Home /News /national /

Narendra Modi in Punjab: 'বেঁচে ফিরেছি, আপনাদের মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাবেন', ভাটিন্ডা বিমানবন্দরে বললেন ক্ষুব্ধ মোদি

Narendra Modi in Punjab: 'বেঁচে ফিরেছি, আপনাদের মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাবেন', ভাটিন্ডা বিমানবন্দরে বললেন ক্ষুব্ধ মোদি

পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চান্নি ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷

পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চান্নি ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷

হুসেইনওয়ালার গন্তব্যস্থলের তিরিশ কিলোমিটার আগে একটি উড়ালপুলের উপরে আচমকা কৃষকদের অবরোধের জেরে আটকে যায় নরেন্দ্র মোদির কনভয় (Narendra Modi in Punjab)৷

  • Share this:

    #ভাটিন্ডা: 'আপনে সিএম কো থ্যাংকস কহনা, কী ম্যাঁয় ভাটিন্ডা এয়ারপোর্ট তক জিন্দা লট পায়া' (আপনাদের মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে দেবেন, আমি ভাটিন্ডা বিমানবন্দর পর্যন্ত বেঁচে ফিরতে পারলাম)৷

    অবরোধে আটকে গিয়ে পঞ্জাব সফর ভেস্তে যাওয়ার পর ভাটিন্ডা বিমানবন্দরে সেখানকার আধিকারিকদের উদ্দেশে এমনই মন্তব্য করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi in Punjab)৷ সংবাদসংস্থা এএনআই সূত্রে এমনই দাবি করা হয়েছে৷ সূত্রের খবর, অবরোধে আটকে থাকার পর বাধ্য হয়ে ভাটিন্ডা বিমানবন্দরে ফিরে আসা প্রধানমন্ত্রী দৃশ্যতই ক্ষুব্ধ ছিলেন৷

    ঘটনার সূত্রপাত এ দিন দুপুরে৷ পঞ্জাব সফরে গিয়ে ভাটিন্ডা বিমানবন্দর থেকে হেলিকপ্টারে হুসেইনওয়ালার উদ্দেশে রওনা দেওয়ার কথা ছিল নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi Security Breach)৷ সেখানে শহিদদের জাতীয় স্মৃতি সৌধে শ্রদ্ধাজ্ঞাপনের কথা ছিল প্রধানমন্ত্রীর৷ ভোটমুখী পঞ্জাবে আগে একটি জনসভাতেও ভাষণ দেওয়ার কথা ছিল তাঁর৷

    আরও পড়ুন: অবরোধে কুড়ি মিনিট আটকে থাকলেন নরেন্দ্র মোদি! পঞ্জাব সরকারের রিপোর্ট তলব কেন্দ্রের

    কিন্তু আবহাওয়া খারাপ থাকায় প্রধানমন্ত্রীর হেলিকপ্টার সফর বাতিল হয়৷ বদলে প্রায় দু' ঘণ্টার দূরত্বের সড়ক পথ ধরেই রওনা দেয় প্রধানমন্ত্রীর কনভয়৷ কিন্তু হুসেইনওয়ালার গন্তব্যস্থলের তিরিশ কিলোমিটার আগে একটি উড়ালপুলের উপরে আচমকা কৃষকদের অবরোধের জেরে আটকে যায় নরেন্দ্র মোদির কনভয়৷ অবরোধের জেরে প্রায় ১৫ থেকে ২০ মিনিট উড়ালপুলের উপরেই আটকে থাকেন প্রধানমন্ত্রী৷ এর পর তাঁর কনভয় ফিরে যায়৷ বিমানবন্দরে ফিরেই আধিকারিকদের সামনে নিজের ক্ষোভ উগরে দেন প্রধানমন্ত্রী৷ ঘটনার জন্য পরোক্ষে পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী এবং রাজ্য সরকারকেই দায়ী করেন তিনি৷

    আরও পড়ুন: পথ দেখাল কংগ্রেস, করোনার কারণে এমন পদক্ষেপ কোনও দল নেয়নি!

    এই ঘটনায় কেন্দ্র এবং পঞ্জাব সরকারের মধ্যে চাপানউতোর চরমে পৌঁছেছে৷ প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তায় বড়সড় ফাঁকের অভিযোগ তুলে পঞ্জাব সরকারকেই দায়ী করে বিবৃতি জারি করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক৷ তাঁদের অভিযোগ, পঞ্জাবের মুখ্যসচিব এবং রাজ্য পুলিশের ডিজি সড়কপথে প্রধানমন্ত্রীর কনভয় যাওয়ার বিষয়ে এসপিজি-কে সবুজ সঙ্কেত দিয়েছিল৷ তার পরেও কীভাবে বিক্ষোভকারীদের প্রধানমন্ত্রীর যাত্রাপথে ঢুকে অবরোধ করার সুযোগ দেওয়া হল? কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে পঞ্জাব সরকারের তরফে রিপোর্টও তলব করা হয়েছে৷

    প্রায় কুড়ি মিনিট অপেক্ষার পরও রাস্তা পরিষ্কার না হওয়ায় প্রধানমন্ত্রীর কনভয় ভাটিন্ডা বিমানবন্দরের দিকে ঘুরিয়ে নেওয়া হয়৷ ঘটনায় পিছনে পঞ্জাবের কংগ্রেস সরকারের স্পষ্ট উস্কানি রয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিজেপি৷

    যদিও পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চান্নির দাবি, রাজ্য প্রশাসনকে আগাম না জানিয়ে সড়কপথে প্রধানমন্ত্রীর কনভয় চলে আসাতেই সমস্যা হয়েছে৷ কেন্দ্রের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন তিনি৷ বিজেপি-র পাল্টা প্রশ্ন, প্রধানমন্ত্রী যে সড়কপথে আসছেন, সেই খবর বিক্ষোভকারীরা পেল কীভাবে? যদিও এই ঘটনার জেরে ফিরোজপুরের এসএসপি হরমন হনসকে সাসপেন্ড করা হয়েছে৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    Tags: Narendra Modi, Punjab

    পরবর্তী খবর