Home /News /life-style /
Weight Loss Motivation: 'আজ থাক, কাল থেকে ব্যায়াম করব' ওজন কমানোর পথে কীভাবে কাটাবেন মনের এই বাধা?

Weight Loss Motivation: 'আজ থাক, কাল থেকে ব্যায়াম করব' ওজন কমানোর পথে কীভাবে কাটাবেন মনের এই বাধা?

How to Reduce Weight

How to Reduce Weight

Weight Loss Tips: ওয়ার্কআউটের জন্য ভোরে উঠতে তো হবে। কিন্তু সেটা হচ্ছে কই। অ্যালার্ম বাজলেই চোখ ছেঁকে ধরছে ঘুমে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: এখন বেশিরভাগেরই ওয়ার্ক ফ্রম হোম। ভালো-মন্দ খাওয়াদাওয়া, সঙ্গে এক জায়গায় বসে কাজ। ফলে চর্বি জমছে, ওজন বাড়ছে। মোটা হচ্ছে পেট, ঘাড়, গলা। সব মিলিয়ে ঘাড়ে-গর্দানে অবস্থা। এর থেকে মুক্তি পাওয়ার একটাই উপায়, সেটা হল ওয়ার্কআউট, ব্যায়াম।

এখন কথা হল, ওয়ার্কআউটের জন্য ভোরে উঠতে তো হবে। কিন্তু সেটা হচ্ছে কই। অ্যালার্ম বাজলেই চোখ ছেঁকে ধরছে ঘুমে। মন বলছে, ‘আজ থাক, কাল থেকে করব’। কিন্তু সেই কাল আর আসছে না। এর সঙ্গে রয়েছে, মুখরোচক খাওয়ার লোভ। বেশিরভাগটাই স্ট্রিট ফুড বা দোকানের খাবার। তেল, ঝাল, মশলায় মাখামাখি। যা ওজন তো কমাবেই না বরং বাড়াবে। খেতে খেতে বিবেক জেগে উঠছে, বলছে, ‘এটাই শেষবার, আর খাব না’। কিন্তু সেই প্রতিজ্ঞাও রক্ষা করা যাচ্ছে না! আসলে এসব হল মনস্তাত্ত্বিক ব্লকেজ। ওজন কমাতে চাইলে এই ব্লকেজ ভেঙে বেরোতে হবে। কীভাবে? রইল উপায়।

আরও পড়ুন- বিশ্বের সবচেয়ে মহার্ঘ্য এই গোলাপি আম মেলে ভারতেও! প্রতি কেজির দাম ৩ লক্ষ টাকা!

মনস্তাত্ত্বিক কারণ ওজন কমানোর পথে বাধা: কিছু মানুষ মনে করেন, তাঁদের শরীরের আকৃতি ঠিক থাকলেই শরীর ভালো থাকবে। এটা মারাত্মক ভুল ধারণা। মনে এমন ধারণা ঢুকলে অস্বাস্থ্যকর খাবারের প্রতি আকর্ষণ বাড়বে। যা শেষ পর্যন্ত ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াবে। ওজন ঠিক রাখতে গেলে স্বাস্থ্যকর খাবার খেতেই হবে।

চাপ: ওজন কমানোর পথে সবথেকে বড় অন্তরায় স্ট্রেস বা চাপ। এই সময় চাপ নিলে সমস্ত ওয়ার্কআউট, ব্যায়াম, পরিশ্রম জলে যাবে। কারণ স্ট্রেস শরীরে করটিসল তৈরি করে, যা ওজন বাড়ায়। মানসিক চাপও অতিরিক্ত খাওয়ার দিকে পরিচালিত করে কারণ এটাই আবেগকে শান্ত করার সর্বোত্তম উপায়।

অবসাদ: অবসাদ শুধুমাত্র মানসিকভাবে নয়, শারীরিকভাবেও অনেক সমস্যা সৃষ্টি করে। মনে স্থায়ীভাবে অবসাদ চেপে বসলে ওজনের ওঠানামা হয়। অবসাদের ওষুধও ওজন বাড়ায়। তাই স্থূলতা বা অতিরিক্ত ওজনের কারণে হতাশ হলে অবশ্যই মানসিক স্বাস্থ্য চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করতে হবে। তারপর ওজন কমানোর প্রক্রিয়া শুরু করা উচিত।

আরও পড়ুন- "খুশি হতেন জয়ললিতা": দক্ষিণেও দ্রৌপদী মুর্মুকে সমর্থন AIADMK সহ বিজেপির সঙ্গীদের

মানসিক ব্লক কাটিয়ে ওঠার পদ্ধতি: ওজন কমানোর জন্য প্রথমেই বড় লক্ষ্য নেওয়া উচিত নয়। বাস্তবের মাটিতে পা রেখে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। সঠিক ডায়েট এবং ওয়ার্কআউট মেনে চলতে হবে। নিজের শরীরের দিকে ইতিবাচক দৃষ্টিতে তাকানো উচিত। ‘হ্যাঁ, সম্ভব’, এটা মনে গেঁথে গেলেই অর্ধেক কাজ হয়ে যাবে।

কম খাবার মোটেও নয়: ওজন কমানো মানে খাবার কমানো নয়। এটা ভুল পদ্ধতি। ক্যালোরি এবং কার্বোহাইড্রেট কমাতে হবে। প্রোটিন এবং ফাইবার বাড়াতে হবে। সঙ্গে চাই ওয়ার্কআউট। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণভাবে আত্মবিশ্বাসী, খুশি এবং হাসিখুশি থাকা।

Published by:Madhurima Dutta
First published:

Tags: Weight Loss Tips, Workout

পরবর্তী খবর