Home /News /national /
Coronavirus Third Wave: করোনা ঠাঁই দিলনা গর্ভবতীকে হাসপাতালে! রাস্তাতেই জন্ম ফুটফুটে শিশুর

Coronavirus Third Wave: করোনা ঠাঁই দিলনা গর্ভবতীকে হাসপাতালে! রাস্তাতেই জন্ম ফুটফুটে শিশুর

Coronavirus Third Wave: করোনা আক্রান্ত গর্ভবতী মহিলাকে হাসপাতালে ভর্তি করতে অস্বীকার, মঙ্গলবার রাস্তার পাশে ওই নারী সন্তান প্রসব করেন।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বুধবার তেলঙ্গানার নাগারকুর্নুল জেলার আচামপেট কমিউনিটি হেলথ সেন্টারের হাসপাতাল সুপারিনটেনডেন্ট এবং এক কর্তব্যরত ডাক্তারকে বরখাস্ত করা হয়েছে। ওই দু’ই কর্তাব্যক্তিই করোনা পজিটিভ গর্ভবতী রোগীকে ভর্তি করতে অস্বীকার করেছিলেন। এর পর মঙ্গলবার রাস্তার পাশে ওই নারী সন্তান প্রসব করেন। স্বাস্থ্য আধিকারিকরা জানিয়েছেন যে মহিলা এবং নবজাতককে প্রসবের পরে তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের দু'জনের অবস্থাই এই মুহূর্তে ভালো রয়েছে।

আরও পড়ুন: Mouni Roy Wedding Album: অবশেষে স্বপ্নপূরণ! বহু পুরুষের হৃদয়ে ধাক্কা দিয়ে বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন সুপার হট মৌনি রায়, শুভ পরিণয়ে আরও রূপের আগুন ছড়াচ্ছেন নববধূ!

স্বাস্থ্য আধিকারিকরা স্পষ্ট করেছেন যে ইতিমধ্যেই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যে কোনও গর্ভবতী মহিলাকে হাসপাতালে ভর্তি নেওয়ার ক্ষেত্রে অস্বীকার করা যাবে না, এমনকী যদি তারা করোনা পজিটিভ হয় তাহলেও নয়। এই নির্দেশ না মানায় দুই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তেলঙ্গানা বৈদ্য বিধান পরিষদের কমিশনার ডা. কে রমেশ রেড্ডি জানিয়েছেন যে ওই গর্ভবতী মহিলা সিএইচসি-তে এসেছিলেন, এখানে তাঁর পরীক্ষা করা হয়েছিল। পরে তাঁর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ পাওয়া গিয়েছে। এর পরই চিকিৎসকরা তাকে ভর্তি না করে অন্য স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যেতে বলেন।

এটিকে সংশ্লিষ্ট কর্মীদের চরম অবহেলা এবং নিয়ম লঙ্ঘনকারী হিসাবে অভিহিত করে, কমিশনার ডা. কে রমেশ রেড্ডি হাসপাতালের সুপারিনটেনডেন্ট এবং সিএইচসি কর্তব্যরত ডাক্তারকে অবিলম্বে বরখাস্ত করেছেন।

আরও পড়ুন: Viral Wedding Video: বিয়ের মণ্ডপে দেখ কাণ্ড! মালাবদলে এই কাজ করলেন কনের সঙ্গে হবু বর! ভাঙল বিয়ে

আধিকারিক বলেছেন যে, সমস্ত সরকারি হাসপাতালে পূর্বেই গর্ভবতী মহিলাদের ভর্তি নিতে অস্বীকার না করার জন্য স্পষ্ট নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল, এমনকী তারা কোভিড পজিটিভ হলেও ভর্তি নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন। ডা. কে রমেশ রেড্ডি বলেছেন যে, ওই দুই ডাক্তারকে জনস্বাস্থ্য অধিদফতরের কাছে হস্তান্তর করার সময়, তাদের উভয়ের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

জেলা হাসপাতালের সুপারিনটেনডেন্টকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এই বিষয়ে বিশদ তদন্ত করতে এবং কমিশনারের কাছে এই কেস সংক্রান্ত নিরপেক্ষ রিপোর্ট জমা দিতে। তিনি আরও জানিয়েছেন, অদূর ভবিষ্যতে এই ধরনের ঘটনা যেন আর না ঘটে সেই দিকে তাঁরা নজর রাখবেন।

Published by:Arjun Neogi
First published:

Tags: Coronavirus third wave, Covid Positive

পরবর্তী খবর