নাগরিকত্ব আইন: গুয়াহাটিতে ৭ ঘণ্টার জন্য শিথিল কার্ফু, দোকান, পেট্রোল পাম্পে বিশাল লাইন

নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে সামাজিক আন্দোলনের পথে অসম (PTI Photo)

গুয়াহাটির বাজারে বাজারে ভিড় জমিয়েছিলেন সাধারণ মানুষ।

  • Share this:

    #গুয়াহাটি: নাগরিকত্ব আইন নিয়ে ক্ষোভের আঁচ আরও ছড়াচ্ছে। হিংসার পথ ছেড়ে সামাজিক আন্দোলনের পথে হাঁটলেন অসমের মানুষ। শুক্রবার অনেকটাই শান্ত গুয়াহাটি-সহ অসমের বিভিন্ন এলাকা। শনিবার গুয়াহাটিতে ৭ ঘণ্টার জন্য কার্ফু শিথিল করেছে সেখানকার প্রশাসন। সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত কার্ফু শিথিল করা হয়েছে। গুয়াহাটি, বঙাইগাঁও, মরিগাঁও, শোণিতপুর, ডিব্রুগড়ে সেনা ও আসাম রাইফেলসের আটটি কলাম মোতায়েন রয়েছে। এর ফলে মানুষ পতে নেমে এসেছে ৷ দোকান আর পেট্রোল পাম্পে দেখা গিয়েছে বিশাল লাইন ৷ গুয়াহাটির বাজারে বাজারে ভিড় জমিয়েছিলেন সাধারণ মানুষ। গোলমাল হতে পারে এই আশঙ্কায় চাল, ডাল, তেল, নুন কিনতে দোকানে ভিড়। নাগরিকত্ব আইন বিরোধিতা আন্দোলনের রাশ এখন সাংস্কৃতিক কর্মী ও বিশিষ্ট মানুষদের হাতে। রাজ্যসভায় বিল পেশের পরপরই হিংসায় উত্তাল হয় গুয়াহাটি সহ অসমের বিভিন্ন এলাকা। হিংসাত্মক সেই আন্দোলনের পথ থেকে সরে আসছেন আন্দোলনকারীরা। নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় ক্ষোভ কমেনি। তবে আন্দোলনের রাশ হাতে নিয়েছেন রাজ্যের শিল্পী, সাহিত্যিক ও বিশিষ্ট মানুষ। শুক্রবার অসমের চানমারিতে বিশাল প্রতিবাদ সভায় হাজির রাজ্যের শিল্পী, গায়ক, অভিনেতা থেকে বুদ্ধিজীবি সমাজ। সেই সভায় আগাগোড়া নজরদারি পুলিশের। বিজেপির সঙ্গে সম্পর্ক চুকিয়ে বিক্ষোভে যোগ দিচ্ছেন বহু মানুষ। চার দশক আগে স্বাধীন অসমের স্বপ্ন নিয়ে সংগঠন তৈরি করেছিলেন এক তরুণ । প্রবীণ আলফা চেয়ারম্যানও আন্দোলনকারীদের পাশে চানমারির মাঠে আন্দোলনের যে ছবি উঠে আসে, সেটাই এখন অসমের সার্বিক ছবি। হিংসার পথ ছেড়ে সামাজিক আন্দোলনে চাপ বাড়ানো। নাগরিকত্ব বিলের বিরোধিতা চালিয়ে যাওয়া।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published: