• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • বিগত ৫ বছরে প্রায় ৫,০০০ সন্তান প্রসব করিয়েছেন, নার্স মারা গেলেন নিজের সন্তান প্রসবের সময়ে

বিগত ৫ বছরে প্রায় ৫,০০০ সন্তান প্রসব করিয়েছেন, নার্স মারা গেলেন নিজের সন্তান প্রসবের সময়ে

Jyoti Gavli

Jyoti Gavli

Death of Nurse Jyoti Gavli: ভাগ্যের এমনই পরিহাস যে সেই মহিলা নার্স মারা গেলেন নিজের সন্তান প্রসবের সময়।

  • Share this:

#হিঙ্গোলি: বিগত ৫ বছরে প্রায় ৫,০০০ বাচ্চা প্রসব করানো নার্স, মারা গেলেন নিজের বাচ্চা প্রসবের সময়। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের হিঙ্গোলিতে। সরকারি হাসপাতালের সেই নার্সের নিজের বাচ্চার প্রসবের সময় শরীর খারাপ হয়ে মৃত্যু হয়। জ্যোতি গাভলি নামের ৩৮ বছরের সেই মহিলা নার্স বিগত ৫ বছরে প্রায় ৫,০০০ বাচ্চা প্রসব করাতে সাহায্য করেছেন। ভাগ্যের এমনই পরিহাস যে সেই মহিলা নার্স মারা গেলেন নিজের সন্তান প্রসবের সময় (Nurse managed 5000 deliveries in five years, but dies while delivering her own baby)।

আরও পড়ুন- Share Market News: আশিস কাচোলিয়ার এই শেয়ার এক মাসেই দিয়েছে ভালো রিটার্ন, দেখে নিন এক নজরে

জ্যোতি গোবলি নামের সেই নার্স বিগত ৫ বছর ধরে মহারাষ্ট্রের হিঙ্গোলিতে সরকারি হাসপাতালে প্রসূতি বিভাগে নার্স হিসাবে কাজ করতেন। এর আগে তিনি গোরেগাঁওয়ের হাসপাতালে নার্স হিসাবে কাজ করতেন। মহারাষ্ট্রের হিঙ্গোলিতে সরকারি হাসপাতালে কাজ করার সময় তিনি প্রায় ৫,০০০-এর মতো বাচ্চা প্রসবে নার্স হিসাবে সহযোগিতা করেছেন। নর্মাল ডেলিভারির সঙ্গে সঙ্গে সিজারিয়ান ডেলিভারির সময়েও অপারেশন থিয়েটারে সেই নার্স গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতেন। এমন একজন অভিজ্ঞ নার্স মারা গেলেন নিজের ডেলিভারির সময়।

জ্যোতি গাভলি সহজেই সকল মহিলাদের সঙ্গে মিশে যেতে পারতেন। এর জন্য প্রসব করাতে আসা সকল মহিলার সঙ্গেই জ্যোতির বন্ধুত্ব গড়ে উঠতে বেশি সময় লাগত না। এমন একজন ভালো মনের মিশুকে মানুষের সঙ্গেই ঘটল এক মর্মান্তিক ঘটনা।

আরও পড়ুন-আগামী ৭ দিন সমস্যা হতে পারে রেলের টিকিট রিজার্ভেশনে, পরিষেবা বন্ধ থাকবে প্রতিদিন ৬ ঘণ্টার জন্য

জ্যোতি মহারাষ্ট্রের হিঙ্গোলিতে সেই সরকারি হাসপাতালেই ২ নভেম্বর নিজের ডেলিভারির জন্য ভর্তি হন। সিজারের মাধ্যমে তিনি একটি পুত্রসন্তানের জন্ম দেন, সেই বাচ্চা পুরোপুরি সুস্থ ছিল। কিন্তু এর পরেই জ্যোতির শরীর খারাপ হতে শুরু করে। প্রসবের পর তাঁর রক্তস্রাব কিছুতেই বন্ধ না হওয়ার কারণে তাঁকে অন্য সরকারি হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে গিয়েও তাঁর শরীরের বিশেষ উন্নতি হয়নি। জ্যোতির শ্বাস নিতে সমস্যা তৈরি হয়। এর ফলে তাঁকে আরও উন্নত চিকিৎসা দেওয়ার জন্য ঔরঙ্গাবাদে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কিন্তু জ্যোতির শরীরের অবস্থা খারাপ থাকার ফলে তাঁকে সেখানকারই একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানকার চিকিৎসায় জ্যোতির শরীরের কিছুটা উন্নতি হয় দেখা যায়। কিন্তু রবিবার ভোরের দিকে আবার তাঁর শ্বাস নিতে অসুবিধা হতে শুরু করে এবং কিছুক্ষণের মধ্যেই জ্যোতি মারা যান। জ্যোতি গাভলি নামের ৩৮ বছরের সেই মহিলা নার্সের এমন পরিণতি নিঃসন্দেহে বেদনাদায়ক ঘটনা। সব সময় অন্যের হাতে সদ্যপ্রসূত সন্তান তুলে দেওয়া জ্যোতি গাভলি নিজের বাচ্চাকেই কোলে নিতে পারলেন না।

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: