বিপুল জয়ের পর আপ বিধায়ককে লক্ষ্য করে গুলি, সমর্থকের মৃ্ত্যু

বিপুল জয়ের পর আপ বিধায়ককে লক্ষ্য করে গুলি, সমর্থকের মৃ্ত্যু
Photo Collected
  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বিপুল জয়ের চলছিল উদযাপন৷ আর তাতেই যোগ হল রক্তের দাগ! দিল্লিতে আপের জয়ের পর এক আপ কর্মীর মৃত্যুতে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে৷ জয়ী আপ বিধায়ক নরেশ যাদবের সঙ্গে ছিলেন আপ কর্মী অশোক মান৷ মেহরৌলি বিধানসভা কেন্দ্র জয়ের পর নরেশ যাদব গিয়েছিলেন মন্দিরে, পুজো দিতে৷ পুজো দিয়ে খোলা গাড়িতে করে ফিরছিলেন তিনি৷ তখনই তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়া হয়৷ গুলি লাগে বিধায়কের পাশে থাকা অশোক মানের৷ মৃত্যু হয় তার৷ অন্য এক আপ কর্মীও আহত হন৷

মঙ্গলবার দিল্লিতে আপের জয়ের পর রাত ১০.৩০ নাগাদ কিশনগড় এলাকা দিয়ে আপ বিধায়কের গাড়ি যাচ্ছিল৷ হুড খোলা গাড়িতে নরেশ যাদব ছাড়াও ছিলেন আপ কর্মীরা৷ সেখানেই এক অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি গুলি চালায়৷ জয়ের উদযাপেন প্রচুর বাজি ফাটছিল চারিদিকে৷ তাই প্রথেম বোঝাই যায়নি যে গুলি চলেছে৷ চার রাউন্ড গুলি চলে৷ ব্যাপারটি বুঝতে পেরেই সঙ্গে সঙ্গে আপ বিধায়ককে অন্য গাড়িতে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়৷ আপ কর্মীর মৃত্যুর কথা ট্যুইটে জানায় দল৷

প্রথমিক তদন্তের পর এক ব্যক্তিকে পুলিশ আটক করেছে৷ তিনিই গুলি চালিয়েছিলেন বলে জানা গিয়েছে৷ গুলি চালানোর কথা স্বীকারও করেছে আটক ব্যক্তি৷ তবে তিনি জানিয়েছেন যে আপ কর্মী অশোক মনকে হত্যা করতেই গুলি চালান তিনি৷ এরপরই দিল্লি পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে৷ কীভাবে এমন এক দিনে, জনবসতিতে গুলি ছোড়া হল? কোথায় পুলিশি নিরাপত্তা? এই ভাষায় ট্যুইট করেছেন আপ সংসদ সঞ্জয় সিং৷ এর আগে শাহিনবাগ, জামিয়া মিলিয়া বা জেএনইউতে পুলিশের আচরণে ক্ষুব্দ দিল্লিবাসী৷

First published: February 12, 2020, 11:04 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर