Home /News /national /
Presidential Poll Updates: শরদ পাওয়ার রাজি হননি, চূড়ান্ত নাম কয়েকদিনেই, বৈঠক শেষে বললেন মমতা

Presidential Poll Updates: শরদ পাওয়ার রাজি হননি, চূড়ান্ত নাম কয়েকদিনেই, বৈঠক শেষে বললেন মমতা

সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, শরদ পাওয়ার, অখিলেশ যাদব, মেহবুবা মুফতি

সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, শরদ পাওয়ার, অখিলেশ যাদব, মেহবুবা মুফতি

Presidential Poll Updates: শরদ পাওয়ারও বলেন, কয়েকটি দল মিটিংয়ে উপস্থিত হয়নি, নানারকম কারণ হয়ত ছিল। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে সেই দলগুলির সঙ্গে কথা বলে প্রার্থীর নাম চূড়ান্ত করে দেওয়া হবে।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের আগে বিজেপি বিরোধী দলগুলির স্ট্র্যাটেজি বৈঠক শেষে ঘোষিত হল না কোনও নির্দিষ্ট নাম। তবে নাম কয়েকদিনের মধ্যেই জানিয়ে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। বৈঠকের শেষে কংগ্রেস নেতা সুধীন্দ্র কুলকার্নি বলেন, দলগুলি ঐক্যমতে পৌঁছে একজন প্রার্থী দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পরে ওই সাংবাদিক বৈঠক থেকেই মমতা বলেন, শরদ পাওয়ারকে রাষ্ট্রপতি পদে লড়াই করার আবেদন সর্বসন্মতিক্রমে জানিয়েছিল বিরোধীদলগুলি। কিন্তু তিনি রাজি হননি। তাই নতুন নাম ভাবতে হচ্ছে। শরদ পাওয়ারও বলেন, কয়েকটি দল মিটিংয়ে উপস্থিত হয়নি, নানারকম কারণ হয়ত ছিল। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে সেই দলগুলির সঙ্গে কথা বলে প্রার্থীর নাম চূড়ান্ত করে দেওয়া হবে।

    আরও পড়ুন: একসঙ্গে চাকরি গেল ২৬৯ জন শিক্ষকের, প্রাথমিক টেট দুর্নীতিতেও সিবিআই নির্দেশ হাইকোর্টের

    মঙ্গলবার দিল্লিতে পৌঁছন মমতা। বুধবারের বৈঠকের আহ্ববান তিনি আগেই করেছিলেন। মঙ্গলবার দিল্লিতে পৌঁছেই শরদ পাওয়ারের সঙ্গে দেখা করেন তিনি। সন্ধ্যা নাগাদ সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি জানিয়ে দেন, শরদ রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে লড়তে চান না। এনসিপির অন্দর থেকেও সেই রবই তৈরি হয়। শরদের সরে দাঁড়ানোর বিষয়টি স্পষ্ট হতেই নতুন নাম নিয়ে ভাবনা চিন্তা শুরু হয়। মঙ্গলবার এক বার উচ্চারিত হয় গুলামনবি আজাদের নামও। কিন্তু সূত্রের খবর, বিরোধীদের একটা বড় অংশ গোপালকৃষ্ণ গান্ধির নামকেই সমর্থন করেছেন।

    আরও পড়ুন: বড় ঘোষণা উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের, একাদশ শ্রেণির পরীক্ষার ফলাফল কবে? জানাল সংসদ

    জুলাই মাসের ১৮ তারিখে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন। তার আগে, মোট ২২টি বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলকে একটি বৈঠকে আহ্ববান জানিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই বৈঠকে বুধবার হাজির হয়েছে কংগ্রেস, এনসিপি, আরজেডি, ন্যাশনাল কংগ্রেস, সিপিএম, সিপিআই, জেএমএম, শিবসেনা, আইইউএমএল, পিডিপি, জেডিএস ও আরএলডি-এর মতো দল। তবে মিটিংয়ে থাকতে অস্বীকার করেছে বিজেডি, আমআদমিপার্টি, তেলঙ্গানা রাষ্ট্রীয় সমিতি ও শিরোমণি অকালি দলের মতো সংগঠন। কংগ্রেস থাকার কারণে সরে এসেছে টিআরএস ও শিরোমণি অকালি দল।

    Published by:Uddalak B
    First published:

    Tags: Presidential poll

    পরবর্তী খবর