Home /News /national /
BJP Mahila Morcha in UP Assembly Poll: মহিলাদের ভোট পেতে গ্রামে 'মহিলা চৌপাল' আর কীর্তনের আয়োজন বিজেপির

BJP Mahila Morcha in UP Assembly Poll: মহিলাদের ভোট পেতে গ্রামে 'মহিলা চৌপাল' আর কীর্তনের আয়োজন বিজেপির

বিজেপি মহিলা মোর্চা

বিজেপি মহিলা মোর্চা

BJP Mahila Morcha in UP Assembly Poll: মহিলা ভোটারদের নির্বাচনী মতামত নিজেদের দিকে নিশ্চিত করতে রাজ্য জুড়ে ‘মহিলা চৌপাল’ এবং ‘কীর্তন’-এর আয়োজন করছে বিজেপি

  • Share this:

    #উত্তরপ্রদেশ: উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে (UP Assembly Poll 2022) টানা দ্বিতীয়বার জয়ী হতে মহিলা ভোটের উপর আস্থা বাড়াচ্ছে বিজেপি! মহিলা ভোটারদের নির্বাচনী মতামত নিজেদের দিকে নিশ্চিত করতে রাজ্য জুড়ে ‘মহিলা চৌপাল’ এবং ‘কীর্তন’-এর আয়োজন করছে বিজেপি (BJP Mahila Morcha in UP Assembly Poll)।

    গেরুয়া দলের বিশ্বাস, নির্বাচনে গুরুত্বপূর্ণ এবং নির্ণায়ক ভূমিকা পালন করবেন মহিলা ভোটাররা। এ রাজ্যের মোট ভোটারের প্রায় অর্ধেকই (৪৬ শতাংশ) মহিলা এবং সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ভোটাধিকার প্রয়োগে মহিলাদের অংশগ্রহণ সাথে বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০১৭ সালের বিধানসভা নির্বাচনে (2017 Assembly polls) ৬০ শতাংশেরও বেশি মহিলা নিজেদের ভোট দিয়েছেন, যে হার পুরুষদের ভোটদানের চেয়ে বেশি৷

    বিজেপির মহিলা শাখা (BJP Mahila Morcha in UP Assembly Poll) উত্তরপ্রদেশের ব্লক এবং গ্রামীণ স্তরে ‘মহিলা চৌপাল’ (Mahila Chaupal) এবং ‘কীর্তন’ (Kirtan) আয়োজন করছে। মহিলাদের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়িয়ে সরকারি নানা প্রকল্পের সুবিধাপ্রাপ্তদের সঙ্গে কথা বলা এবং বিজেপির প্রচার করে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপিকে ভোট দেওয়ার আবেদনও জানাচ্ছে তারা।

    আরও পড়ুন- ২০২৪-এ বিজেপিকে পরাস্ত করা সম্ভব! কিন্তু...নিজের পরিকল্পনা বললেন প্রশান্ত কিশোর

    বিজেপি মহিলা মোর্চার জাতীয় সহ-সভাপতি রেখা গুপ্তা (BJP Mahila Morcha national vice president Rekha Gupta) আইএএনএসকে জানিয়েছেন যে, বিজেপি দল ‘মহিলা চৌপাল’ এবং ‘কীর্তন’-এর মাধ্যমে মহিলা ভোটারদের কাছে পৌঁছচ্ছে (BJP Mahila Morcha in UP Assembly Poll)। “আমরা মহিলা ভোটারদের কাছে পৌঁছনোর জন্য ধারাবাহিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করছি এবং এর মধ্যে দু’টি হল ‘মহিলা চৌপাল’ আর ‘কীর্তন। চৌপালে উপস্থিত সকলেই সরকারি নানান প্রকল্পের সুবিধা পান। একইভাবে, আমরা কীর্তন মণ্ডলীর মাধ্যমেও মহিলাদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করছি। এই আয়োজনগুলি মূলত গ্রাম এবং ব্লক স্তরে করা হচ্ছে,” বলেন রেখা।

    আরও পড়ুন- উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি রাখতে ব্যর্থ দল, বিজেপি ছাড়লেন অভিনেতা বনি সেনগুপ্ত

    রেখার মতে, মহিলা মোর্চার নেত্রীরা কোভিড আচরণবিধি এবং নির্বাচন কমিশনের নির্দেশিকা অনুসরণ করেই সরকারি প্রকল্পের সুবিধাভোগীদের সঙ্গে যোগাযোগ করে। “আমরা তাদের বলি যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে গত পাঁচ বছরে আমাদের মুখ্যমন্ত্রী যে অসাধারণ কাজ করেছেন তার জন্য জনগণ যোগী আদিত্যনাথের সঙ্গেই রয়েছে। আমরা বোঝাই, পাঁচ বছরের এই স্বল্প সময়ে এত কাজ কোনও সরকার করেনি। উত্তরপ্রদেশকে উন্নয়নের নতুন চূড়ায় নিয়ে যেতে বিজেপিকে সরকারকে নির্বাচিত করার জন্য আবেদন জানাই,” বলেন রেখা গুপ্তা।

    ২০১৭ সালে উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন মহিলা ভোটাররা এবং ২০১৯ সালে কেন্দ্রে মোদি সরকারকে ফেরাতেও মহিলা ভোট ছিল বড়ো অস্ত্র। আসন্ন নির্বাচনেও যে গুরুত্বপূর্ণ তাস মহিলাদের ভোটই তা বুঝে মহিলাদের সমর্থন জিততে সামান্যতম সুযোগটুকুও ছাড়তে নারাজ বিজেপি।

    সাত দফায় উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচন শুরু হবে ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে। ভোট গণনা হবে ১০ মার্চ।

    Published by:Madhurima Dutta
    First published:

    Tags: UP Assembly Poll

    পরবর্তী খবর