• Home
  • »
  • News
  • »
  • local-18
  • »
  • 150 YEARS OF RATH YATRA HAS BEEN POSTPONED DUE TO COVID19 AT DUTTAPUKUR NORTH 24 PARGANAS PBD

১৫০ বছরের ঐতিহ্য রথযাত্রা স্থগিত দত্তপুকুরে, করনাবিধি মেনে হল পূজার্চনা

  • Share this:

    রাতুল ব্যানার্জি, উত্তর ২৪ পরগনা : করোনা মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউয়ে রাজ্য তথা জেলা সংক্রমণে শীর্ষ স্থানে ছিল। তবে আপাতত অনেকটাই হ্রাস কমেছে সংক্রমণে। তবে রাজ্য সরকারের নির্দেশে কিছুটা শিথিল করে ১৫ জুলাই পর্যন্ত রাজ্যে চলছে বিধি নিষেধ। সোমবার ছিল রথ৷ বিধিনিষেধের ফলে করোনা বিধি মেনে জেলার বহু জায়গায় রথের অনুষ্ঠান পালিত হয়েছে, আবার কোথাও স্থগিত রাখা হয়েছে রথযাত্রা। ঠিক এমনই দেখা গেল উত্তর ২৪ পরগনার দত্তপুকুর এলাকায়। ১৫০ বছর পুরনো এই রথ। পড়না মহামারী ফলে গত দুই বছর ধরে স্থগিত' রথযাত্রা। দত্তপুকুর এলাকার প্রায় ১৫০ বছরের পুরনো রথের ঐতিহ্য বাঁচিয়ে রাখার চেষ্টা চললেও গত দুই বছর শুধুই নিয়মটুকু মানা হচ্ছে রাধা ভবনে। দত্তপুকুর নিবাধাই এলাকার প্রাচীন রথ, একসময় নিয়মমাফিক এই রথ সাত দিনের জন্য চলে যেত মাসির বাড়ি রাধাভবনে। সেখানে পূজার্চনা হয়ে আবার ফিরে আসত নিজের বাড়িতে। দত্তপুকুর নিবাধাই এলাকার দাস পরিবারের ধুমধামে অনুষ্ঠিত হত এই রথযাত্রা। সেই দাস পরিবারের উত্তরসূরী সুপ্রিয় দাস জানান একসময় স্বপ্নে পাওয়া সোনার রথ থেকে এই উৎসব। পরবর্তীতে পিতলের বিশাল রথ বানিয়ে উৎসব শুরু হয়। কোনো কারণবশত সেই পিতলের রথ খারাপ হয়ে যায়। স্থানীয় মৈত্রী সংঘ ক্লাবের সহযোগিতায় ঐতিহ্য বাঁচিয়ে রাখার জন্য একটি রথ তৈরি হয় গত ৫ বছর আগে। এই রথকে কেন্দ্র করে সাতদিন ধরে চলে রথের মেলা। আশেপাশের বহু দূর দূরান্ত থেকে এই রথের মেলায় মানুষের ঢল ছিল চোখে পড়ার মতো। নিয়ম করে মাসির বাড়ি থেকে শুরু করে পূজার্চনা এবং ভোগ বিতরণ করা হতো মানুষের মধ্যে। তবে গত দুইবছর ধরে প্রায় সব বন্ধ। রথের চাকা ঘুরছে না আর দুইবছর ধরে। দত্তপুকুর এলাকা জুড়ে ঘুরতো এই রথ। এখন করোনা পরিস্থিতির কারণে তা বন্ধ আছে। তবে নিয়ম মেনে পূজার্চনা হচ্ছে বলে জানান পরিবারের লোকেরা। এই ১৫০ বছরের ঐতিহ্য কে বাঁচিয়ে রাখতে চায় পরিবার থেকে শুরু করে দত্তপুকুরবাসী। পরবর্তী প্রজন্ম যেন এই ঐতিহ্য বহন করে নিয়ে যেতে পারে তার জন্য এই রথ উৎসব আপাতত বন্ধ থাকলেও নিয়ম আচার মেনে উৎসব পালন করা হচ্ছে কোভিড বিধি মেনে। জগন্নাথ বলরাম ও সুভদ্রা কাছে তাদের প্রার্থনা এই করোনা মহামারী থেকে সমস্ত মানুষকে যেন মুক্তি দেয় এবং আগামী বছর থেকে রথের এই উৎসবে সমগ্র দত্তপুকুর বাঁশি যেন উৎসবে মেতে উঠতে পারে।

    Published by:Pooja Basu
    First published: