Home /News /malda /
Malda: ফেরিঘাট গুলির পরিষেবা সংক্রান্ত বিষয়ে খোঁজখবর নিতে বৈঠক জেলাশাসকের

Malda: ফেরিঘাট গুলির পরিষেবা সংক্রান্ত বিষয়ে খোঁজখবর নিতে বৈঠক জেলাশাসকের

title=

মালদহের অধিকাংশ ফেরিঘাটে যাত্রী পাড়াপাড়ে লাইফ জ্যাকেট ব্যবহার করা হচ্ছেনা। এমনকি সমস্ত যাত্রীদের টিকিট দেওয়া হয় না। এখন বর্ষার মরশুম, মালদহের নদীগুলির জলস্তর বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে।

  • Share this:

    মালদহ: মালদহের অধিকাংশ ফেরিঘাটে যাত্রী পাড়াপাড়ে লাইফ জ্যাকেট ব্যবহার করা হচ্ছেনা। এমনকি সমস্ত যাত্রীদের টিকিট দেওয়া হয় না। এখন বর্ষার মরশুম, মালদহের নদীগুলির জলস্তর বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। ফেরিঘাট গুলিতে নৌকা পারাপারে পর্যাপ্ত সুরক্ষা প্রয়োজন। ফেরিঘাট গুলিতে যাত্রী পারাপারের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে মালদহ জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জেলার ফেরিঘাট কর্তাদের নিয়ে একটি বৈঠক করা হলো। সোমবার মালদা জেলা প্রশাসনিক ভবনে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। জেলাশাসকের উপস্থিতিতে ফেরিঘাটগুলির সরকারের নিয়ম নির্দেশিকা মেনে নৌকা চলাচলের নির্দেশ দেওয়া হয়। পাশাপাশি ফেরিঘাট গুলির কোথায় কোন সমস্যা রয়েছে কিনা সে বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়। একাধিক ফেরিঘাটের কিছু সমস্যা রয়েছে সেগুলি দ্রুত সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন জেলা প্রশাসনের কর্তারা।

    মালদহ জেলা পরিষদের অধীনে রয়েছে প্রায় ত্রিশটি ফেরি ঘাট। এছাড়াও পঞ্চায়েত সমিতি ও গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীনে কিছু ফেরিঘাট রয়েছে। মালদহে মূলত গঙ্গা, ফুলহার, মহানন্দা, ট্রাঙন নদী পারাপারের জন্য অধিকাংশ ফেরিঘাট গুলি রয়েছে। বর্ষার মরশুমে ফেরিঘাটে যাত্রী সুরক্ষা নিয়ে প্রশাসনিক বৈঠকের করলেন জেলাশাসক নিতীন সিংঘানিয়া। সোমবার বিকেলে মালদহজেলা প্রশাসনিক ভবনের কনফারেন্স রুমে এই বৈঠক হয়। বিভিন্ন ঘাট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করেন জেলা প্রশাসনের কর্তারা।

    আরও পড়ুনঃ মালদহ থানার চেতনা স্কুলের পড়ুয়াদের জন্য টেবিল টেনিস প্রশিক্ষণ

    জেলাশাসক নিতীন সিংঘানিয়া ছাড়াও এই বৈঠকে জেলার দুই জন অতিরিক্ত জেলাশাসক সহ অন্যান্য কর্তারা উপস্থিত ছিলেন। জলপথে চলাচলের ক্ষেত্রে যাত্রীদের ফেরিঘাট কর্তৃপক্ষ কতটা সুরক্ষা দিকে লক্ষ্য রাখছে, সেই বিষয় নিয়েই মূলত এদিন আলোচনা করা হয়। বর্ষার মরশুমে এখন নদীর জল বাড়ছে। সেই পরিস্থিতিতে যাত্রীদের লাইফ জ্যাকেটের ব্যবস্থা করার আশ্বাস দিয়েছে প্রশাসন।

    আরও পড়ুনঃ অল্প বৃষ্টিতেই জল থৈ থৈ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্বর!

    সমস্ত ফেরিঘাট কর্তৃপক্ষকে অতিরিক্ত লাইভ জাকেট দেওয়া হবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে। বিভিন্ন ঘাট এলাকায় শৌচাগার ও পানীয় জলের ব্যবস্থা রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রাতে নৌ চলাচল করলে আলোর ব্যবস্থা করা। এছাড়াও বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়। যাত্রী সুরক্ষার ক্ষেত্রে ফেরিঘাট গুলিতে কোনরকম গাফিলতি না থাকে সেই ব্যবস্থা নিচ্ছে প্রশাসন।

    Harashit Singha
    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Malda, North Bengal

    পরবর্তী খবর