে। যেহেতু ভ্যারিয়েন্টটি খুব বেশি সংক্রমণযোগ্য তাই অনেকে সংক্রামিত হতে পারেন তবে মৃত্যুহার নগণ্য হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

    Published by:Madhurima Dutta
    First published:

    পরবর্তী খবর