সব হাসপাতালে মিলবে ন্যায্য মূল্যে ওষুধ, সব রাজ্যে জেলা হাসপাতালের পাশে মেডিক্যাল কলেজ

সব হাসপাতালে মিলবে ন্যায্য মূল্যে ওষুধ, সব রাজ্যে জেলা হাসপাতালের পাশে মেডিক্যাল কলেজ

স্বাস্থ্যে একটাই সমাধান। আয়ুষ্মান ভারত। নরেন্দ্র মোদির স্বপ্নের প্রকল্পকে আরও ছড়িয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা পেশ করলেন নির্মলা সীতারমন।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: স্বাস্থ্যে বরাদ্দ বাড়ল সামান্যই। তবে স্বাস্থ্য পরিকাঠামো রাতারাতি বদলে পাল্টে বার্তা দিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর।  জেলায় জেলায় হাসপাতাল, নতুন মেডিক্যাল কলেজ - আয়ুস্মানের ছোঁয়ায় বদলে যাবে চিকিৎসা ব্যবস্থা। হয়রান হতে হবে না রোগীকে। বারবার আশ্বস্ত করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। স্বাস্থ্যক্ষেত্রে বরাদ্দ সামান্য বেড়ে হল ৬৯ হাজার কোটি টাকা। তবে নির্মলা সীতারমনের বাজেট বক্ততা শুনে মনে হতে পারে, খুব তাড়াতাড়ি কোনও এক জাদুকাঠির ছোঁয়ায় বদলে যাবে স্বাস্থ্য পরিষেবা। এদিন বাজেটে স্বাস্থ্য ক্ষেত্রের জন্য যা ঘোষণা করলেন নির্মলা সীতারমন ৷ সব জেলায় হাসপাতাল তৈরির প্রস্তাব

সব হাসপাতালে জন- ঔষধী কেন্দ্র ১২টি জটিল অসুখ নির্মূল করতে মিশন ইন্দ্রধনুষ ২০২৫ সালের মধ্যে যক্ষ্মা মুক্ত ভারত টিবি ও ক্যান্সার চিকিৎসায় জোর স্বাস্থ্যে একটাই সমাধান। আয়ুষ্মান ভারত। নরেন্দ্র মোদির স্বপ্নের প্রকল্পকে আরও ছড়িয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা পেশ করলেন নির্মলা সীতারমন। ইন্দ্রধনুষ প্রকল্পে ১২টি কঠিন রোগ নির্মূল করতে কাজ শুরুর কথাও জানান কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। এতো গেল প্রকল্পর কথা। সাধারণ মানুষ সহজে কি চিকিৎসা পাবেন? সরকারি হাসপাতালের ভিড়ে অমানুষিক পরিস্থিতি কিছুটা শুধরোবে? নতুন হাসপাতাল তৈরির ঘোষণার কথা বলেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। তবে সেই ঘোষণা ঘিরে বহু সংশয় ৷ জেলায় জেলায় পিপিপি মডেলে হাসপাতাল তৈরির ঘোষণা ৷ ২০১৬ সালেও বাজেটে এমনই একটি ঘোষণা করেন তৎকালীন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি ৷ পিপিপি মডেলে হাসপাতাল তৈরির কাজ বিশেষ এগোয়নি ৷ তাই প্রশ্ন উঠছে, আবার কেন একটি পুরনো প্রকল্পকেই ফিরিয়ে আনা? উত্তর নেই। রাজ্য জমি দিলে সব রাজ্যে জেলা হাসপাতালের পাশে মেডিক্যাল কলেজ তৈরির প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে বাজেটে। সেই প্রস্তাব বাস্তবায়িত হলে অবশ্য রোগীদেরই সুবিধা।  এত সব যদি হয়ও, খরচ উঠবে কোথা থেকে? চিকিৎসায় ব্যবহার হওয়া যন্ত্রাংশে কর বসিয়ে টাকা তোলার কথা জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী।

First published: February 1, 2020, 8:02 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर