• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ‘বীরের মতো ইস্তফা দেব, বিপুল ভোটে জিতেও আসব’- বললেন সাংসদ সুনীল মণ্ডল

‘বীরের মতো ইস্তফা দেব, বিপুল ভোটে জিতেও আসব’- বললেন সাংসদ সুনীল মণ্ডল

একরাশ ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন সুনীল মণ্ডল...

একরাশ ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন সুনীল মণ্ডল...

একরাশ ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন সুনীল মণ্ডল...

  • Share this:

#বর্ধমান:  সংসদে গিয়ে ইস্তফা দেব, আবার বিপুল ভোটে জয়ী হয়ে ফিরেও আসব।কিন্তু সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের বিবেকের কাছে কি উত্তর দেবেন?-এমনই প্রতিক্রিয়া সদ্য তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া সাংসদ সুনীল মণ্ডলের। সুনীল মন্ডলের সংসদের সদস্যপদ খারিজের জন্য তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় লোকসভা স্পিকারের কাছে আর্জি জানিয়েছেন। সে ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হলে নিউজ এইট্টিন বাংলার কাছে এই মন্তব্য করেন সুনীল মণ্ডল।

বর্ধমানের উল্লাসের বাড়িতে বসে তিনি বলেন, সুদীপ দা কে সাহসী বলেই জানতাম। তাঁকে উদ্দেশ্য করেই বলছি বুকে হাত দিয়ে বলুন আপনি যেটা করছেন সেটা কতটা সঠিক। কংগ্রেস থেকে সিপিএম থেকে বিধায়করা এসে দিব্যি তিন বছর পদত্যাগ না করেই তৃণমূলের হয়ে প্রচার করে গেল। আজ নির্বাচনের দিন এসে গেল তারা এখনো পদত্যাগ করেনি। এটা কোন মানবিক মুখ? আমি তো সাংসদ পদে ইস্তফা দেব। পুনরায় নির্বাচিত হয়ে আসব। সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। কোনও প্রশ্নও নেই। আমি তাদের কাছে প্রশ্ন করতে চাই, পরের বেলায় ষোল আনা আর নিজের বেলায় এক আনাও নয়ে সেটা কি করে সম্ভব।

সুনীল মণ্ডল বলেন, কেন আমি দল ছেড়েছি তা সুদীপদা, সৌগতদাকে নিজে প্রকাশ্যে জানিয়েছি। নির্বাচনে জেতার পর দলের কোনও সভায় আমাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। আমার এমপি ফান্ডের টাকায় উন্নয়ন হচ্ছে আর তার ফিতে কাটছে জেলার নেতারা। আমাকে একবার জানানোর পর্যন্ত প্রয়োজন মনে করেননি। এ দুঃখ কোথায় রাখব!

তিনি বলেন,সুদীপদাদের আমি অনুরোধ করব এভাবে নিজেদের নীতি ও আদর্শকে বিসর্জন দেবেন না। আমি শুধু বলতে চাই, বিবেককে জাগ্রত করুন। সত্যের জন্য আদর্শের জন্য প্রতিবাদ করুন। আমি জোর গলায় বলছি জনগণের চাপে আমি দলবদল করেছি। উপনির্বাচনে জিতে তা প্রমাণ করে দেবো। তিন থেকে চার লক্ষ ভোটে জিতবো। তাই বীরের মতো সংসদে গিয়ে পদত্যাগ করবো। বীরের মতো জিতেও আসবো। সুদীপদাদের অতো চিন্তিত হওয়ার প্রয়োজন নেই।

Saradindu Ghosh

Published by:Debalina Datta
First published: