Home /News /malda /
Malda: 'হানি ট্রাপ' প্রতারণা থেকে সচেতন করতে পুলিশের পক্ষ থেকে শিবির আয়োজন

Malda: 'হানি ট্রাপ' প্রতারণা থেকে সচেতন করতে পুলিশের পক্ষ থেকে শিবির আয়োজন

title=

'হানি ট্রাপ' সোশ্যাল মিডিয়ায় নতুন প্রতারণার ফাঁদ। ফেসবুক সহ বিভিন্ন সোশ্যাল মাধ্যমে ভুঁয়ো অ্যাকাউন্ট খুলে ফাঁদ পাতছে প্রতারকেরা। সেই ফাঁদে অধিকাংশ সময়ই পড়ে যাচ্ছেন সোশ্যাল মাধ্যম ব্যবহারকারীরা।

  • Share this:

    মালদহ: 'হানি ট্রাপ' সোশ্যাল মিডিয়ায় নতুন প্রতারণার ফাঁদ। ফেসবুক সহ বিভিন্ন সোশ্যাল মাধ্যমে ভুঁয়ো অ্যাকাউন্ট খুলে ফাঁদ পাতছে প্রতারকেরা। সেই ফাঁদে অধিকাংশ সময়ই পড়ে যাচ্ছেন সোশ্যাল মাধ্যম ব্যবহারকারীরা। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই যুবক সম্প্রদায় এই হানি ট্রাপের শিকার হচ্ছেন। ক্রমশ মালদহ জেলায় বাড়ছে হানি ট্রাপ প্রতারণা চক্র। মালদহ জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সদ্য প্রচলিত হয়েছে এই প্রতারণার ফাঁদ। মূলত ফেসবুকেই প্রতারণা করা হচ্ছে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই। মালদহ জেলার সাইবার ক্রাইম থানায় প্রতি মাসে গড়ে ১০ থেকে ১৫ টি অভিযোগ দায়ের হচ্ছে। তবে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই অভিযোগ দায়ের করতে আসছেন না অনেকেই। জেলায় এই প্রতারণা চক্র বাড়তে থাকায় ইতিমধ্যে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। মালদহ জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মূলত কলেজ পড়ুয়া ও যুবক সম্প্রদায় এই প্রতারণার শিকার হচ্ছেন বেশি। তাই জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে এই সাইবার প্রতারণা থেকে সচেতন হতে স্কুল-কলেজ গুলিতে শিবির করার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে মালদহ শহরের বেশ কিছু বাজারে এমন সচেতনতা শিবির করা হয়েছে। বর্তমানে অধিকাংশ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলির খুললেই জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে প্রতিটি প্রান্তে স্কুল-কলেজগুলোতে সচেতনতা শিবির করা হবে।

    হানি ট্রাপ ঠিক কি? জেলা সাইবার ক্রাইম থানার কর্তা জানান, এটি মূলত ফেসবুকে প্রতারণা চক্র। এক্ষেত্রে মহিলাদের নামে ভুয়ো ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খোলা হচ্ছে। ভুয়ো অ্যাকাউন্ট থেকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠানো হচ্ছে। এক্সেপ্ট করলেই বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। ফেসবুক মেসেঞ্জারে চ্যাটের মাধ্যমে কথোপকথন চালাচ্ছে প্রতারকেরা। তারপরেই প্রতারণার ফাঁদে ফেলে ভিডিও কল করে অশ্লীল ছবি দেখানো হচ্ছে। এর পরেই ভিডিও কল রেকর্ড করে হয়রানি করছে। মোটা অংকের টাকা চাওয়া হচ্ছে।

    আরও পড়ুনঃ নিয়মিত মিলছে না ভাতা! বিক্ষোভ মালদহের অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীদের

    না দিলে সেই ভিডিও সোশ্যাল মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি আসছে। এর শিকার হচ্ছেন ফেসবুক ব্যবহারকারী যুবক সম্প্রদায়। এইভাবে বহু ক্ষেত্রেই প্রতারণার শিকার হচ্ছে অনেকে। তাই সাধারণ মানুষকে সচেতন থাকতে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে অচেনা অপরিচিতদের তরফ থেকে সোশ্যাল মাধ্যমে বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দিলে তা এড়িয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। এমনটা করলে রেহাই পাবেন এমন প্রতারণার হাত থেকে। মালদহ জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এমন প্রতারণার শিকার হওয়ার পরেও অনেকে অভিযোগ দায়ের করতে আসছেন না।

    আরও পড়ুনঃ ১৯ বছর পর কামব্যাক! জাতীয় স্তরে হাসিল ৩ টি সোনা ও ১টি ব্রোঞ্জ! এবার তনুশ্রীর সুযোগ আন্তর্জাতিক স্তরেও!

    তাই জেলা পুলিশের কর্তাদের পরামর্শ, প্রকাশ্যে যদি কেউ আসতে না চাই, অনলাইন মাধ্যমেও সাইবার ক্রাইম থানায় অভিযোগ জানানোর ব্যবস্থা রয়েছে রাজ্য পুলিশের। সেখানে গিয়ে অভিযোগ দায়ের করা যেতে পারে। জেলা সাইবার ক্রাইম থানার ছাড়াও প্রতিটি থানায় অভিযোগ নেওয়া হচ্ছে এই সংক্রান্ত প্রতারণার।

    Harashit Singha
    First published:

    Tags: Malda, North Bengal

    পরবর্তী খবর