Home /News /national /
Goa Election Results 2022: ফলের আগেই গোয়ায় খেলা শুরু বিজেপি-র, তৃণমূলের জোটসঙ্গীকে নিয়ে জোর টানাপোড়েন

Goa Election Results 2022: ফলের আগেই গোয়ায় খেলা শুরু বিজেপি-র, তৃণমূলের জোটসঙ্গীকে নিয়ে জোর টানাপোড়েন

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে এমজিপি নেতৃত্ব৷ Photo-ANI

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে এমজিপি নেতৃত্ব৷ Photo-ANI

বুথ ফেরত সমীক্ষায় ত্রিশঙ্কু বিধানসভার সম্ভাবনা জোরালো হতেই তৃণমূলের জোটসঙ্গীকে নিয়ে টানাপোড়েন শুরু হয়ে গিয়েছে (Goa Assembly Election 2022)৷

  • Share this:

    #পানাজি: বাকি চার রাজ্যে কে ক্ষমতায় আসবে তা নিয়ে স্পষ্ট ইঙ্গিত দিলেও অধিকাংশ বুথ ফেরত সমীক্ষাতেই দাবি করা হয়েছে, ফের ত্রিশঙ্কু হতে চলেছে গোয়ার বিধানসভা (Goa Assembly Elections 2022)৷ শেষ পর্যন্ত এই পূর্বাভাস মিলে গেলে গোয়ায় সরকার গঠনের চাবিকাঠি থাকতে পারে এমজিপি (MGP) বা মহারাষ্ট্রবাদী গোমন্ত্রক পার্টির হাতেই৷ ঘটনাচক্রে যারা গোয়ায় এবার তৃণমূল কংগ্রেসের জোটসঙ্গী (TMC MGP Alliance in Goa)৷ ২০১৭ সালে এই এমজিপি-র সমর্থনেই গোয়ায় সরকার গড়েছিল বিজেপি৷

    বুথ ফেরত সমীক্ষায় ত্রিশঙ্কু বিধানসভার সম্ভাবনা জোরালো হতেই তৃণমূলের জোটসঙ্গীকে নিয়ে টানাপোড়েন শুরু হয়ে গিয়েছে৷ মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এবং বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র ফড়নবীশ দাবি করেছেন, এমজিপি তাদের পুরনো বন্ধু, সবসময়ের সঙ্গী৷ যদিও ফড়নবীশের দাবি, বিজেপি গোয়ায় একক সংখ্যাগরিষ্ঠতাই পাবে৷

    আরও পড়ুন: পাঁচ রাজ্যে কোথায় কাকে এগিয়ে রাখল ইন্ডিয়া টুডে- অ্যাক্সিস বুথ ফেরত সমীক্ষা?

    সংবাদসংস্থা এএনআই-কে ফড়নবীশ বলেছেন, 'আমি নিশ্চিত যে বিজেপি ভাল ফল করবে৷ আমাদের সঙ্গে থাকতে অনেকেই তৈরি৷ আমি নিশ্চিত, আমরা বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতাই পাবো৷'

    বিজেপি-র আর এক বিতর্কিত প্রার্থী অ্যাটানসিও বাবুশ মনসেরেটেও দাবি করেছেন, প্রয়োজনে এমজিপি তাদের সমর্থন করবে বলেই তিনি নিশ্চিত৷ প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালে বিজেপি-র সঙ্গে এমজিপি-র জোট ভেঙে যায়৷

    রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, তৃণমূলের জোটসঙ্গী এমজিপি এবারেও গোয়ায় কিং মেকার হতে চলেছে৷ এমজিপি নেতৃত্ব ইঙ্গিত দিয়েছে, সরকার গঠনের জন্য কংগ্রেসও তাদের বাজিয়ে দেখছে৷

    আরও পড়ুন: গোয়ায় বিজেপি কংগ্রেসে হাড্ডাহাড্ডি! TMC না AAP, 'কিং মেকার' কে? বুথ ফেরত সমীক্ষা যা বলছে...

    ২০১৭ সালে গোয়ায় সবথেকে বেশি আসন পেয়েছিল কংগ্রেসই৷ কিন্তু সুধীন দাভলিকরের দলের সমর্থনেই সরকার গড়ে বিজেপি৷ যদিও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পারিক্করের মৃত্যুর পরই ২০১৯ সালে এমজিপি-কে সরকার থেকে বাদ দিয়ে দেন বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্ত৷ এর পরেই আর কোনওদিন বিজেপি-র হাত ধরবেন না বলে জানিয়ে দেন এমজিপি প্রধান সুধীন দাভিলকর৷ যদিও শর্তসাপেক্ষে তিনি সিদ্ধান্ত বদলাতে পারেন বলেই এমজিপি সূত্রে খবর৷ বিজেপি-কে সমর্থন দিলে তার বিনিময়ে গোয়ার মুখ্যমন্ত্রীর পদ এমজিপি দাবি করতে পারে, এমনটাই দলীয় সূত্র উদ্ধৃত করে দাবি করেছে এনডিটিভি৷ তবে এ বিষয়ে বিজেপি-র প্রতিক্রিয়া মেলেনি৷ তবে শেষ পর্যন্ত এমজিপি বিজেপি-র হাত ধরলে তা যে তৃণমূলও ভাল ভাবে নেবে না, তা বলার অপেক্ষা রাখে না৷

    তবে তাঁর অবস্থান কী হবে, তা খোলসা করেননি সুধীন দাভিলকর৷ ইতিমধ্যেই তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, প্রশান্ত কিশোর এবং দলের রাজ্যসভার সাংসদদের সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দাভিলকর৷ তাঁর কথায়, 'তৃণমূল, কংগ্রেস এবং বিজেপি-র সঙ্গে অনেক কিছুই আলোচনা হয়েছে৷ কিন্তু এই মুহূর্তে আমি একটা জোটে রয়েছি, ফলে এখনই কিছু বলা সম্ভব নয়৷'

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    Tags: Goa, TMC

    পরবর্তী খবর