Home /News /malda /
Malda: ভাল্লুক নিয়ে গ্রামে গ্রামে খেলা! বন দফতরের জালে পাকরাও তিন

Malda: ভাল্লুক নিয়ে গ্রামে গ্রামে খেলা! বন দফতরের জালে পাকরাও তিন

title=

বন্যপ্রাণী নিয়ে খেলা দেখানো নিষিদ্ধ। তারপরেও প্রত্যন্ত গ্রামীণ এলাকায় ভাল্লুক নিয়ে খেলা দেখাচ্ছিলেন তিন জন। বন দফতরের নজরে বিষয়টি আসতেই বন দফতরের জালে আটক হলেন তিন জন।

  • Share this:

    #মালদহ : বন্যপ্রাণী নিয়ে খেলা দেখানো নিষিদ্ধ। তারপরেও প্রত্যন্ত গ্রামীণ এলাকায় ভাল্লুক নিয়ে খেলা দেখাচ্ছিলেন তিন জন। বন দফতরের নজরে বিষয়টি আসতেই বন দফতরের জালে আটক হলেন তিন জন। উদ্ধার করা হয় ভাল্লুকটিকে।ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে মালদহের গাজোল থানার মাতুল এলাকায়। ভাল্লুকটি উদ্ধার করে বন দফতরের কর্তারা বর্তমানে নিজেদের হেফাজতে রেখেছে। অপরদিকে অভিযুক্ত তিন জনকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে। ঘটনার তদন্তে নেমেছে বন দফতর ও ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। মালদহের গাজোল থানার মাতুল এলাকায় একটি পূর্ণবয়স্ক ভাল্লুক নিয়ে খেলা দেখাচ্ছিল তিন জন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান বন দফতরের কর্তারা। ঘটনাস্থল থেকে পূর্ণবয়স্ক ভাল্লুকটি উদ্ধার করে খাঁচা বন্দি অবস্থায় নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে। ওই ভাল্লুকটিকে প্রাথমিক পর্যায়ে শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে শিলিগুড়ি বেঙ্গল সাফারি ফরেস্টে পাঠানোর চিন্তাভাবনা করছে।

    বন দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃতদের নাম প্রাণবল্লভ সরকার, তার বাড়ি মালদহের গাজোল এলাকায়। বাকি দুজনের নাম লাল মোহাম্মদ কালান্দার , বাড়ি বীরভূম জেলায়। এবং পাপ্পু কালান্দার, বাড়ি বিহারে। উপযুক্ত তিনজনকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

    আরও পড়ুনঃ পাওনা টাকা নিয়ে বিবাদের জেরে দিনেদুপুরে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ!

    শুক্রবার অভিযুক্ত তিনজনকে মালদহ জেলা আদালতে পেশ করে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। কোথায় থেকে ভাল্লুকটি তারা নিয়ে এসেছে। এই সমস্ত বিষয়ে তদন্ত নেমেছে বন দফতর ও পুলিশ। মালদহ রেঞ্জের ফরেস্ট অফিসার সুজিত কুমার চ্যাটার্জি জানিয়েছেন, একটি পূর্ণবয়স্ক ভাল্লুক উদ্ধার হয়েছে । এই ভাল্লুককে নিয়েই ধৃতরা বিভিন্ন জায়গায় খেলা দেখিয়ে বেড়াতো।

    আরও পড়ুনঃ খাবারে বিষক্রিয়া হয়ে ডায়েরিয়াই আক্রান্ত একই পরিবারের ৬ জন! অসুস্থ হয়ে মৃত্যু শিশুর

    অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইন একট্ ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে । পাশাপাশি ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে, তাদের কাছে এই ধরনের আরো কোন বন্য জন্তু রয়েছে কিনা। জেলা পুলিশের মাধ্যমে শুক্রবার ধৃতদের মালদহ জেলা আদালতে পেশ করা হবে।

    Harashit Singha
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Malda, North Bengal

    পরবর্তী খবর