প্রাণহানির আশঙ্কা জানিয়ে উন্নাও নিগৃহীতার চিঠি প্রকাশ্যে আসার পর উত্তাল হল সংসদ

প্রাণহানির আশঙ্কা জানিয়ে উন্নাও নিগৃহীতার চিঠি প্রকাশ্যে আসার পর উত্তাল হল সংসদ

প্রাণহানির আশঙ্কা জানিয়ে নিগৃহীতার চিঠি প্রকাশ্যে আসার পরই উত্তাল হয় সংসদ। কেন্দ্রকে একযোগে চেপে ধরে কংগ্রেস, তৃণমূল, সমাজবাদী পার্টির মতো বিরোধী দল।

  • Share this:

#উন্নাও: কেন্দ্রে মোদি । রাজ্যে যোগী -- উন্নাওয়ের নিগৃহীতার গাড়িতে ধাক্কার ঘটনায় প্রবল অস্বস্তিতে দু-পক্ষই। প্রাণহানির আশঙ্কা জানিয়ে নিগৃহীতার চিঠি প্রকাশ্যে আসার পরই উত্তাল হয় সংসদ। কেন্দ্রকে একযোগে চেপে ধরে কংগ্রেস, তৃণমূল, সমাজবাদী পার্টির মতো বিরোধী দল।

হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন উন্নাওতে নিগৃহীতা। তবে জাতীয় রাজনীতিতে এই ঘটনা ঘিরে প্রবল চাপে বিজেপি। ঘটনায় মোদি ও যোগী সরকারের বিরুদ্ধেই অভিযোগ বিরোধীদের।

জেলে বসেই নিগৃহীতাকে খুনের ছক কষেছেন উত্তরপ্রদেশের বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সেঙ্গার। এখন তদন্তেও প্রভাব খাটাচ্ছেন। বিরোধীদের এই অভিযোগের মধ্যেই প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে টুইট করেন প্রিয়ঙ্কা গান্ধি বঢ়রা।

উন্নাওয়ের ঘটনায় উত্তাল হয় সংসদ। বিজেপিকে চেপে ধরতে একযোগে মাঠে নামে সব বিরোধী দল। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বিবৃতির দাবিতে সরব হন বিরোধী সাংসদরা। চলে চাপানউতোর।

উন্নাওয়ের ঘটনার প্রতিবেশি সংসদের বাইরে বিক্ষোভ দেখায় কংগ্রেস, তৃণমূল, সমাজবাদী পার্টির মতো বিরোধী দলগুলো। তবে এখানেই না ছেড়েও চাপ আরও বাড়াতে চাইছে বিরোধীরা।

উন্নাও নিয়ে কীভাবে পরিস্থিতির মোকাবিলা করা যাবে, তা নিয়ে এখনও দোলাচলে বিজেপি। সূত্রের খবর, এর দায় যোগী প্রশাসনের ঘাড়েই চাপাতে চায় কেন্দ্র। তাই বিরোধীদের দাবি সত্ত্বেও এনিয়ে বিবৃতি দেননি অমিত শাহ বা স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীরা।

First published: July 31, 2019, 3:43 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर