Home /News /national /
Sri Lanka Crisis: শ্রীলঙ্কার সঙ্কট নিয়ে চিন্তায় ভারত, সর্বদলীয় বৈঠকের ডাক দিল কেন্দ্র

Sri Lanka Crisis: শ্রীলঙ্কার সঙ্কট নিয়ে চিন্তায় ভারত, সর্বদলীয় বৈঠকের ডাক দিল কেন্দ্র

Nirmala Sitharaman ans S Jaishankar

Nirmala Sitharaman ans S Jaishankar

Centre's All-Party Meet on Sri Lanka Crisis: শ্রীলঙ্কার আর্থিক অস্থিরতার জন্য গোটাবায়ার অব্যবস্থাপনাকেই দায়ী করছেন বিক্ষোভকারীরা। গত বছরের শেষ দিক থেকেই খাদ্য, জ্বালানি এবং ওষুধের ঘাটতিতে জেরবার এই দেশ।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক সঙ্কট ভাবাচ্ছে এই দেশকেও। মঙ্গলবার সন্ধায় তাই এই বিষয় নিয়েই সর্বদলীয় বৈঠক ডাকল কেন্দ্র। বৈঠকে থাকবেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ, বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। সংসদের বাদল অধিবেশনের আগে সর্বদলীয় বৈঠকের পর সংসদীয় বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশি সাংবাদিকদের জানান সরকার নিয়ম ও পদ্ধতি মেনে সমস্ত বিষয়েই আলোচনার জন্য রাজি। শ্রীলঙ্কার বিক্ষোভ আন্দোলন রবিবার শততম দিনে পৌঁছেছে। বিক্ষোভকারীদের চাপের মুখে পড়ে রাষ্ট্রপতি গোটাবায়া রাজাপক্ষ পদত্যাগ করতে এবং দেশ ছেড়ে পালাতে বাধ্য হয়েছেন। টানা তিন মাসেরও বেশি সময় ধরে এই দ্বীপরাষ্ট্র অভাবনীয় অর্থনৈতিক সঙ্কটের মুখে পড়েছে।

    আরও পড়ুন- সৌজন্যের নজির! উপরাষ্ট্রপতি প্রার্থী হওয়ায় রাজ্যপাল ধনখড়কে অভিনন্দন জানালেন দেব!

    শ্রীলঙ্কার আর্থিক অস্থিরতার জন্য গোটাবায়ার অব্যবস্থাপনাকেই দায়ী করছেন বিক্ষোভকারীরা। গত বছরের শেষ দিক থেকেই খাদ্য, জ্বালানি এবং ওষুধের ঘাটতিতে জেরবার এই দেশ। অর্থনৈতিক সংকটে একত্রিত হয়েছেন সংখ্যালঘু তামিল এবং মুসলিমরাও। একসময়ের ক্ষমতাশালী রাজাপক্ষের বংশকে ক্ষমতাচ্যুত করার দাবিতে সংখ্যাগরিষ্ঠ সিংহলিদের সঙ্গেই যোগ দিয়েছে সংখ্যালঘুরাও।

    শ্রীলঙ্কার সংবিধান অনুযায়ী রাজাপক্ষের পদত্যাগের পর প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপতি হিসাবে দায়িত্ব নেন। যদিও, তাঁর পদত্যাগেরও দাবি তুলেছে জনতা। রাজাপক্ষের বড় ভাই মাহিন্দা মে মাসেই প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করেন। বিক্রমাসিংহেকে তাঁর জায়গায় দায়িত্ব নেন।

    আরও পড়ুন- ফের কলকাতায় আত্মঘাতী মডেল! ফ্ল্যাটে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় উদ্ধার তরুণীর দেহ!

    এই পদক্ষেপে অবশ্য বিক্ষোভকারীদের ক্ষোভ প্রশমিত হয়নি একেবারেই। রাজাপক্ষের ২০০ বছরের পুরানো রাষ্ট্রপতির প্রাসাদে কড়া নিরাপত্তা ভেঙে হামলা চালান তাঁরা, প্রধানমন্ত্রী বিক্রমাসিংহের বাড়িতেও আগুন ধরিয়ে দেন। এখন রাজাপক্ষের এসএলপিপি দল, যার ২২৫ সদস্যের সংসদে ১০০ জনেরও বেশি সাংসদ রয়েছে, বুধবারের ভোটে বিক্রমাসিংহেকেই সমর্থন করবে৷

    Published by:Madhurima Dutta
    First published:

    Tags: Nirmala Sitharaman, S Jaishankar, Sri Lanka Crisis

    পরবর্তী খবর