• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আটকাতে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত এই জেলার, জানুন

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আটকাতে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত এই জেলার, জানুন

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

এছাড়াও নির্দেশে জানানো হয়েছে, ঘরের ভিতরের কোনও অনুষ্ঠানে ১০০ জনের বেশি লোক একসঙ্গে থাকা যাবে না। খোলা জায়গার অনুষ্ঠানে সেই সংখ্যা বেঁধে দেওয়া হয়েছে ২০০ জনে। করোনার বিধি না মানলে প্রত্যেক ব্যক্তিকে দিতে হবে জরিমানা।

  • Share this:

    #অমৃতসর: সোমবার ফের করোনা সংক্রমণে রেকর্ড গড়ে নতুন করে আক্রান্ত ২৬ হাজার ২৯১ জন। চিকিৎসকদের দাবি, সতর্ক না হলে খুব শীঘ্রই করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আসবে এবং ফের দেশকে লকডাউনের পথে হাঁটতে হবে। গত ৮৫ দিনে দেশে একদিনে সবচেয়ে বেশি করোনা সংক্রমণ হয়েছে রবিবার। সোমবার স্বাস্থ্যমন্ত্রকের রিপোর্ট অনুযায়ী এই তথ্য পাওয়া গিয়েছে। এখনও পর্যন্ত দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১,১৩,৮৫,৩৩৯ জন।

    নিজেদের রাজ্যে করোনার সংক্রমণ আটকাতে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিল পঞ্জাব। রাজ্যে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আসা সময়ের অপেক্ষা বলেই মনে করছেন চিকিৎসকেরা। এই পরিস্থিতিতে রবিবার অমৃতসরের জেলা প্রশাসন সিদ্ধান্ত নিয়েছে, কোনও অনুষ্ঠানে যেখানে বহু মানুষের সমাগম সেখানে কোভিড নেগেটিভ রিপোর্ট দেখাতে হবে। অথবা নেওয়া থাকতে হবে করোনার ভ্যাকসিন। অমৃতসরের ডেপুটি কমিশনার গুরপ্রীত সিং খাইরা রবিবার বলেছেন, 'যে কোনও ধরনের সামাজিক, ধর্মীয়, খেলা বা বিনোদন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য প্রতিটি ব্যক্তিকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে করা করোনার নেগেটিভ রিপোর্ট বা ভ্যাকসিন নেওয়া হয়েছে সেই সার্টিফিকেট দেখাতে হবে।'

    এছাড়াও নির্দেশে জানানো হয়েছে, ঘরের ভিতরের কোনও অনুষ্ঠানে ১০০ জনের বেশি লোক একসঙ্গে থাকা যাবে না। খোলা জায়গার অনুষ্ঠানে সেই সংখ্যা বেঁধে দেওয়া হয়েছে ২০০ জনে। করোনার বিধি না মানলে প্রত্যেক ব্যক্তিকে দিতে হবে জরিমানা। হতে পারে আইনি শাস্তিও। যেহেতু এই সময় প্রচুর বিয়ের অনুষ্ঠান চলছে, সে কারণে জেলার প্রতিটি প্রশাসনিক কর্তাকে কড়া ভাবে এই নিয়ম পালনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

    রবিবারই এই জেলায় নতুন করে ১১০ জন করোনা আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। এখনও পর্যন্ত জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে ১৬ হাজার ৮৬১ জনে। করোনার লকডাউন ওঠার পর থেকেই অমৃতসররের স্বর্ণমন্দিরে প্রচুর পরিমাণে মানুষের ভিড় হচ্ছে। অভিযোগ, সেখানে করোনার দূরত্ববিধি একেবারেই মেনে চলা হচ্ছে না। এমনকী বহু মানুষ মাস্কও ব্যবহার করছেন না বলে অভিযোগ। ইতিমধ্যেই পঞ্জাবের বহু জেলাতে নাইট কারফিউ লাগু করা হয়েছে।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: