Home /News /local-18 /
Siliguri Laxmi Puja: লক্ষ্মীর পুজোর বাজারে সব জিনিসের চড়া দাম ! মাথায় হাত শহরবাসীর

Siliguri Laxmi Puja: লক্ষ্মীর পুজোর বাজারে সব জিনিসের চড়া দাম ! মাথায় হাত শহরবাসীর

photo source local 18

photo source local 18

Siliguri Laxmi Puja: নিত্য দৈনন্দিন খাদ্যবস্তুর অস্বাভাবিক দামবৃদ্ধির জন্য মূলত বৃষ্টি ও পেট্রোপণ্যের অস্বাভাবিক স্ফীতিকেই দায়ী করছেন ব্যবসায়ীরা।

  • Share this:

    #শিলিগুড়ি: রাত পোহালেই লক্ষ্মীপুজো (Siliguri Laxmi Puja )। কিন্তু তার আগেই আমজনতার হাতে ছ্যাঁকা দিচ্ছে সবজি সহ ফল-ফলাদির বাজার। এদিকে নিম্নচাপের প্রভাবে শিলিগুড়ি সহ উত্তরবঙ্গের বেশ কিছু এলাকায় তীব্র দাবদাহের পর স্বস্তির বৃষ্টি শুরু হয়েছে। এতে চিন্তায় যেমন পরেছে মৃৎশিল্পীরা, তেমনই খুচরা-পাইকারী ব্যবসায়ীরা।

    অন্যদিকে, পেট্রোপণ্যের অহরহ মূল্যবৃদ্ধি খাদ্যপণ্যের অস্বাভাবিক দাম বাড়ার জন্য মূলত  (Siliguri Laxmi Puja )এই বৃষ্টি ও পেট্রোপণ্যের অস্বাভাবিক স্ফীতিকেই দায়ী করছেন ব্যবসায়ীরা। বাজারে গিয়ে কার্যত ছ্যাঁকা খেতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে।

    এদিন শহরের ফুলেশ্বরী বাজারে কিলো প্রতি শশা, (Siliguri Laxmi Puja ) আপেল, বেদানা ১০০ - ১৫০টাকা, পেয়ারা, লেবু ৬০ - ৮০টাকা, মালভোগ কলা ৭০ - ৯০টাকা ডজন, চিনিচম্পা ৪০ - ৫০টাকা ডজন বিক্রি হয়েছে। এছাড়াও বেড়েছে শীতকালীন সবজির দাম। একই চিত্র এনজেপি ও বিধান মার্কেট সবজি ও ফল বাজারে।

    ফল প্রসাদ হোক কিংবা খিচুড়ি ভোগ, সবকিছুর উপকরণই এখন যেন ধরা ছোঁয়ার বাইরে। তাই বৃষ্টি, বেড়ে যাওয়া মূল্যের চাপ নিয়ে খুব একটা কেউ বাজারমুখী হচ্ছেন না। এনিয়ে ফুলেশ্বরী বাজারের এক ব্যবসায়ী অসীম পাল বলেন, 'সকাল থেকে খুব একটা বাজার জমেনি। আশা করছি বেলা বাড়লে বেশ জমবে। বৃষ্টির জন্যও কিছুটা ব্যাঘাত ঘটেছে। তবে আশা রাখছি মানুষ আসবে বাজার করতে।'

    লক্ষ্মীপুজো ঠিক আগের দিন বৃষ্টি  (Siliguri Laxmi Puja )মাথায় নিয়ে বাজার করতে এসেছেন অচিন্ত্য গুহ। তিনি অবশ্য বলেন, 'পেট্রোল-ডিজেলের দাম যে হারে বাড়ছে, তার সঙ্গে তুলনা করতে গেলে কিছুই না এই সবজি-ফল বাজারের দাম।' বলেন, 'সবকিছুরই দাম বেড়েছে। তারওপর এই নাছোড় বৃষ্টি। গরমে স্বস্তি দিলেও ব্যবসায় ঘাটা। তাই আমাদের কষ্ট হলেও মানিয়ে নিতেই হচ্ছে।'

    এদিকে সবজি বাজারেরও মূল্যের আগুনে  (Siliguri Laxmi Puja )ছ্যাঁকা খেতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। পেঁয়াজ, পুজোর আগেও যেটা ছিল ৩৪ থেকে ৩৭ টাকা কেজি। ৬০ থেকে ১০০ টাকার মধ্যে ঘোরাফেরা করছে পটলের দাম। টোমেটো ৮০ টাকা কেজি। বেগুন আরও মহার্ঘ - ৮০ থেকে ১০০ টাকা কেজি।

    ক্যাপসিকাম ১৮০ থেকে ২০০ টাকা কেজি। (Siliguri Laxmi Puja ) কোনও রান্নায় স্বাদ বাড়াতে ধনেপাতার জুড়ি মেলা ভার। কিন্তু চলতি বাজারে সেটাও ৩০০ টাকা কেজি। সজনে ডাঁটা বিক্রি হচ্ছে ১৮০ থেকে ২০০ টাকা কেজি দরে। বিনস ১৫০ টাকা কেজি। পালং শাক ১০০ টাকা কেজি। একটু ভাল ফুলকপি নিতে হলে এক পিসের জন্য গুনতে হবে ৫০ থেকে ৬০ টাকা। করলা, কাঁকরোল বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকা কেজি দরে। কচু ৫০ টাকা কেজি। কুঁদরি ৬০ টাকা কেজি। স্বাভাবিক ভাবেই পকেটে আরও টান পড়ছে সাধারণ মানুষের।

    এইদিকে প্রতিমা সহ দশকর্ম দ্রব্যের মূল্যও পকেটে টান ফেলছে বহু সাধারণ মানুষের। শিলিগুড়ি এনজেপি মার্কেট চত্বরে দশকর্ম ব্যবসায়ী বিকাশ ঘোষ বলেন, 'গতবছর করোনার জন্য আমরা খুব একটা ভালো ব্যবসা করে উঠতে পারিনি। এবছর এখনো পর্যন্ত বাজার ঠিকই আছে। বুধবার অর্থাৎ আগামীকাল পর্যন্ত বাজার হবে। মা লক্ষ্মীর কাছে লক্ষ্মী লাভের আশা ও প্রার্থনা করছি। বাকিটা এই বৃষ্টির জন্য কিছুটা হলেও থমকে গেছে। দেখা যাক কতদূর কি হয়।'

    প্রত্যেক বার কোজাগরী লক্ষ্মীর আরাধনা বাড়িতে  (Siliguri Laxmi Puja )হলেও এবার পুজোর বাজারে কাটছাঁট হয়েছে বলে জানান গৃহবধূ মিতালি সেন। তিনি বলেন, 'ভোগের খিচুড়ি রান্না করতে যা সবজি লাগে, সেগুলোর দাম বেড়েই চলেছে। ফলেরও দাম আকাশছোঁয়া। চারিদিকে মূল্যবৃদ্ধি। এদিকে বৃষ্টির জন্য সকাল থেকে বাজারে যাইনি। বিকেলে বের হয়ে টুকটাক কেনাকাটা করি।'

    বাজার না জমলেও আশাবাদী ব্যবসায়ীরা। অনেকেই আবার বলছেন পুজোর সকালেও জমতে পারে বাজার। তাই সকাল সকাল ফের ফল, ফুল ও পুজোর সামগ্রীর পসরা সাজিয়ে বসবেন তাঁরা।

    Vaskar Chakraborty

    Published by:Piya Banerjee
    First published:

    Tags: Lakshmi Puja 2021, NJP, Siliguri

    পরবর্তী খবর